E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

বাগেরহাটে ‘ইউটিউব’ দেখে সুন্নতে খতনার পর শিশু হত্যা, ঘাতক গ্রেফতার

২০২৪ ফেব্রুয়ারি ২৯ ১৮:০৩:১৭
বাগেরহাটে ‘ইউটিউব’ দেখে সুন্নতে খতনার পর শিশু হত্যা, ঘাতক গ্রেফতার

সরদার শুকুর আহমেদ, বাগেরহাট : বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার পল্লীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ‘ইউটিউব’ দেখে হাত-পা, মুখ বেঁধে সুন্নতে খতনা দেয়ার পর শ্বাসসরোধ করে শিহাব শেখ নামে সাড়ে তিন বছরের এক শিশুকে হত্যা করা হয়েছে। বুধবার রাতে উপজেলার হিজলা গ্রামে হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটে।

বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রাসেলুর রহমানের নের্তৃত্বে রাতেই অভিযান চালিয়ে শিশুটির ঘাতক ইউটিউবার হামীম শেখকে (১৭) গ্রেফতার করা হয়েছে। নিহত শিশু শিহাব শেখ চিতলমারী উপজেলার বারাশিয়া গ্রামের ফরহাদ শেখের একমাত্র সন্তান। একমাত্র সন্তান হারিয়ে বাড়ীতে চলছে শোকের মাতম। নিহত মিশুটির মা সুমি আক্তার বাদী হয়ে বুধবার দিবাগত রাতে ঘাতক ইউটিউবার হামীম শেখকে একমাত্র আসামী করে চিতলমারী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে শিশুটির মরদেহের ময়না তদন্ত বাগেরহাট ২৫০ বেড জেলা হাসপাতালে সম্পন্ন হয়েছে।

চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. একরাম হোসেন এতথ্য নিশ্চিত করে জানান, চিতলমারী উপজেলার বারাশিয়া গ্রামের দরিদ্র ফরহাদ শেখ স্ত্রী ও একমাত্র শিশু সন্তান শিহাব শেখকে নিয়ে একই উপজেলার হিজলা গ্রামে শশুর মো. মনু শিকদারের বাড়ীতে বসবাস করে আসছে। বুধবার সন্ধ্যার দিকে মনু শিকদারের প্রতিবেশী রমজান শেখের ছেলে ইউটিউবার হামীম শেখ সাড়ে তিন বছরের শিশু শিহাব শেখ বাড়ীর উঠানে খেলা করার সময় বিস্কুট খেতে দেয়ার প্রলোভন দিয়ে তাদের পাশের বাড়ীতে নিয়ে আসে।

এরপর হামীম শেখ তার বসতঘরে নিয়ে হাত-পা ও মুখ বেঁধে কাইচি দিয়ে শিশুটির বিশেষ অঙ্গের মাথার চামড়া কেটে সুন্নতে খতনা দেয়। শিশুটির খতনার কাটাস্থান থেকে রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে না পেরে শ্বাসরোধ করে শিশুটিকে হত্যা করে লেপ দিয়ে ঢেকে রাখে হামীম শেখ পারিয়ে যায়। এদিকে শিশুটিকে না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে রাত সাড়ে ৮টার পর হামীম শেখের বসতঘরে বারান্দায় শিশুটির পায়ের স্যান্ডেল পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসি।

পরে শেখের বসতঘরের মধ্য থেকে শিশুটিতে উদ্ধার করে দ্রæত উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসরা জানায় আগেই মৃত্যু হয়েছে। শিশু হত্যার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরির্দশনসহ হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত আলামত উদ্ধার ও মোবাইল ফোন ট্রাকিং করে রাত ১০টার দিকে পার্শ্ববর্তী শিবপুর গ্রাম থেকে ইউটিউবার হামীম শেখকে গ্রেফকার করে। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ‘ইউটিউব’ দেখে কৌতুহলী হয়ে সুন্নতে খতনা দেয়ার জন্য বিশেষ অঙ্গের মাথার চামড়া কাটার পর রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে না পারায় শ^াসরোধ করে শিশুটিকে হত্যা কথা স্বীকার করেছে ইউটিউবার হামীম শেখ। এঘটনায় হত্যাকান্ডের শিকার একমাত্র সন্তানের মা সুমি আক্তার বাদী হয়ে বুধবার দিবাগত রাতে ঘাতক ইউটিউবার হামীম শেখকে একমাত্র আসামী করে চিতলমারী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে শিশুটির মরদেহের ময়না তদন্ত বাগেরহাট ২৫০ বেড জেলা হাসপাতালে সম্পন্ন হয়েছে।

(এসএসএ/এএস/ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২৪ এপ্রিল ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test