E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

শিরোনাম:

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কেন্দ্র কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যান সমর্থকদের হাতে আ.লীগ নেতা লাঞ্ছিত

২০২৩ নভেম্বর ১৯ ১৯:২৮:৩২
জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কেন্দ্র কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যান সমর্থকদের হাতে আ.লীগ নেতা লাঞ্ছিত

কেন্দুয়া প্রতিনিধি : আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কেন্দুয়া উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের জুড়াইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র কমিটি গঠন করার বিরোধকে কেন্দ্র করে নওপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান এডভোকেট সারোয়ার জাহান কাউসার সমর্থকদের হাতে জুড়াইল গ্রামের বাসিন্দা উপজেলা আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল ফারুক ছানা চরমভাবে লাঞ্ছিত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যা রাত অনুমান সাড়ে ৭টার দিকে নওপাড়া বাজারে প্রকাশ্যে এ হামলার ঘটনাটি ঘটে। 

জানা যায়, কেন্দুয়া উপজেলার ৯নং নওপাড়া ইউনিয়নের জুড়াইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্র কমিটি গঠন উপলক্ষ্যে শনিবার বিকালে ওই গ্রামে আওয়ামীলীগ ও আওয়ামীলীগ সমর্থকদের দুই শতাধিক লোকের এক সভা বসে। উপজেলা আওয়ামীলীগের নির্দেশনা মোতাবেক সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামীলীগ সমর্থীত ইউপি চেয়াম্যানের সমন্বয়ে কেন্দ্র কমিটি গঠনের কথা বলা হয়। সে মোতাবেক সভায় জুড়াইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্র কমিটিতে স্বতন্ত্র ইউপি চেয়ারম্যান এডভোকেট সারোয়ার জাহান কাউসারকে আহবায়ক নিযুক্ত করে কেন্দ্র কমিটি গঠনের প্রস্তাব করা হয়। ওই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেন আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল ফারুক ছানা। এতে সভায় বিশৃঙ্খলা দেখা দিলে কেন্দ্র কমিটি আর গঠন করা হয়নি।

আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল ফারুক ছানার কাছে লঞ্ছিত হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে রবিবার বিকালে তিনি বলেন গত ইউপি নির্বাচনে আমি সারোয়ার জাহান কাউসারের নির্বাচন করিনি। আমি নৌকা মার্কার প্রার্থ ইসলাম তাজুর নির্বাচন করেছি। তখন থেকেই তারা আমার পিছনে লেগে ছিল। শনিবার আমি ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৬ জন সিনিয়র নেতার সমন্বয়ে কেন্দ্র কমিটির আহবায়ক নিযুক্ত করার প্রস্তাব করি। কিন্তু আমার এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে ইউপি চেয়ারম্যান সারোয়ার জাহান কাউসারকে আহবায়ক নিযুক্ত করে কেন্দ্র কমিটি গঠনের প্রস্তাব আসে। আমি উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিজিত ইউপি চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম তাজুকে আহবায়ক নিযুক্ত করার প্রস্তাব করলে সভায় হট্টগোল দেখা দেয়। এ অবস্থায় সভা থেকে মটোসাইকেল যোগে আমি নওপাড়া বাজারে আসা মাত্রই চেয়ারম্যান সারোয়ার জাহান কাউসার ও তার লোকজন আমার উপর অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে আমাকে চরমভাবে লাঞ্ছিত করে। বিষয়টি সংগঠনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের জানানো হয়েছে।

ইউপি চেয়ারম্যান এডভোকেট সারোয়ার জাহান কাউসারের কাছে জানতে চাইলে রোববার বিকালে তিনি বলেন আমি এবং আমার পরিবারের সব সদস্যরা আওয়ামীলীগ করি। কিন্তু কেন্দ্র কমিটি গঠন উপলক্ষ্যে সভায় আমাকে আহবায় নিযুক্ত করে কমিটি গঠনের জন্য তিনবার প্রস্তাব করা হলে তিন বারই বিরোধিতা করেন আব্দুল্লাহ আল ফারুক ছানা। এতে উপস্থিত এবং আমার গ্রামের সমর্থকরা বিরোধিতার কথা শুনে উত্তেজিত হয়ে নওপাড়া বাজারে আব্দুল্লাহ আল ফারুক ছানাকে কয়েকটি চর থাপ্পর মেরেছে। আমি তাদেরকে নিয়ন্ত্রণ করেছি।

নওপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক কর্মকা- পরিচালনার দায়িত্বে থাকা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শহিদুল হক ফকির বাচ্চুর কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন শুনেছি নওপাড়া বাজারে আব্দুল্লাহ আল ফারুক ছানাকে চেয়ারম্যান সারোয়ার জাহান কাউসার সমর্থকরা লাঞ্ছিত করেছে। তিনি বলেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামীলীগ সমর্থীত ইউপি চেয়ারম্যানের সমন্বয়ে ইউনিয়নে কেন্দ্র কমিটি গঠন করার জন্য উপজেলা আওয়ামীলীগের নির্দেশনা রয়েছে।

উপজেলা আওয়ামীলীগ আব্দুল্লাহ আল ফারুক ছানাকে লাঞ্ছিত করার বিষয়টি জেনে আমাদেরকে জরুরিভাবে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। দুই-তিন দিনের মধ্যেই ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করে তদন্ত প্রতিবেদন উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের নিকট জমা দেব। সেখানেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

(এসবি/এসপি/নভেম্বর ১৯, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test