E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

রাজপথে বিএনপি উধাও

সিলেটে তারেক রহমানের নির্দেশ মানছে না কেউ 

২০২৪ মে ১৮ ১৮:৩৯:১৭
সিলেটে তারেক রহমানের নির্দেশ মানছে না কেউ 

লতিফ নুতন, সিলেট : সিলেটের বিএনপি লন্ডনে পালাতক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ নানা ইস্যূ নিয়ে রাজপথে উধাও তারেকের নির্দেশ কেউ মানছে না। বর্তমানে সিলেট বিএনপি বহু ভাগে বিভক্ত। অস্থিত্ব সংকটে বিচ্ছিন্ন বিএনপি নেতারা বহু ধারায় বিভক্ত। নেতারা কেউ কারো মুখ দেখছেন না। বিভিন্ন গ্রুপ-উপ গ্রুপে নেতাদের অবস্থান রয়েছে। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের চেষ্টা করার কেউ নেই। 

৯১ সাল থেকে ৯৬ সাল বিএনপি ক্ষমতাসীন থাকা দলীয় কোন্দল, দলীয় হানাহানিতে খুন, রাহাজানী, বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতা কর্মীদের উপর হামলা, কলেজ ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সাংগঠনিক কার্যক্রম করতে বাধা, সন্ত্রাসের রাজত্ত্ব কায়েম। মাহবুব হত্যাকাণ্ডের পর ছাত্রদলের সন্ত্রাসের নৈরাজ্য, সন্ত্রাস আবার ২০০১ বিএনপি-জামাতের নেতৃত্বে ৪ দলীয় সরকারের নির্যাতন শান্ত সিলেটকে অশান্ত করে তুলে একের পর এক হত্যাকাণ্ড, সন্ত্রাস, নির্যাতন বর্তমান সময়ে এক সময়ের হাই পাওয়ার নেতা-কর্মীরা হিরু থেকে এখন জিরু। তৎকালীন সময়ের বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদলের সন্ত্রাসীরা মাঠে ছেড়েছে। আবার অনেকে প্রবাসে পাড়ি দিয়েছে। অনেকে লন্ডনে বসে বিএনপির পালাতক, দণ্ডপ্রাপ্ত ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তারেক রহমানের সাথে ঘূর ঘুর করছে। বর্তমান সময়ে শান্ত সিলেটকে তারেক রহমানের নির্দেশে অশান্ত করতে চাইলেও কেউ উদ্যোগ নিচ্ছে না।

সিলেট বিএনপিকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিএনপির সাবেক স্থায়ী কমিটির সদসস্য,সাবেক অর্থমন্ত্রী মরহুম এম সাইফুর রহমানের অনুসারীরা। সাবেক সংসদ সদস্য, জেলা বিএনপির সভাপতি ইলিয়াস আলীর অনুসারীরা লাপাত্তা। বর্তমানে বিএনপির সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক টিমের প্রধান ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন মনিটরিং করা ছাড়াও ঘনঘন সিলেট সফর করছেন। তার উপস্থিতির কারণে দলের নেতাকর্মীরা আস্থা ফিরে পাচ্ছেনা। তবে জেলা বিএনপি’র জনৈক নেতা নাম প্রকাশ সর্তে বলেন আমরা উচ্ছৃঙ্খলতা চাই না। জনদাবি আদায়ের নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন করবো। এ কারণে কয়েকদিন আগে অঙ্গসংগঠনের সিনিয়র নেতাদের নিয়ে বৈঠক করা হয়েছে।

সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফূর রহমানের এপিএস, যুবদলের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরীকে সভাপতি এবং জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপহিত অ্যাডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরীকে সাধারণ সম্পাদক করে সিলেট জেলা বিএনপির ১৫১ সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ কমিটিতে রাখা হয় নিখোঁজ বিএনপি নেতা সাবেক সংসদ-সদস্য এম ইলিয়াস আলীকেও। তার স্ত্রী তাহসিনা রুশদী লুনা ও ছেলে আবরার ইলিয়াসকে কমিটিতে রাখা হয়। ২০২২ সালের ২৯ মার্চ সিলেট জেলা বিএনপির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে তিনজন কাউন্সিলরদের ভোটে নির্বাচিত হন। আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী সভাপতি, এমরান আহমদ চৌধুরী সাধারণ সম্পাদক ও মো. শামীম আহমদ সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০২৩ সালের ২১ মার্চ পুনাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

২০২৩ সালের ১০ই মার্চ সরাসরি ভোটের মাধ্যমে নগর বিএনপি’র তিন পদে নেতা নির্বাচিত করা হয়। সভাপতি নির্বাচিত হন সিলেট মহানগর বিএনপি’র সাবেক সভাপতি নাসিম হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক হন সাবেক ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ইমদাদ হোসেন চৌধুরী ও সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন সৈয়দ সাফেক মাহবুব। জেলা ও মহানগর বিএনপির সংগঠনের বিষয় কথা বলতে নারাজ। দলের শীর্ষ স্থানীয় কথা বলতে চাননি।

(এলএন/এসপি/মে ১৮, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

১৪ জুন ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test