Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

চাটমোহরে আ’লীগের দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ে অনিয়মের প্রতিবাদে বিক্ষোভ

২০১৬ মার্চ ১০ ১৯:৫৫:৪৮
চাটমোহরে আ’লীগের দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ে অনিয়মের প্রতিবাদে বিক্ষোভ

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি: পাবনার চাটমোহর উপজেলার পার্শ্বডাঙ্গা ইউনিয়নে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ে অনিয়মের অভিযোগে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী ও এলাকাবাসী।

পার্শ্বডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আজাহার আলীকে দলীয় মনোনয়ন না দেওয়ার অপচেষ্টার প্রতিবাদে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় পার্শ্বডাঙ্গা ইউনিয়নের বনগ্রাম বাজারে বিশাল গণসমাবেশ ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ নবীর উদ্দিন মাষ্টারের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন, আওয়ামী লীগের বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতা মোঃ নজরুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলাম মন্ডল, গোলাম রসুল, খইমুদ্দিন প্রাং, আঃ রাজ্জাক, নওশের আলী, ওয়াসিম উদ্দিন মাষ্টার, আকবর আলী, দৌলত আলী, ডাঃ আঃ হামিদ, তোফাজ্জল হোসেন, ফজল প্রাং, ছাত্রলীগের আহবায়ক আঃ রাজ্জাক, যুবলীগের সভাপতি আঃ সামাদ মাষ্টার, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, কৃষক লীগের সভাপতি ফজের আলী প্রমুখ।

বক্তারা উপজেলা সভাপতি এ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন সাখো ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ আঃ মালেকসহ নেতৃবৃন্দের সমালোচনা করে অবিলম্বে সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আজাহার আলীকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার জোর দাবি জানান। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচী দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়।

অপরদিকে ওই ইউনিয়নের সভাপতি ও সম্পাদকসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের ১৪ জন সভাপতি ও সম্পাদক পাবনা জেলা সভাপতি ও সম্পাদকের নিকট এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, গত ৭ মার্চ চাটমোহর মুক্তিযোদ্ধা সংসদে বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় ৯টি ওয়ার্ডের সভাপতি ও সম্পাদক এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সম্পাদক ভোট দিয়ে প্রার্থী বাছাই করার কথা। কিন্তু উপজেলা সভাপতি ও সম্পাদকসহ অন্যরা মনগড়া আরো ৫ জন ভোটার সৃষ্টি করে সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আজাহার আলীসহ অন্যদের লাঞ্ছিত করে দরজা বন্ধ করে ভোট গ্রহণ করে দলের কর্মী নামধারী ব্যবসায়ী মোঃ কামরুজ্জামান টিপুকে বিজয়ী ঘোষণা করেন। কোন ভোট গণণা করা হয়নি। ব্যালট পেপার দেখানোও হয়নি।

অভিযোগে আরো বলা হয়, কামরুজ্জামান টিপু দলীয় কোন পদে নেই। কোন রাজনৈতিক ব্যক্তিও নন। উপজেলা নেতৃবৃন্দ তার কাছ থেকে অবৈধ সুবিধা নিয়ে তাকে দলীয় প্রার্থী বানানোর অপচেষ্টা করছেন। নেতৃবৃন্দ এই কথিত ভোট বাতিল করে ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দের মতামতের ভিত্তিতে আলহাজ্ব আজাহার আলীকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার দাবি জানান।


(এসএইচএম/এস/ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৬)

পাঠকের মতামত:

১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test