E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

নজরুলের গান বিকৃতকারী এ আর রেহমানের বিচার দাবি হৈমন্তী শুক্লার

২০২৩ নভেম্বর ১২ ১৪:৫৮:২৮
নজরুলের গান বিকৃতকারী এ আর রেহমানের বিচার দাবি হৈমন্তী শুক্লার

বিশেষ প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : 'কারার ঐ লৌহ কপাট' নজরুলের এ কালজয়ী গানটির সুর বিকৃতি করার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে ভারতের প্রবাদ প্রতীম কণ্ঠশিল্পী হৈমন্তী শুক্লা অস্কার বিজয়ী খ্যাতনামা সুরকার এ আর রেহমানের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন।

শনিবার (১১ নভেম্বর) রাতে (রাত ১০ টা থেকে সাড়ে ১১ টা পর্যন্ত) ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর থেকে ভার্চুয়ালি প্রচারিত নিউজ পোর্টাল নবীনগরের কথার ২৪৮তম পর্বে 'অতিথি আলোচক' হিসেবে যুক্ত হয়ে তিনি এ দাবি জানান।

হৈমন্তী শুক্লা তাঁর এ জোরালো দাবিটি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্যও নবীনগরের কথার আয়োজকদের প্রতি অনুরোধ জানান।

এ আর রেহমানের কঠোর শাস্তি দাবি করে হৈমন্তী শুক্লা বলেন, বাংলাদেশ ভারতসহ সারা বিশ্বের বাংলা গানের স্রোতারা এর বিরুদ্ধে জেগে ওঠুন, রাস্তায় নামুন, জোরালোভাবে প্রতিবাদ করুন। এর বিচার না হওয়া পর্যন্ত আপনারা আন্দোলন থেকে সরে যাবেন না।

তিনি সুর বিকৃতির এ ঘটনাটিকে চরম 'অসভ্যতা' আখ্যায়িত করে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, একদিন হয়তো শুনবো, কবি গুরুর 'আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি' গানটির সুরও পাল্টে দেয়ার চেষ্টা হবে। কারণ ইতিমধ্যে রবী ঠাকুরের 'পাগলা হাওয়ার বাদল দিনে' ও 'বন্দে মাতরম' এর সুরকেও পাল্টানোর চেষ্টা হয়েছে।

তিনি এসব ঘৃণ্য অসভ্যতার বিরুদ্ধে সম্মিলিতভাবে সবাইকে রাস্তায় নেমে জোর প্রতিবাদ জানানোর উদাত্ত আহবান জানান।

নিউজ পোর্টাল নবীনগরের কথার সম্পাদক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর পরিকল্পনা ও সঞ্চালনায় প্রচারিত ওই ভার্চুয়াল টকশোতে আরও অংশ নেন বাংলা একাডেমি পুরস্কারে ভূষিত দেশের বরেণ্য নাট্যজন অধ্যাপক ড. রতন সিদ্দিকী, লেখক ও বিশ্লেষক ড. আরশাদ হোসেন, বিশিষ্ট নজরুল সঙ্গীত শিল্পী বিজন মিস্ত্রী ও নজরুল ভক্ত জিয়াউল হক তুহিন।

প্রসঙ্গত, বলিউড পরিচালক রাজা কৃষ্ণ মেননের 'পিপ্পা' ছবিতে অস্কার বিজয়ী প্রখ্যাত সুরকার এ আর রেহমান বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের উদ্দীপনা ও জাগরণীমূলক কালজয়ী গান 'কারার ঐ লৌহ কপাট' গানটির প্রকৃত সুরকে পাল্টে বিকৃত সুরে উপস্থাপন করেন। এরপরই বাংলাদেশ ভারত সহ গোটা বিশ্বে বসবাসরত বাংলা গানের কণ্ঠশিল্পী, স্রোতা, দর্শকেরা এ আর রেহমানের কঠোর বিচারের দাবিতে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন।

(জিডিএ/এএস/নভেম্বর ১২, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

০৪ মার্চ ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test