E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

নরসিংদীতে লোকমান হত্যা মামলার আসামী ফের গ্রেফতার

২০১৪ মে ১৬ ০৮:১৭:৪৯
নরসিংদীতে লোকমান হত্যা মামলার আসামী ফের গ্রেফতার

নরসিংদী প্রতিনিধি : নরসিংদীর পৌর মেয়র লোকমান হত্যার প্রধান আসামী নাজমুল হাসান শরীফ ওরফে কিলার শরীফকে জামিনে মুক্তির পর ফের গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে নরসিংদী জেলা কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পান তিনি। পরে কারাগারের অদূরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভেলানগর থেকে তাকে গ্রেফতার করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

পুলিশের সূত্র জানিয়েছে, কারাগারে থাকা অবস্থায় কিলার শরীফ মেয়র লোকমানের পর এবার তাঁর ছোট ভাই বর্তমান পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুলকে হত্যা পরিকল্পনা করেছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে আইন শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে শরীফকে পুনরায়গ্রেফতার করা হয়। তবে মাদক দ্রব্য বহনের অপরাধে তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে বলে জানিয়েছে সূত্রটি।

এইদিকে কিলার শরীফ জামিনে মুক্তি পাওয়ার মাধ্যমে মেয়র লোকমান হত্যা মামলার সকল আসামী জামিনে মুক্তি পেল। চাঞ্চল্যকর এই মামলার সকল আসামী জামিন ছাড়া পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে মামলার বাদী ও নিহত মেয়র লোকমানের ছোট ভাই নরসিংদী পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুল ।

পুলিশ জানায়, ২০১১ সালে নরসিংদীর পৌর মেয়র লোকমান হোসেনকে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় নিহতের ভাই বর্তমান পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুল বাদী হয়ে ১৪ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে কিলার শরীফকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

কিলার শরীফ হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারা স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দেয়। দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১২ সানের ২৪ জুন নরসিংদী পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মতিন সরকার ও নাজমুল হাসান শরীফ ওরফে কিলার শরীফ সহ ১২ জনকে অভিযুক্ত করে লোকমান হত্যা মামলার অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করা হয়।

আদালত সূত্রে জানা যায়, কিলার শরীফের বিরুদ্ধে মেয়র লোকমান হোসেন হত্যাসহ ৪টি হত্যা ও ১টি অস্ত্র আইনে মামলা রয়েছে। লোকমান হত্যা মামলা ব্যতীত অন্য মামলাগুলোতে পূর্বেই শরীফ জামিন পায়। সর্বশেষ গত সপ্তাহে মেয়র লোকমান হোসেন হত্যা মামলায় কিলার শরীফের আইনজীবি উচ্চ আদালতের বিচারপতি নাঈমা হায়দারের আদালতে জামিন আবেদন করেন। শুনানী শেষে আদালতের বিচারক জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নরসিংদী জেলা ও দায়রা জজ আদালতের মাধ্যমে জামিন মঞ্জুরের আদেশ কারাগারে পৌছায়। সকল মামলায় জামিন মঞ্জুর হওয়ায় সন্ধ্যা ৭টার দিকে জেলা কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) শাহ নেওয়াজ বলেন, শরীফ দুধর্ষ সন্ত্রাসী। তাঁর মুক্তিতে শহরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হওয়ার আশংকা রয়েছে। তাই সে কারাগার থেকে বের হওয়ার পরই পুলিশ তাকে অনুসরণ করে। পুলিশ আটক করার সময় তাঁর সঙ্গে মাদক পেয়েছে। এই ব্যাপারে থানায় মামলা দায়ের করা হচ্ছে।

এইদিকে উচ্চ আদালতে মেয়র লোকমান হত্যা মামলায় পুলিশের দেয়া অভিযোগপত্র বাতিল করে সিআইডির মাধ্যমে পুনরায় তদন্তের দাবি জানিয়েছে নিহতের ভাই কামরুজ্জামান কামরুল। এরই প্রেক্ষিতে উচ্চ আদালত পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত নিম্ন আদালতে বিচার কাজ স্থগিত করেছে। এদিদেকে মামলার তদন্ত ও বিচার নিয়ে সৃষ্ট জটিলতার সুযোগে একে একে সব আসামীরা জামিনে বেরিয়ে পড়েছে। চাঞ্চল্যকর এই মামলার সকল আসামী জামিন ছাড়া পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেনিহত মেয়র লোকমানের ছোট ভাই নরসিংদী পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুল ।

মেয়র কামরুল বলেন, আইনের দূর্বলতাই হচ্ছে অপরাধীদের বড় শক্তি। নয়তো মেয়র লোকমান হত্যার মতো চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলা থেকে কি ভাবে তাঁরা জামিন পায়। একে একে সকল আসামী কারগার থেকে বেরিয়ে যাওয়ায় পরিবারের নিরাপত্তা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেছেন তিনি।

(এমডি/জেএ/মে ১৬, ২০১৪)

পাঠকের মতামত:

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test