E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

ট্রেন দুর্ঘটনার ৩৫ দিন পর তদন্তে জেলা প্রশাসন টিম

২০২৩ নভেম্বর ২৮ ১৮:০৫:৫০
ট্রেন দুর্ঘটনার ৩৫ দিন পর তদন্তে জেলা প্রশাসন টিম

সোহেল সাশ্রু, কিশোরগঞ্জ : কিশোরগঞ্জের ভৈরবে স্মরণকালের ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনার ৩৫ দিন পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসনের তদন্ত দল। আজ মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের তদন্তদল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। চলমান হরতাল-অবরোধের কারণে তদন্তকাজে বিলম্ব হচ্ছে বলে হাবিবুর রহমান জানিয়েছেন।

তদন্ত কমিটির সদস্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মো. নূরে আলম, বাংলাদেশ রেলওয়ের বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. সিরাজ জিন্নাত, ভৈরব উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাদিকুর রহমান সবুজ ও জেলা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আবুজর গিফারী। দুর্ঘটনার পর রেল মন্ত্রণালয়সহ রেল বিভাগের তদন্ত দলও দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গেছে। এর মধ্যে রেল বিভাগের দুটি, রেল মন্ত্রণালয়ের একটি ও জেলা ফায়ার সার্ভিসের একটি দল তদন্ত করে গেছে।

তদন্ত কমিটির আহবায়ক হাবিবুর রহমান জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার কারণ, ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ, হতাহতের সংখ্যাসহ নানা বিষয়ে তদন্ত করা হয়েছে। প্রয়োজনে ঘটনাস্থলে আরও যেতে হতে পারে। এরপর ভবিষ্যত করণীয় সম্পর্কে সুপারিশসহ চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রস্তুত করা হবে।

তদন্ত কমিটির সদস্য ভৈরব উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাদিকুর রহমান সবুজ জানান, গত ২৩ অক্টোবর বিকালের দুর্ঘটনায় প্রথমে ঘটনাস্থল থেকে ১৭টি লাশ উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে আরো ৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। তাদের পরিবারকে সরকারি যা সহযোগিতা করার ছিল, তা করা হয়েছে। সরকারের আরও কিছু সহযোগিতা পাওয়ার কথা রয়েছে, সেগুলোও পাবে। দুর্ঘটানর দিন ঢাকাগামী এগারসিন্দুর ট্রেন ও চট্টগ্রামগামী মালবাহী কন্টেইনার ট্রেনের সংঘর্ষে ২০ জনের প্রাণহানি ঘটেছিল। আহত হয়েছিল শতাধিক। এ ঘটনায় মালবাহী ট্রেনের চালক জাহাঙ্গীর আলম, সহকারী চালক আতিকুর রহমান ও পরিচালক (গার্ড) মো. আলমগীরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

(এসএস/এসপি/নভেম্বর ২৮, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

০৪ মার্চ ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test