E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

পঞ্চগড়ের ছিটমহলগুলোতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন

২০১৫ জুন ০৭ ১৪:৪১:০৪
পঞ্চগড়ের ছিটমহলগুলোতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন

পঞ্চগড় প্রতিনিধি : বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সফররত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শীর্ষ বৈঠকে স্থল সীমান্ত চুক্তি বিলের প্রটোকল স্বাক্ষর ও উভয় দেশের মধ্যে সম্মতিপত্র বিনিময় হওয়ার খবরে পঞ্চগড়ের ছিটমহলগুলোতে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। সেই সাথে তারা তাৎক্ষণিক আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছে। শনিবার বিকেলে দেশের সকল গণমাধ্যমে খবরটি প্রকাশের পরই আনন্দে ফেটে পড়ে ছিটবাসীরা। সাথে সাথে তারা আনন্দ মিছিল বের করে।

জেলা সদরের গারাতি ছিটমহলের ফোরকানিয়া মাদ্রাসা মাঠে জড়ো হয় ওই ছিটমহলের নাগরিকরা। পরে সেখানে হাজির হন বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির বাংলাদেশ শাখার সহ সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত সম্রাট। সেখানেই আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সেখান থেকে একটি আনন্দ র‌্যালি বের হয়ে ছিটমহলের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে। মিছিল শেষে একে অপরকে মিষ্টি খাইয়ে আনন্দ ভাগাভাগি করে নেয় ছিটবাসীরা। পরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
এতে উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত সম্রাট বলেন, ছিটমহল সমস্যার সমাধান শেখ হাসিনা সরকারের কুটনৈতিক সাফল্য। বিনিময় প্রক্রিয়া বাস্তবায়ন এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। এরপর ছিটমহলবাসীদের সকল নাগরিক সেবা দিতে প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেয়া হবে। উপজেলা পরিষদ থেকে যথাসাধ্য বরাদ্দ দিয়ে ছিটমহলের রাস্তাঘাট উন্নয়ন, স্যানিটেশনসহ উন্নয়নমূলক ব্যাপক কর্মকান্ড গ্রহণ করা হবে।
এসময় বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির পঞ্চগড় ও নীলফামারী জেলার সভাপতি ও গারাতি ছিটমহলের চেয়ারম্যান মফিজার রহমান উভয় দেশের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আমরা ছিটবাসীরা আজ যে কি আনন্দ পেয়েছি তা ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না। তিনি বলেন, আজকের দিনটি ছিটবাসীদের জন্য ইতিহাস হয়ে থাকবে।
(এসএবি/পিবি/জুন ০৭,২০১৫)

পাঠকের মতামত:

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test