Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

ভান্ডারিয়া পরীক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষক লাঞ্ছনার প্রতিবাদে শিক্ষক সমাবেশ

২০১৫ এপ্রিল ২১ ১৮:২৩:২২
ভান্ডারিয়া পরীক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষক লাঞ্ছনার প্রতিবাদে শিক্ষক সমাবেশ

পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া সরকারি কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা চলাকালীন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট কর্তৃক শিক্ষক লাঞ্ছনার প্রতিবাদে মানবন্ধন করেছে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার পরীক্ষা শেষে দুপুর একটায় ভান্ডারিয়া সরকারী কলেজ শিক্ষক মিলানয়তনে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এ সমাবেশে বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি প্রফেসর নাসরিন বেগম, মহাসচিব আইকে সলিম উল্লাহ খন্দকার, বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মু. জিয়াউল হক, বি.এম. কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল হক, উপজেলা চেয়ারম্যান আতিকুল ইসলাম উজ্জল তালুকদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফাইজুর রশিদ প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে সরকারি কলেজ সম্মুখে মানববন্ধনে ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের সরকারী কলেজের শিক্ষক নেতৃবৃন্দসহ, স্থানীয় শিক্ষক, সাধারণ শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন রাজনৈতিক ছাত্র সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেয়। বক্তারা বক্তব্য আগামী ২৩ এপ্রিলের মধ্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও কলেজ অধ্যক্ষকে প্রত্যাহারসহ বিভাগী শাস্তিমূলক ব্যবস্থার দাবী জানান। আগামী ২৬ এপ্রিল পূর্ন দিবস কর্মবিরতী পালনসহ বিভিন্ন কর্মসূচী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান।

উল্লেখ্য, ভান্ডারিয়া সরকারী কলেজ এইচ.এস.সি পরীক্ষা কেন্দ্রে গত ৯ এপ্রিল কক্ষ পরিদর্শনকালে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার ভূমি মো. আশ্রাফুল ইসলাম পরিদর্শনে যান। দুপুর ১২ টার দিকে তিনি কেন্দ্রের দুই নম্বর কক্ষে দুই পরীক্ষার্থীকে পাশাপাশি বসে দেখা দেখে করে উত্তর লিখতে দেখেন। ম্যাজিষ্ট্রেট ওই দুই শিক্ষার্থীদেরকে দূরত্ব বজায় রেখে বসানোর জন্য পরীক্ষা কক্ষে দায়িত্বরত সহকারী অধ্যাপক মোঃ মোনতাজ উদ্দিনকে বলেন। এ নিয়ে দুই জনের মধ্যে বাক বিতন্ডা হয়। পরে ম্যাজিষ্ট্রেট কলেজ অধ্যক্ষের কক্ষে গিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা চেয়ারম্যানকে বিষয়টি তৎক্ষণিক অবহিত করেন। এরপর ইউএনও ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরীক্ষা অধ্যাদেশে ওই শিক্ষককে পরীক্ষা কেন্দ্র হতে বহিস্কার করেন ও মো. আশ্রাফুল ইসলামের পা ধরে মাফ চাইতে বাধ্য করেন এবং বিভিন্ন ভাবে লাঞ্চিত করে। এ ঘটনায় পর শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা ফুসে উঠেন।

(এসএ/এএস/এপ্রিল ২১, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

২৬ আগস্ট ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test