E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

কর্তৃপক্ষের নোটিশ

পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডায়াগনোস্টিক কর্মীদের প্রবেশ নিষেধ!

২০১৭ জুন ২০ ১৩:৪৬:৩০
পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডায়াগনোস্টিক কর্মীদের প্রবেশ নিষেধ!

পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি : অবশেষে পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরে দালালদের দৌরাত্ম ঠেকাতে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মহিলা কর্মীদের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। অপরদিকে চরম অব্যবস্থাপনা, অনিয়ম, দুর্নীতির হাত থেকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি রক্ষায় সচেতন মহল গণস্বাক্ষর গ্রহণ করেছে।

জানা গেছে, উপজেলার ৫০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্থানীয় ডায়াগনোস্টিক সেন্টারের কিছু সংখ্যক মহিলা ল্যাব কর্মী হাসপাতালের সেবা প্রদান স্থান, যেমন- বহিঃবিভাগ, জরুরি বিভাগ, অন্তঃবিভাগ, লেবার রুমসহ বিভিন্ন স্থানে অবাধে সার্বক্ষণিক ঘোরাফেরা করে নিরীহ রোগীদের নানাভাবে প্রলোভন দিয়ে ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে গিয়ে পরীক্ষা-নীরিক্ষার নামে প্রতারনা করে আসছে।

এমনকি ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়াই অপ্রয়োজনীয় কিছু প্যাথলজিক্যাল টেস্ট করায়, যার অধিকাংশই রোগ নির্ণয়ে কোন প্রকার রেফারেন্স বহন করে না। এ নিয়ে ভুক্তভোগীদের পক্ষে স্থানীয় সচেতন মহল বারংবার প্রতিবাদ করে আসছে।

একপর্যায়ে সচেতন মহল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি দালালদের কবল থেকে রক্ষায় গণ স্বাক্ষর শুরু করে। ফলে বাধ্য হয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা গত ১৮ জুন স্বাক্ষরিত তার দপ্তরের উঃ স্বাঃ কমঃ/পীর/রং/৭৪২ নং স্মারকে উল্লেখিত নোটিশ প্রদান করে।

নোটিশে বলা হয়, বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারের তথা কথিত মহিলা কর্মীরা গোটা ক্যাম্পাস দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। তারা ফুসলিয়ে-ফাঁসলিয়ে অসহায় হতদরিদ্র মানুষদের হাসপাতাল গেট সংলগ্ন প্যাথলজিগুলেঅতে ধরে এনে হাতিয়ে নিচ্ছে মোটা অংকের টাকা নেয়ায় রোগীরা আর্থিকভাবে প্রতারিত হচ্ছে। অনেক সময় রোগী ধরতে গিয়ে তারা নিজেরই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ করে পরিবেশ নষ্ট করে। এ ধরনের কাউকে পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আর এই প্রক্রিয়ার সাথে কিছু অসাধু ডাক্তার জড়িত। অথচ সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত উপজলো স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেই অতি স্বল্প মূল্যে দক্ষ টেকনোলজিস্ট দ্বারা সকল পরীক্ষা হয়। এর অনুলিপি সংশ্লিষ্ট দফতরেও প্রেরন করা হয়েছে। সদয় অবগতির জন্য রংপুর সিভিল সার্জন, চেয়ারম্যান-উপজেলা পরিষদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, থানার অফিসার ইনচার্জ, মেয়র-পীরগঞ্জ পৌরসভা এবং স্থানীয় সাংবাদিক মহলকে প্রদান করা হয়।

এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা ডাঃ মোখলেসুর রহমান সরকার বলেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গেটের ২০ গজের মধ্যেই উঠা ৫/৬টি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মাঠকর্মী হিসেবে কিছু মহিলা এমন ঘটনা ঘটাচ্ছে। স্থানীয়রা তাদেরকে দালাল বলে চিহ্নিত করছে এবং যাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হাসপাতালে প্রতিদিন আগত উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের রোগীরা প্রতারিত হচ্ছে।

(জিকেএল/এসপি/জুন ২০, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test