E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

পলাশবাড়ীর মেরীরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মেরামত ও সংস্কারের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

২০২৪ মার্চ ০৩ ১৭:০৪:০৯
পলাশবাড়ীর মেরীরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মেরামত ও সংস্কারের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

রবিউল ইসলাম, গাইবান্ধা : গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাইনর মেরামতের কার্য সম্পাদনের জন্য বরাদ্দকৃত টাকা নিয়ে নয় ছয় করার অভিযোগ উঠেছে মেরীরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেজাউল করিমের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, পিইডি ৪ এর আওতায় ২০২৩-২৪ অর্থ বছরে ভোট কেন্দ্র হিসেবে নির্বাচিত উপজেলার ২৩টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মাইনর মেরামতের জন্য টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়।

পরিপত্রে বলা হয় কাজ শুরুর পূর্বে উপজেলা প্রকৌশলী কর্তৃক মেরামত প্রাক্কলন প্রস্তুত করে উপজেলা শিক্ষা কমিটির অনুমোদন নিয়ে কাজ সম্পন্ন করতে হবে, উপজেলা শিক্ষা কমিটির অনুমোদন ব্যতিত অর্থ ব্যয় করা যাবে না। উক্ত বরাদ্দের টাকা ৩০ ডিসেম্বর এর মধ্যে খরচ করার কথাও বলা হয়।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, ৩০ ডিসেম্বর এর মধ্যে মেরীরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তেমন কোন কাজ হয়নি উল্টো ভুয়া বিল ভাউচার দেখিয়ে বিল উত্তোলণ করে নেওয়া হয়েছে। ম্যানেজিং কমিটির মাধ্যমে কাজ সম্পন্ন হওয়ার কথা থাকলেও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটিও জানেন না এসব বরাদ্দের কথা। উপজেলা শিক্ষা কমিটির অনুমোদনের কথা বলা থাকলেও উপজেলা শিক্ষা কমিটিও জানেন না এসব বরাদ্দের কথা।

অনুসন্ধান বলছে, মেরীরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বরাদ্দ দেওয়া হয় ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা। সরেজমিনে গেলে দেখা যায় তিনটি দরজা পরিবর্তনসহ বিদ্যুৎ মেরামতের কিছু কাজ করা হয়েছে যাতে ৩০ হাজারের মত টাকা খরচ করা হয়েছে।বাকী টাকা কি করা হবে জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক রেজাউল করিম কোন সদুত্তর দিতে পারেননি।

অভিযোগ রয়েছে গত কয়েক বছরে এই বিদ্যালয়ে যত বরাদ্দ হয়েছে কোনটারই কাজ ঠিকমত করেননি প্রধান শিক্ষক রেজাউল করিম।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ওই ক্লাসারের দায়িত্বে থাকা সহকারি শিক্ষা অফিসার ফিরোজ কবির উত্তরাধিকার ৭১ নিউজকে জানান, কাজ না হলে আপনি লিখতে পারেন, কেন কাজ হলো না প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে চাইবো।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বেল্লাল হোসেন উত্তরাধিকার ৭১ নিউজকে জানান, আমি সে সময় নতুন এসেছি, খোঁজ খবর নিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

(আরআই/এসপি/মার্চ ০৩, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২৪ এপ্রিল ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test