E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

সুন্দরবন লঞ্চের কেবিনে কিশোরীর ধর্ষক গ্রেপ্তার হয়নি

২০১৫ সেপ্টেম্বর ১২ ১২:০৫:৪০
সুন্দরবন লঞ্চের কেবিনে কিশোরীর ধর্ষক গ্রেপ্তার হয়নি

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: তিন দিন পার হলেও ঝালকাঠিতে সুন্দরবন-২ লঞ্চের কেবিনে কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামী আরিফ খলিফাকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

শুক্রবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই তাহাজ্জুদ হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লঞ্চের স্টাফদের জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন। এর পূর্বে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে নির্যাতিত কিশোরীর মেডিকেল পরীক্ষা করায় পুলিশ। মেডিকেল পরীক্ষার পর ঝালকাঠি থানায় কিশোরীর প্রেমিক দাবিদার হাসিবুল হাসান শান্ত বাদী হয়ে দুই বখাটের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। ঝালকাঠি থানায় মামলা রেকর্ড হওয়ার পর মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় ডিবি পুলিশকে। মামলায় প্রধান আসমী করা হয় ঝালকাঠি শহর যুবলীগ সভাপতি আব্দুল হক খলিফার বড় ছেলে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের রাজস্ব শাখার এমএলএস মো. আরিফ খলিফাকে। এছাড়াও অজ্ঞাত এক বখাটেকে আসামী করা হয়। মামলা দায়েরর পর নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২২ ধারা অনুযায়ী কিশোরীর জবানবন্দী রেকর্ড করেন ঝারকাঠির সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাহেদ আহম্মেদ। জবানবন্দী গ্রহনের পর কিশোরীকে বরিশাল সেইভহোমে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়।

ঝালকাঠি ডিবি পুলিশের পরিদর্শক নজরুল ইসলাম জানান মঙ্গলবার বিকালে ঝালকাঠি সদর উপজেলার আলোকদিয়া গ্রামের বাসিন্দা বর্তমানে ঢাকার মীর হগাজারিবাগের বসবাসরত আব্দুর রবের ছেলে হাসিবুল হাসান শান্তর (১৮) সাথে ঢাকার একই এলাকার ১৪ বছর বয়সী সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী এক কিশোরী ঢাকা থেকে ঝালকাঠিতে পালিয়ে আসে। বুধবার বিকালে তারা পুনরায় ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশ্যে ঝালকাঠি লঞ্চঘাটে আসে। লঞ্চেরে কেবিন বয় মহসিন তার নিজের কেবিনটি তাদের কাছে সাতশ টাকায় ভাড়া দেয়। স্থানীয় বখাটেরা প্রেমিক যুগলের পালিয়ে আসার বিষয়টি আচঁ করতে পেরে প্রেমিকজুটিকে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখায়। এক পর্যায় আরিফসহ কিছু বখাটে প্রেমিক শান্তকে মারধর করে কেবিন থেকে বের করে দেয়। পরে তারা ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে। বখাটেরা প্রেমিক জুটির সাথে থাকা দুইটি মোবাইল সেট ও নগদ ২১০০ টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনা কাউকে জানালে কিশোরীকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেয় বখাটেরা। কিশোরী বলে আমাকে হত্যার হুমকি দিয়ে বখাটে দুই যুবক ধর্ষণ করে। তাদের একজনের নাম আরিফ । সুন্দরবন ২ লঞ্চের কেবিনবয় মহসিন বলেন আমি সাতশ টাকায় ওই ছেলে মেয়েদের কাছে কেবিন ভাড়া দিয়ে তিনশ টাকা অগ্রীম নিয়ে আমি ডিউটিতে যাই। এর পরে কি হয়েছে আমি কিছু জানিনা।

লঞ্চের সুপারভাইজার অরবিন্দু বাবু বলেন, লঞ্চ ঘাট থেকে ছাড়ার পর যাত্রীদের নিরাপত্তার দায়িত্ব আমাদের। লঞ্চ ছাড়ার পূর্বে যাত্রীদের নিরাপত্তার দায়িত্ব আমাদের নয়।

অভিযুক্তের বাবা ঝালকাঠি পৌর যুবলীগ সভাপতি আব্দুল হক খলিফা বলেন, ধর্ষণের সাথে তার ছেলে জড়িত নয়। তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতি করনে এবং আগামী পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করবেন। এ কারণে তার প্রতিপক্ষরা ছেলেকে ধর্ষণ মামলায় আসামী করে তাকে হয়রানী করছে।

(এএম/এলপিবি/সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৫)

পাঠকের মতামত:

১২ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test