E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

সোনারগাঁয়ে ঝগড়ার জেরে ৭ বছরের শিশুকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে ভাড়াটিয়া

২০২৪ এপ্রিল ২১ ১৮:৫৫:৪৯
সোনারগাঁয়ে ঝগড়ার জেরে ৭ বছরের শিশুকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে ভাড়াটিয়া

শেখ এনামূল হক বিদ্যুৎ, সোনারগাঁ : নারায়াণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে বাড়িওয়ালার সঙ্গে ঝগড়ার জেরে তার ৭ বছরের কন্যা শিশুকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে ভাড়াটিয়া। এ ঘটনায় রবিবার (২১ এপ্রিল) শিশুটির বাবা বাদী হয়ে ২ জনকে আসামি করে সোনারগাঁ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ থেকে জানা গেছে, উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বাড়িচিনিশ এলাকার সুমন প্রধানের ৭ বছরের কন্যা শিশু দোয়াকে আগুন লাগিয়ে হত্যা করার চেষ্টা করেন তারই ভাড়াটিয়া সঞ্জয় কুমার পাল ও মনিশংকর পাল।

গত দুই বছর ধরে যশোহর জেলার মনিরামপুর থানার ঢাকুরিয়া এলাকার সঞ্জয় কুমার তার স্ত্রী-পরিবার নিয়ে সুমন প্রধানের পঞ্চমতলা ভবনের ৪র্থ তলায় ভাড়া থাকেন। কিন্তু গত ছয় মাস ধরে ভাড়া না দিয়ে তারা তালবাহানা করে আসছে। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এর সূত্র ধরে গত ১২ মার্চ সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বিবাদীরা সুমনের ৭ বছরের শিশুকন্যা দোয়াকে ডেকে নিয়ে দরজা লাগিয়ে মারধর করে শরীরে নিলাফুলা জখম করে ম্যাচের কাঠি দিয়ে তার জামায় আগুন লাগিয়ে দেয়। মেয়ের ডাক চিৎকারে বাড়ির মালিক আশপাশের লোকজনের সহায়তায় ভারাটিয়ার দরজা খুলে গুরতর আহত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে যায়,পরে সেখান থেকে জরুরি ভিত্তিতে ঢাকা পাঠালে দোয়াকে শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিট ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টটিউট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে গত দেড় মাস ধরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কাতরাচ্ছে শিশুটি।

ভুক্তভোগীর পরিবার ও এলাকাবাসীর দাবী পাষণ্ড সঞ্জয় কুমার পাল ও মনিশংকর পালের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হোক।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার ওসি বলেন, অভিযোগ পেয়েছি,তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(এসবি/এসপি/এপ্রিল ২১, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২৬ মে ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test