E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

সাংবাদিক পলাশ ও দুলাল সাহাকে চাঁদাবাজী মামলা থেকে অব্যাহতি

২০১৪ নভেম্বর ১২ ১১:১৭:১৮
সাংবাদিক পলাশ ও দুলাল সাহাকে চাঁদাবাজী মামলা থেকে অব্যাহতি

 ঝালকাঠি প্রতিনিধি :সমকাল ও চ্যানেল ২৪ এবং যমুনা টেলিভিশন ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে ঠিকাদারের দায়ের করা চাঁদা চাওয়ার বিষয়টির সত্যতা না পাওয়ায় মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়েছে আদালত।

এ দুজন সাংবাদিক হলেন জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা ঝালকাঠি জেলা শাখার সভাপতি জিয়াউল হাসান পলাশ ও মুক্তিযোদ্ধা দুলাল সাহা।

ইতিপূর্বে ঝালকাঠির চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে পুলিশ এই মামলার তদন্ত শেষে চুরান্ত রিপোর্ট দাখিল করে। গতকাল মঙ্গলবার এই মামলার পূর্ব নির্ধারিত তারিখ থাকায় সাংবাদিকদ্বয় আদালতে উপস্থিত হন। আদালতের বিচারক মোহাম্মদ শামিম আজাদ পুলিশের চুড়ান্ত রিপোর্ট ও নথিপত্র পর্যালোচনা করে এই মামলা থেকে সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে অব্যাহতি দেয়ার আদেশ দেন।

ইতিপূর্বে দৈনিক সমকালসহ বিভিন্ন দৈনিক পত্রিকা ও যমুনা টেলিভিশনে ঝালকাঠি এলজিইডির হালকাযান প্রকল্পের ৪ কোটি টাকার কাজে অনিয়মের সংবাদ প্রকাশিত ও প্রচারিত হয়। এরপর এই কাজের কোন ফাইল পাওয়া যায়নি। এতে ঠিকাদার ইসলাম ব্রাদার্সের মনিরুল ইসলাম মনির তালুকদার ও তার ভাই আমিনুল ইসলাম লিটন তালুকদার ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিক দু’জনার বিরুদ্ধে আদালতে দুটি মামলা দায়ের করেন।

একটি ১ কোটি টাকার মানহানী মামলা অন্যটি চাঁদা চাওয়ার মামলা। এতে ঝালকাঠিসহ দেশের সাংবাদিক সমাজ এই মিথ্যা মামলার ঘটনায় প্রতিবাদ মুখর হয়ে ওঠে।

এক পর্যায়ে ঝালকাঠির কৃতি সন্তান শিল্প মন্ত্রী আমির হোসেন আমুর সাথে ঝালকাঠির সাংবাদিকরা দেখা করে বিষয়টি অবগত করেন। এরপর মন্ত্রী এই ঘটনায় সাংবাদিকদের এব্যাপারে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কোন প্রকার হয়রানী করা হবেনা বলে আশ্বাস দেন। তার আশ্বাসের প্রেক্ষিতে সাংবাদিক সমাজ তাদের ঘোষিত সকল কর্মসূচি স্থগিত করে।

এদিকে ঝালকাঠি পুলিশ সুপার মজিদ আলীর নির্দেশে পুলিশ এই ঘটনার সঠিক তদন্ত শুরু করা হয়। তদন্ত শেষে ঝালকাঠি থানার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আবুল বাসার খান গত ২৩ সেপ্টেম্বর আদালতে চুড়ান্ত রিপোর্ট দাখিল করেন।

এই রিপোর্টে তিনি উল্লেখ করেন যে, ’মামলার ঘটনাটি দন্ডবিধি ৩৮৫/৫০৬ ধারা মোতাবেক তথ্যগত ভুল বলিয়া প্রাথমিক ভাবে প্রমানিত হয়। তাছাড়া মামলার আসামি জিয়াউল হাসান পলাশ ও দুলাল সাহার বিরুদ্ধে বাদীর আনিত অভিযোগ প্রমানের স্বপক্ষে কোন সাক্ষ্য প্রমান পাওয়া যায়নি’। তাই অত্র মামলার দ্বায় হতে আসামিদ্বয়কে অব্যাহতি দেয়ার জন্য আদালতে চুড়ান্ত রিপোর্ট দাখিল করেন।

(ওএস/এসসি/ নভেম্বর ১২,২০১৪)

পাঠকের মতামত:

১৩ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test