E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

গাংনীতে আওয়ামীলীগ বনাম আওয়ামীলীগ

২০১৫ ডিসেম্বর ২৭ ১১:৪৪:৩৭
গাংনীতে আওয়ামীলীগ বনাম আওয়ামীলীগ

মেহেরপুর প্রতিনিধি:নিবার্চনী প্রচার সময় যত ফুঁড়িয়ে আসছে তত মাঠজুড়ে আওয়ামীলীগ, বিএনপি, জাপা, ইসলামী আন্দোলন সহ বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থীরা দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন।

শহরের ব্যস্ততম পয়েন্ট এবং পাড়া-মহল্লায় তাদের ছবি সংবলিত ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টারে ছেয়ে গেছে। তারা ভোটারদের মন জয় করার জন্য বাড়ি বাড়ি গিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময়ের পাশাপাশি সার্বিক বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছেন। নানা স্লোগানের পাশাপাশি কাকডাকা ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত চলছে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে গাংনী পৌরসভা নির্বাচনের প্রার্থীদের প্রচারণা। ২০০১ সালে গঠিত গাংনী পৌরসভার নির্বাচন হচ্ছে। নানা সুযোগ-সুবিধা দেয়ার আশ্বাস দিয়ে ভোটে জয়যুক্ত হতে এ পৌরসভার মেয়র পদে প্রার্থী হন আওয়ামী লীগ মনোনীত এক, বিদ্রোহী দুই, বিএনপি মনোনীত এক, বিদ্রোহী এক, জাতীয় পার্টির এক ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের একজন। পরে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী এক ও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন।

মেয়র পদে বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগের প্রার্থী আহম্মেদ আলী (নৌকা), বিএনপির প্রার্থী ইনসারুল হক ইন্সু (ধানের শীষ), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী (স্বতন্ত্র) আশরাফুল ইসলাম ভেন্ডার (জগ), জাতীয় পার্টি (এরশাদ) প্রার্থী এস এম মুর্তজা আলম (লাঙ্গল) ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী হুজ্জাতুল ইসলাম ফয়সাল (হাতপাখা) নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। সব প্রার্থীই মাদক ও বাল্যবিয়েমুক্ত ডিজিটাল পৌরসভা গড়ার অঙ্গীকার করে ভোটারদের মনোযোগ আকর্ষণ করছেন। তবে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী আশরাফুল ইসলাম ভেন্ডার সব ধরনের উন্নয়নের আশ্বাসের পাশাপাশি দুর্নীতিমুক্ত পৌরসভা বিনির্মাণের আশ্বাস দিয়ে ভোটারদের সমর্থন কামনা করছেন। এছাড়া জাতীয় পাটির্র প্রার্থী এস এম মুর্তজা আলম ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী হুজ্জাতুল ইসলাম ফয়সালও দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। তবে প্রার্থীরা যে আশ্বাসই দেন না কেন সাধারণ ভোটারের হিসাব-নিকাশ আলাদা। তাদের মতে, বর্তমান পরিস্থিতিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আহম্মেদ আলী ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর (স্বতন্ত্র) মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে বলে ভোটারদের ধারণা। তবে বিএনপি কিছুটা নিরব থাকলেও দলটির মূল শক্তি তৃণমূল নেতাকর্মীরা তাকিয়ে রয়েছে দলের নীতিনির্ধারক ও দেশের সার্বিক পরিস্থিতির দিকে। আবার কেউ কেউ মনে করছে দলটি সুযোগ বুঝে ফাঁকা মাঠে গোল দিতে পারে। গাংনীর নির্বাচনী মাঠ কয়েকদিন আগে আওয়ামীলীগ ও বিদ্রোহ গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনায় কিছুটা অবনতি হয়। আইনশৃংখলা বাহিনীর শক্ত অবস্থানের কারনে সাধারন জনগনের অভিমত এখনও পর্যন্ত আইনশৃংখলা পরিস্থিতি সন্তোষ জনক।


(এসকেপি/এস/ডিসেম্বর২৭,২০১৫)

পাঠকের মতামত:

১০ ডিসেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test