E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

উপজেলা নির্বাচন

বেলকুচিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন এমপির কোম্পানির কর্মকর্তা, প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ

২০২৪ এপ্রিল ২০ ১৬:৫১:৩৯
বেলকুচিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন এমপির কোম্পানির কর্মকর্তা, প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ

সাজিরুল ইসলাম সঞ্চয়, সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন সিরাজগঞ্জ-৫ (বেলকুচি-চৌহালী) আসনের সংসদ সদস্য ও বেলকুচি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মমিন মন্ডলের ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ইন্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম। অভিযোগ উঠেছে সংসদ সদস্যের মালিকানাধিন শিল্পগ্রুপ মন্ডল গ্রুপের গার্মেন্টস সেক্টরের জিএম (অপারেশন) পদে কর্মরত ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম নিজেকে সংসদ সদস্যের সমর্থিত প্রার্থী ঘোষণা দিয়ে নির্বাচনী মাঠে প্রভাব বিস্তার করছেন। এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের প্রধান ও কেন্দ্রীয় কমিটি বরাবর মৌখিক অভিযোগ জানানোর পর লিখিত অভিযোগ প্রেরণের প্রস্তুতি নিচ্ছে উপজেলা আওয়ামী লীগের একাংশ। 

উপজেলা আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা যায়, আসন্ন উপজেলা পরিষদের প্রথম দফায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া বেলকুচি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন বেলকুচি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও আওয়ামীলীগের মনোনয়নে দ্বিতীয় দফায় জিতে আসা আব্দুল মমিন মন্ডলের ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত ইন্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম।

ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম সংসদ সদস্যের মালিকানাধীন মন্ডল গ্রুপের অংগ প্রতিষ্ঠান কটন ক্লাব বিডি, কটন ক্লথ ও কটন বিডি’র মহাব্যাবস্থাপক অপারেশন হিসেবে কর্মরত। ছাত্রজীবনে বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদের ভিপি নির্বাচিত হওয়া ইঞ্জিনিয়ার আমিনুল ইসলাম কর্মজীবনের শুরু থেকেই মন্ডল গ্রুপে কর্মরত রয়েছেন। আলহাজ্ব আব্দুল মমিন মন্ডল সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই বেলকুচির রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়া আমিনুল ইসলাম সংসদ সদস্যের ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত ও তার রাজনৈতিক কর্মকান্ড পরিচালনা করে থাকেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের বিগত কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করা আমিনুলকে এবারের কমিটিতে যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক করার গুন্জন রয়েছে।

সর্বশেষ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দ্বিতীয় দফায় আব্দুল মমিন মন্ডল সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই উপজেলা চেয়ারম্যান হতে মাঠে নামেন আমিনুল ইসলাম। নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় ইতিমধ্যে তার মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষনা করা হয়েছে। নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনায় নিজেকে আব্দুল মমিন মন্ডল এমপির মনোনীত প্রার্থী ঘোষনা করে প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীকে কোনঠাসা করতে প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ উঠেছে আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের একটি সূত্র জানায়, আব্দুল মমিন মন্ডল এমপি নিজের পক্ষের নেতা-কর্মিদের ইতিমধ্যেই আমিনুল ইসলামের পক্ষে নামতে নির্দেশনা দিয়েছেন। সে মোতাবেক এমপি’র ব্যাক্তিগত সহকারিসহ সমর্থিত নেতা-কর্মিরা আমিনুল ইসলামের পক্ষে কাজ শুরু করেছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আশানুর বিশ্বাস জানান, প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা, সাধারন সম্পাদক, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরসহ কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশ উপজেলা নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করতে পারবে না এমপিরা। তাদের ঘনিষ্ঠজন ও আত্বীয়দের নির্বাচনী মাঠ থেকে সরে দাড়াতে হবে। এই নির্দেশনার সম্পুর্ন বিপরীতে চলছে বেলকুচি। এমপি ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কারো সাথে পরামর্শ না করে নিজের কোম্পানির একজন চাকুরি জীবিকে প্রার্থী করেছেন, তার পক্ষে কাজ করতে নেতা-কর্মিদের চাপ প্রয়োগ করছেন।

তিনি আরও বলেন, বেলকুচির কোন আওয়ামীলীগ নেতা বা কর্মির উপর ভরসা নেই মমিন মন্ডলের, যার প্রমান আওয়ামীলীগের শত শত নেতা থাকতে তাদের পরিবর্তে নিজের বেতনভুক্ত ব্যাক্তিকে উপজেলা চেয়ারম্যান করার অপচেষ্টা। তিনি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার তোয়াক্কা করছে না। মৌখিকভাবে বিষয়টি আওয়ামীলীগের উদ্ধর্তন নেতাদের জানানো হয়েছে, লিখিত অভিযোগও দেয়া হবে।
এ বিষয়ে জানতে ইন্জিনিয়ার আমিনুল ইসলামের (০১৯৭৬-৪৭৩৬০০) নাম্বারে ফোন করলেও তিনি রিসিভ করেননি।

সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ তালুকদার বলেন, কোম্পানির কর্মকর্তা ঘনিষ্ঠজন কিন্তু আত্বীয় নয়। আত্বীয় হলে আমরা নির্বাচনে নিরুৎসাহিত করতাম।

উল্লেখ্য, ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম দফায় ৮ই মে অনুষ্ঠিত হবে বেলকুচিসহ সিরাজগঞ্জের তিন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহন। তফসিল অনুযায়ি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের সময় শেষ হবে ২২ এপ্রিল।

(এসআইএস/এসপি/এপ্রিল ২০, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২৯ মে ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test