E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

শীতের কুয়াশায় সক্রিয় ভৈরবের ছিনতাই চক্রের সদস্যরা

২০২৩ নভেম্বর ২২ ১৮:৪৩:০৫
শীতের কুয়াশায় সক্রিয় ভৈরবের ছিনতাই চক্রের সদস্যরা

সোহেল সাশ্রু, কিশোরগঞ্জ : শীতের আগমনে তেমন প্রভাব না ফেললেও সন্ধ্যা গড়াতেই চোখে পড়ে হালকা কুয়াশা। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সক্রিয় হয়ে পড়ে ভৈরবের ছিনতাই চক্রের সদস্যরা। তেমনি আজ বুধবার রাত ৩টায় কিশোরগঞ্জের ভৈরব শহরের বঙ্গবন্ধু সরণির গার্লস স্কুল সংলগ্ন ছিনতাই চক্র সদস্যদের হামলার শিকার হয়ে গুরুত্ব আহত হয়েছে আরমান মিয়া (২২) নামে একজন পিকআপ ভ্যান চালক। 

ছিনতাই চক্রের সদস্যরা তাকে গুরুত্বর আহত করার পর তার সাথে থাকা একটি স্মার্ট ফোনসহ দুটি মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এসময় তার ভাইয়ের কাছ থেকেও একটি মোবাইল ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। ঘটনার পর তার ভাই ও স্থানীয়রা গুরত্বর আহত আরমান মিয়াকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসহাতালে প্রেরণ করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

স্থানীয়রা জানান, প্রতি বুধবার ভৈরব বাজারে কোটি টাকার হাট বসে। তাই সারাদেশের ব্যবসায়ীরা মঙ্গলবার রাত থেকেই ভৈরবে আসতে শুরু করে। কিন্তু প্রশাসনের নিরব ভূমিকার কারণে ছিনতাইয়ের কবলে পড়ছে ব্যবসায়ীসহ সাধারণ মানুষজন। এছাড়া একই রাতে ভৈরব রেলওয়ে স্টেশন থেকে বাসস্ট্যান্ড যাওয়ার পথে পৌর কবরস্থান এলাকায় ছিনতাইয়ের কবলে পড়ে ২ জন পথচারী। তাদের মধ্যে একজন নারী ছিলেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় যুবক মজিদ বলেন, আরমান মিয়া নামের পিকআপ ব্যবসায়ীর দুই হাতের রগ কেটে দিয়েছে ছিনতাইকারীরা। প্রতিনিয়ত পৌর শহরের বঙ্গবন্ধু সরণি গার্লস স্কুল এর সামনে ছিনতাই কবলে পড়তে হয় পথচারীদের। গত সপ্তাহে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে আসা আমার দুই আত্মীয় বাইজিদ ও ফ্লোরা ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে স্বর্বস্ব হারায়। এছাড়াও ভৈরবে আরো ৮/১০টি স্পটে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটছে।

এ বিষয়ে আহত আরমান মিয়া জানান, সিলেটের হবিগঞ্জের আজমেরিগঞ্জ এলাকা থেকে ভৈরবে সাপ্তাহিক হাটে শীতে কাপড় বিক্রি করতে আসে। ঢাকা থেকেও আমার পরিচিত ব্যবসায়ীরাও ভৈরব মালামাল নিয়ে আসছিল। আমি বাসস্ট্যা- থেকে তাকে ভৈরব বাজারে নিয়ে যেতে চাইলে সাতজন ছিনতাইকারী আমাকে ঘেরাও করে। তবে ধারণা করছি অটো ড্রাইভার তাদের সাথে জড়িত ছিল। এরকম হলে ভৈরবে ব্যবসা করতে আসতে পারবো না।

ভৈরব থানা অফিসার ইনচার্জ মো. সফিকুল ইসলাম বলেন, আমি সদ্য যোগদান করেছি ভৈরবে। যোগদানের পর থেকে ভৈরবের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় আইন শৃঙ্খলা সদস্যদের দিয়ে নজরদারী জোরদার করেছি। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(এসএস/এসপি/নভেম্বর ২২, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

০৫ মার্চ ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test