E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

সুবর্ণচরে মসজিদের ইমামের বিরুদ্ধে গৃহবধুকে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

২০২৩ নভেম্বর ২৬ ১৮:১৯:৪৪
সুবর্ণচরে মসজিদের ইমামের বিরুদ্ধে গৃহবধুকে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

মোঃ ইমাম উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী : নোয়াখালী সুবর্ণচরে এক গৃহবধূকে শ্লীলতাহানী, অনৈতিক সম্পর্কের প্রস্তাব ও হুমকি ধমকিসহ একাধিক অভিযোগে মসজিদের ইমামের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী এক নারী।

ঘটনাটি ঘটে সুবর্ণচর উপজেলার ১ নং চরজব্বর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড চর রশিদ গ্রামের নুর ইসলামের বাড়ীতে।

উক্ত বিষয়ে গতকাল ২৫ নভেম্বর (শনিবার) চর জব্বর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী চর রশিদ গ্রামের জসিম উদ্দিনের স্ত্রী মর্জিনা বেগম (২৩)।

অভিযুক্ত কবির আহমেদ (৩০) একই ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড আলতাফ হুজরের বাড়ীর মৃত মোহায়ের হোসেনের পুত্র এবং ঘাট মাঝিগো সমাজের বায়তুন নুর জামে মসজিদের ইমাম একই সাথে তিনি চর রশিদ মদিনা মনোয়ারা মাদ্রাসা ও এতিম খানার প্রধান শিক্ষক হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করছেন।

থানার অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, মর্জিনার স্বামী কুমিল্লা চাকুরি করার সুবাধে বাড়ীতে থাকেন না, মাদ্রাসাটি ভুক্তভোগী মর্জিনার বাড়ীর পাশে হওয়ায় ইমাম কবির আহমেদের কুদৃষ্টি পড়ে মর্জিনার ওপর সে থেকে বিগত ১ বছর ধরে কবির আহম্মদ মর্জিনাকে বিভিন্ন সময় অসামাজিক কাজে লিপ্ত হতে প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো সে রাজি না হলে বিভিন্ন অশ্লিল ভাষায় গালমন্দ করে, কিছুদিন পূর্বে তাকে পুকুর ঘাটে শ্লিলতাহানীর চেষ্টা করে, মর্জিনা প্রতিবাদ করলে কবির আহম্মদ তাকে গুম খুনের হুমকি প্রদান করে। নির উপায় হয়ে ন্যায় বিচার পেতে মর্জিনা একাধিকবার এলাকার গণ্যমাণ্য ব্যক্তিদের জানিয়েও কোন প্রতিকার পাননি, তারই ধারাবাহিকতায় তিনি চরজব্বর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

স্থাণীয় সূত্রে জানাযায়, মসজিদ এবং মাদ্রাসায় চাকুরির সুবাদে স্খাণিয় একটি প্রভাবশালী মহল কবির আহম্মদকে বাঁচানোর চেষ্টা করছে তাদের ভয়ে এলাকায় কেউ মুখ খুলেনা।

ভুক্তভোগী মর্জিনার ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে উপযুক্ত বিচার চান, মর্জিনার স্বামী জসিম উদ্দিন বলেন, আমি কুমিল্লা চাকুরি ঘরে একাধিকবার আমার স্ত্রী বিষয়টি আমাকে জানায়, আমরা সমাজে সম্মানিত মানুষ এতোদিন চুপ ছিলাম হুজুরের বাড়াবাড়ির কারনে আমি আমার স্ত্রীকে থানায় অভিযোগ দিতে বলি।।

অভিযুক্ত কবির আহম্মদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এসব আমাকে ফাঁসানোর জন্য নাটক সাজানো হয়েছে আমি উক্ত ঘটনার সাথে জড়িত নই এর পর তিনি ফোনের লাইটি কেটে দেন, একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেন নি।

চরজব্বর থানার এস আই মনির বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি, তাদের মধ্যে আগে থেকে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিষয়ে ঝামেলা আছে শুনেছি উভয় পক্ষকে আগামি শুক্রবার আসতে বলেছি বাকিটা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(এস/এসপি/নভেম্বর ২৬, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test