E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

১৬২ ছিটমহলে সমীক্ষা শুরু

২০১৫ জুলাই ০৬ ১৩:৪১:৪১
১৬২ ছিটমহলে সমীক্ষা শুরু

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : সর্বশেষ ২০১১ সালের জনগণনা অনুযায়ী ভারত-বাংলাদেশ উভয় দেশের ১৬২ ছিটমহলের চূড়ান্ত সমীক্ষা শুরু হয়েছে।

সোমবার সকাল ৯টা থেকে শুরু হওয়া যৌথ জরিপ কাজ উভয় দেশে একই সঙ্গে চলবে ১৬ জুলাই পর্যন্ত।

বাংলাদেশের ১১১টি ছিটমহলের জরিপ কাজে অংশ নিতে ভারতীয় ৬৮ সদস্যের একটি দল বাংলাদেশে পৌঁছেছে।

অপরদিকে ভারতের ৫১টি ছিটমহলের জনগণনা কাজে অংশ নিতে বাংলাদেশের ৩৪ সদস্যের একটি দল ভারতে গেছে।

প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত জনগণনাকারীরা সকাল ৯টার আগেই নিজ নিজ জরিপ এলাকায় পৌঁছে গেছেন।

লালমনিরহাটের ছিটমহল জনগণনাকারী রোকোনুজ্জামান সোহেল জানান, জনসংখ্যা ও আয়তনের দিক থেকে অপেক্ষাকৃত ছোট ছিটমহলগুলোর প্রতিটির জন্য একজন ভারতীয় ও একজন বাংলাদেশি জরিপকারী কাজ করছেন। তাদের সহায়তায় আছেন একজন তত্ত্বাবধায়ক (সুপারভাইজার)। আর বড় ছিটমহলগুলোতে এর দ্বিগুণ জরিপকারী কাজ করবেন। প্রতিটি ছিটমহলের একটি করে ক্যাম্প থাকছে।

জনগণনার সময় ছিটমহলের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ ও স্থানীয় বডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরাও রয়েছেন।

সর্বশেষ ২০১১ সালে যৌথ জনগণনার তথ্যের ওপর ভিত্তি করেই এবারের জরিপ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ওই জনগণনার পর ছিটমহলে কারো বিয়ে হয়েছে কি না, কেউ মারা গেছেন কি না, কোনো শিশুর জন্ম হয়েছে কি না এসব তথ্য সংগ্রহ করা হবে এ সমীক্ষায়। এছাড়া বাংলাদেশের অভ্যন্তরে থাকা এসব ছিটমহলের বাসিন্দারা কোন দেশের নাগরিকত্ব পেতে ইচ্ছুক সেই তথ্যও সংগ্রহ করবেন জরিপকারীরা। নাগরিকত্ব নিয়ে কেউ ভারতে যেতে চাইলে জরিপকারীরা তার ছবিও তুলে রাখবেন। প্রতিটি ছিটমহলের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এসব তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

বাংলাদেশের অভ্যন্তরে থাকা লালমনিরহাটের ৫৯ ছিটমহলের মধ্যে লালমনিরহাট সদর উপজেলায় দু’টি, হাতীবান্ধায় দু’টি ও পাটগ্রাম উপজেলায় ৫৫টি ছিটমহল রয়েছে।

এগুলোর মধ্যে পাটগ্রাম উপজেলার বাঁশকাটা, ভোটবাড়ি, উপনচকি, লথামারী ও হাতীবান্ধা উপজেলার উত্তর গোতামারীর দু’টি ছিটমহল জনসংখ্যার দিক থেকে সব থেকে বড়। তবে পাটগ্রাম উপজেলায় বেশ কিছু ছিটমহল রয়েছে যেখানে জনবসতি শূন্য, শুধুই আবাদি জমি।

ছিটমহলের একটি সূত্র বাংলানিউজকে জানায়, ২০১১ সালের জনগণনায় বাদ পড়া লোকজনও নিজেদের ছিটমহলের বাসিন্দা দাবি করে এ সমীক্ষায় নাম অন্তর্ভূক্তির চাপ দিতে পারে সমীক্ষার ক্যাম্পে। তবে যারা ২০১১ সালের জনগণনায় বাদ পড়েছেন তাদের অন্তর্ভূক্ত করার কোনো সুযোগ নেই বলে সমীক্ষা ফরমে সুনির্দিষ্টভাবে বলা হয়েছে।

লালমনিরহাটের জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান বলেন, সমীক্ষার ক্যাম্পের নিরাপত্তা ও ছিটমহলের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশের পাশাপাশি বিজিবিও রয়েছে। জেলা প্রশাসনের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রশাসনও জরিপ ক্যাম্পের সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর নিচ্ছে।

(ওএস/এএস/জুলাই ০৬, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

১৫ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test