E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

নবীনগর ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মেধাবৃত্তি ও গুণীজন সম্মাননা প্রদান

২০২৩ নভেম্বর ০৫ ১৫:৪৩:০৫
নবীনগর ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মেধাবৃত্তি ও গুণীজন সম্মাননা প্রদান

গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : 'সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও মাদকমুক্ত সবুজ শ্যামল সমৃদ্ধ নবীনগর চাই' - এমন একটি সময়োপযোগি সাহসী শ্লোগানকে সামনে রেখে ২০১৫ সালে যাত্রা শুরু করে 'নবীনগর উপজেলা ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন' নামের এই সংগঠনটি।

আত্মপ্রকাশের পর থেকে প্রতি বছর নবীনগরকে নিয়ে নানা ধরণের সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড পরিচালনা করে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন মহলের নজর কাড়তে সক্ষম হয় 'নবীনগর উপজেলা ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন' নামের এ আলোচিত সংগঠনটি।

কিন্তু কোভিট-১৯ এর কারণে মাঝখানে তিন বছর কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার পর গতকাল শুক্রবার আবারও নান্দনিক এক আয়োজনে মেধাবী শিক্ষার্থী ও গুণীজনদের সম্মাননা স্মারক প্রদান করে আবারও কার্যক্রম শুরু করে সংগঠনটি।

গতকাল শনিবার বিকেলে ঢাকার বাংলা একাডেমিতে কবি শামসুর রাহমান সেমিনার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় মেধা বৃত্তি ও গুণীজন সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান।

নবীনগর উপজেলা ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের সভাপতি প্রধান শিক্ষক মো. মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান মঞ্চে আমন্ত্রিত অতিথি (মূখ্য আলোচক) ছিলেন নবীনগর সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের প্রাক্তন অধ্যাপক, দেশের বরেণ্য বুদ্ধিজীবী, বাংলা একাডেমি পদকপ্রাপ্ত নাট্যজন অধ্যাপক ড. রতন সিদ্দিকী।

অনুষ্ঠান মঞ্চে এছাড়াও আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন এলজিইডির প্রাক্তন তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী 'কর্মবীর' খ্যাত বিপুল চন্দ্র বণিক, প্রাক্তন অধ্যক্ষ, সংস্কৃতিজন অধ্যাপক ড. জাকিরুল হক বাহার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রফেসর ডঃ মুশফিকুর রহমান, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী, সাবেক সহকারী এটর্ণী জেনারেল অ্যাডভোকেট জাকারিয়া সরকার তছলিম, সড়ক ও জনপথ মন্ত্রণালয়ের (সওজ) উপসচিব বইপ্রেমি ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির, বাংলা একাডেমির পরিচালক বিশিষ্ট আবৃত্তিশিল্পী ড. শাহাদাৎ হোসেন নীপু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক, প্রাক্তন ছাত্রনেতা ইমামুল হক সরকার টিটু, ডাচ বাংলা ব্যাংকের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া ও নবীনগরের জনপ্রিয় টকশো খ্যাত নিউজ পোর্টাল নবীনগরের কথার সম্পাদক, সিনিয়র সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে যাঁরা উপস্থিত ছিলেন তাঁদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন প্রথম আলোর জেনারেল ম্যানেজার অরূপ কুমার ঘোষ (মান্না), সংগঠনের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক বায়োজিদ ভূঁইয়া, নির্বাহী সদস্য-১ মো. মাহবুবুল হুদা, ক্লিন এন্ড গ্রীণ ফাউন্ডেশন ও গরীব ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান জিএম কিবরিয়া, বাংলাদেশ ব্যাংকের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা তৌফিকুর রহমান প্রবাল, যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় নেত্রী তাহরিমা হক সুপ্তি প্রমুখ।

সংগঠনের অর্থ সম্পাদক সাইদুর রহমান পারভেজ ও সাংগঠনিক সম্পাদক মীর তারিকুল ইসলাম সজীবের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক, সাউথ ইস্ট ব্যাংকের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা তোফাজ্জ্বল হোসেন মানিক।

অনুষ্ঠানে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত (গোল্ডেন) নবীনগর উপজেলার বিভিন্ন বিদ্যালয়ের মোট ৯১ জন কৃতী শিক্ষার্থীকে ক্রেষ্ট ও মেধাবৃত্তি হিসেবে নগদ অর্থ প্রদান করা হয়।

পাশাপাশি নবীনগরের সমাজ উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখায় উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলের ৮টি সংগঠনকে "বিশেষ সম্মাননা" স্মারক দেয়া হয়। এগুলো হলো গুঞ্জন পাঠাগার (সুহাতা), মোস্তফা ফাউন্ডেশন (নোয়াগ্রাম), ছাত্রবন্ধন পাঠাগার (নবীপুর), গরীব ফাউন্ডেশন (আলীয়াবাদ), গ্রাম পাঠ সংঘ ( জিপিএস) পাঠাগার (নবীনগর সদর), আলোর দিশারী (লহড়ি), মাদকমুক্ত নবীনগর চাই (নবীনগর) ও জিপিএস-২ গ্রামপাঠ সংঘ (বড়িকান্দি)।

অন্যদিকে নবীনগরে শিক্ষা, সাহিত্য, সংস্কৃতি, সাংবাদিকতা ও সমাজসেবায় বিশেষ অবদান রাখায় নবীনগরের ৮ জন ব্যক্তিকে "গুণীজন সম্মাননা" স্মারক প্রদান করা হয় এ অনুষ্ঠানে।

এঁরা হলেন প্রাক্তন অধ্যক্ষ, অধ্যাপক ড. জাকিরুল হক বাহার, শিশু সাহিত্যিক সরকার জাহানারা ফরিদ, সিনিয়র সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু, লোক গবেষক ও আবৃত্তিশিল্পী জালাল উদ্দিন ভূঁইয়া (তিতাস বিপ্লব), বইমজুর হাবিবুর রহমান (স্বপন মিয়া), কবি মুজিবুর রহমান পথিক, কবি ও লেখক মীর তারিকুর রহমান সজীব ও সম্প্রতি বহুল আলোচিত ১৪ টি গ্রন্থের লেখক রাজমিস্ত্রি জমির হোসেন পারভেজ।

এছাড়াও সংগঠনের বিদায়ী সভাপতি শরিফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক বায়োজিদ ভূইয়াকে সংগঠনের পক্ষ থেকে 'সম্মাননা স্মারক' প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠান উপলক্ষে এই প্রথমবারের মতো ফাউন্ডেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক ও অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব, বাংলা একাডেমিতে কর্মরত মীর তারিকুল ইসলাম (তারিক সজীব) এর সম্পাদনায় 'ঠিকানা' নামে একটি স্মরনিকাও প্রকাশ করা হয়।

প্রায় সাড়ে তিনঘন্টা ধরে চলা হল ভর্তি দর্শকের উপস্থিতিতে নান্দনিক এ আয়োজনের ভূয়সী প্রশংসা করে বক্তারা ভবিষ্যতেও এ ধরণের আয়োজন অব্যাহত রাখার জন্য উদ্যক্তাদের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান।

(জিডি/এসপি/নভেম্বর ০৫, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

০৫ মার্চ ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test