E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

মিধিলির তাণ্ডব 

সুবর্ণচরে ধান-সবজিসহ বাড়ি ঘর ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

২০২৩ নভেম্বর ১৯ ১৭:২১:৪০
সুবর্ণচরে ধান-সবজিসহ বাড়ি ঘর ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

মোঃ ইমাম উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী : প্রবল ঘুর্ণিঝড় মিধিলির আঘাতে নোয়াখালীর সুবর্ণচরে ১১৫৪৯ হেক্টর জমির ফসল আক্রান্ত হয়, ১২০টি ঘরবাড়ি ও একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ঘর বিধ্বস্ত এবং পল্লী বিদ্যুতের অনেক পিলার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে সু্বর্ণচর উপজেলা প্রশাসন । বারি বর্ষণ ও প্রচন্ড ঝড়ে পানিতে তলিয়ে গেছে উপজেলার ৮ টি ইউনিয়নে অধিকাংশ ফসল ও শাক-সবজি।

সুবর্ণচর উপজেলা কৃষি অফিসার হারুন অর রশিদ জানান, সুবর্ণচরে ঘুর্ণিঝড়ে রোপা আমন, সবজি, সরিসা ও খেসারি আক্রান্ত হয়েছে। এ বছর মাঠে দন্ডায়মান মোট ৩৯৭৩৫ হেক্টর ফসলি জমির মধ্যে ১১৫৪৯ হেক্টর জমির ফসল দুর্যোগে আক্রান্ত হয়েছে। ফসলি জমির মধ্যে দুর্যোগে আক্রান্ত হয়েছে ৬৩৪৭ হেক্টর আমন ধান, সবজি ১০৩২ হেক্টর , সরিষা ২৫০ হেক্টর, খেসারি ৫৯০০ ফসলি জমির হেক্টরই আক্রান্ত হয়েছে। বাকি ফসল সবজি দন্ডয়মান আছে।

চর জুবলীতে অবস্থিত আব্দুল মালেক উকিল বেসরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়েটি সম্পর্ণ বিদ্ধস্থ হয় এবং একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ক্ষয়ক্ষতি হয়।

সুবর্ণচর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আল আমিন সরকার বলেন, ঘুর্ণিঝড়ে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ১২০ টি ঘরবাড়ি ও একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়াও চরজুবিলী চরবাটা খাসের হাট সহ বিভিন্ন স্থানে বিদ্যুতের পিলার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অসংখ্য গাছ পড়ার খবর পাওয়া গেছে।

ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থেকে সম্ভাব্য সরকারি সহায়তা প্রদান করার বিষয়ে আশস্ত করেন সুবর্ণচর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আল আমিন সরকার।

(এস/এসপি/নভেম্বর ১৯, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

০৫ মার্চ ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test