E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

মেহেরপুর সদরের ৪ টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহন চলছে

২০১৬ এপ্রিল ২৩ ১৩:০৪:৪০
মেহেরপুর সদরের ৪ টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহন চলছে

মনিরুল ইসলাম মনির,মেহেরপুর : আজ শনিবার মেহেরপুর সদর উপজেলার ৪ টি ইউনিয়ন পরিষদের ভোট গ্রহন চলছে। সকাল ৮টা থেকে বিরতিহীন ভাবে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত তার পর গননা ।

দু’টি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী থাকলেও বিএনপি’র কোন বিদ্রোহী প্রার্থী না থাকায় সুবিধাজনক স্থানে আছেন তারা। তবে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও বিএনপির দলীয় প্রার্থীদের অভিযোগ প্রতিনিয়তই ভোটারদের ভয়ভীতি দেখানোসহ ভোট কেন্দ্র দখলের পায়তারা করছেন সরকার দলীয় প্রার্থীরা। কিন্তু তা প্রত্যাখ্যান করেছেন আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীরা। প্রশাসন ও নির্বাচন কর্মকর্তারা বলছেন- সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

৪টি ইউনিয়নের প্রার্থী এবং সাধারন ভোটাররা সারাদিন কাটাবে ব্যস্ত সময়। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে রাস্তা ঘাট সবখানেই একটিই আলোচনা কে পরবেন জয়ের মালা। নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীদের তেমন কোন অভিযোগ না থাকলেও সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও বিএনপির দলীয় প্রার্থীরা। তবে সরকার দলীয় প্রার্থীরা বলছেন নির্বাচনে নিশ্চিত পরাজয় জেনে তারা অপপ্রচার করছেন। নির্বাচনকে বিতর্কিত করার জন্য এ ধরনের অভিযোগ করছেন তারা। ৪ টি ইউনিয়নে এক লক্ষ ৩৫ হাজার ৯৯৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধীকার প্রয়োগ করবেন। ৫৯ টি কেন্দ্রে ৪২০ টি বুথে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ৪০টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নত করা হয়েছে। প্রার্থীরা বলছেন- নির্বাচিত হলে তারা এলাকার উন্নয়ন, রাস্তা-ঘাট, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নের পাশাপাশি ব্রীজ কালভার্ট নির্মাণসহ বিভিন্ন উন্নয়নের জন্য কাজ করবেন। এছাড়াও চাঁদাবাজী, সন্ত্রাসী দূর করা সহ মাদক নিয়ন্ত্রণে কাজ করবেন তারা। আমঝুপি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বোরহান উদ্দীন আহমেদ চুন্নু (নৌকা), বিএনপি প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম (ধানের শীষ) ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক মোল্লা (আনারস) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আফসার হোসেন (চশমা), মতিউর রহমান (ঘোড়া) ও শফিকুল ইসলাম (মটর সাইকেল) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তবে ভোটাররা বলছেন মূল প্রতিদ্বন্দিতা হবে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীর মধ্যে। পিরোজপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী আব্দুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস (নৌকা), বিএনপির প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান শামসুল আলম (ধানের শীষ) ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে সালেহ্ আল আজিজ টনিক (আনারস) নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। এখানেও প্রতিদ্বন্দ্বীতা হবে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র প্রার্থীর মাঝে বলে সাধারণ মানুষ মনে করছেন। তবে সালেহ্ আল আজিজ টনিকের সাথে গত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করে ছিল বর্তমান চেয়ারম্যান সামছুল আলম। কুতুবপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান ইদ্রিস আলী মাষ্টার (নৌকা), বিএপির প্রার্থী শহিদুল আলম (ধানের শীষ) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। বুড়িপোতা ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শাহ্জামাল (নৌকা), বিএনপির প্রার্থী অ্যাড. এ.এস.এম সাইদুর রাজ্জাক সাদ্দাম (ধানের শীষ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জামায়াত নেতা বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ মুকুল (চশমা) নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। এখানে ত্রিমূখী লড়াই হবার সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করছেন অনেকেই। এছাড়াও ৪ ইউনিয়নে সদস্য পদে ১৩৪ ও সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৩৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

ভোটারদের দাবী সুষ্ঠু ও উৎসব মূখর পরিবেশে তারা যেন সৎ ও যোগ্য প্রার্থীকে তাদের ভোটটি প্রদান করতে পারেন।

সদর রিটার্নিং কর্মকর্তা কবিরউদ্দীন জানান- নির্বাচনের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। কেন্দ্রে কেন্দ্রে স্বচ্ছ ব্যালট পেপার ও স্বচ্ছ ব্যালট বাক্স পৌঁছে গেছে। এছাড়ও সুষ্ঠ নির্বাচন করার লক্ষ্যে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি প্রতিটি কেন্দ্রে দু’জন করে ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন।

পুলিশ সুপার হামিদুল আলম জানান, উৎসব মূখর পরিবেশে ভোটাররা যাতে তাদের ভোটাধীকার প্রয়োগ করতে পারে সেই লক্ষ্যে প্রতিটি কেন্দ্রের জন্য একটি মোবাইল টিম, স্ট্রাইকিং ফোর্স, র‌্যাব-বিজিবির পাশপাশি সাদা পোশাকে কাজ করছে পুলিশ। কোন রকম অনিয়ম মেনে নেওয়া হবে না সেই লক্ষে আইন শৃংখলা বাহিনী কাজ করছে।




(এমআই/এস/এপ্রিল২৩,২০১৬)

পাঠকের মতামত:

২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test