E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

দেশ করোনামুক্ত না হওয়া পর্যন্ত জনগণের পাশে থাকবে আ.লীগ

২০২০ জুলাই ০৫ ১৫:৫৯:৩৫
দেশ করোনামুক্ত না হওয়া পর্যন্ত জনগণের পাশে থাকবে আ.লীগ

স্টাফ রিপোর্টার : করোনাকালীন সংকট নিয়ে বিশেষ ওয়েবিনার ‘বিয়ন্ড দ্য প্যানডেমিক’ এর নবম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৪ জুলাই) রাতে এই পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

বরাবরের মতোই পর্বটি সরাসরি প্রচারিত হয় আওয়ামী লীগের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ এবং অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে। একই সঙ্গে, দেখা যায় বিজয় টিভির পর্দায় এবং বিডি নিউজ, সমকাল, ইত্তেফাক, ভোরের কাগজ, বাংলা নিউজ, যুগান্তর, জাগো নিউজ২৪, বার্তা ২৪ ও সারা বাংলার ফেসবুক পেজে।

এবারের পর্বের আলোচনার বিষয় ছিল ‘করোনা সংকট মোকাবিলায় তৃণমূলের ভূমিকা’। এই সংকটে মানুষকে সচেতন করতে আওয়ামী লীগের পদক্ষেপ, করোনা চিকিৎসা নিয়ে গুজব মোকাবিলা, দলের জনপ্রতিনিধিদের জন্য আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় বার্তা, ঘূর্ণিঝড় আম্ফান পূর্বাভাস পাওয়ার পর ক্ষয়ক্ষতি কমাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ এবং পরবর্তীতে কর্মহীনদের সহায়তা বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার শাহ আলী ফরহাদের সঞ্চালনায় আলোচক হিসেবে যুক্ত হন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, ভোলা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, কক্সবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান বাবু এবং বাংলাদেশ কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ‘করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরুর পর থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা এবং তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সমন্বয় করে রিলিফ কার্যক্রম কমিটি গঠন ও রিলিফ প্রদানে সক্রিয় অংশগ্রহণ করে আওয়ামী লীগ। সাধারণ মানুষকে সচেতন করা থেকে শুরু করে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কার্পণ্য করেনি। আওয়ামী লীগের দুর্দিনের নেতাকর্মীরা মৃত্যুভয়কে উপেক্ষা করে রিলিফ কার্যক্রম এখন পর্যন্ত পরিচালনা করছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘দেশ ও দলের দুর্দিনে আওয়ামী লীগের তৃণমূল কর্মীরা বারবার ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছেন। সমগ্র আন্দোলন-সংগ্রামে আমাদের এই দুর্দিনের নেতাকর্মীরাই সবার আগে এগিয়ে এসেছেন। এবং আমাদের দলীয় জনপ্রতিনিধিরা তৃণমূলের নেতা কর্মীদের সঙ্গে সমন্বয় করে জনগণের পাশে থেকেছে, এখনও আছে। করোনামুক্ত বাংলাদেশ হওয়ার আগ পর্যন্ত আমাদের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ও জনপ্রতিনিধিরা যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য জনগণের পাশে আছে এবং থাকবে।’

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন বলেন, ‘একজন সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে আমার সাংগঠনিক এলাকার উপজেলা ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। আমাদের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ব্যক্তিগত উদ্যোগে মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছে এবং এখনও দিচ্ছে। এছাড়া আমাদের সকল স্তরের জনপ্রতিনিধিরা নিজস্ব এলাকায় সরকারি ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে মানুষের পাশে থেকেছে। আমরা কেন্দ্র থেকে সবকিছু সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছি।’

তিনি বলেন, আমাদের দফতরের হিসাব অনুযায়ী সারাদেশের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা এখন পর্যন্ত প্রায় এক কোটি ২০ লাখ মানুষের কাছে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছে। আওয়ামী লীগের রাজনীতিই হলো অসহায় মানুষের পাশে থাকা, পাশে দাঁড়ানো এবং মানুষকে সহায়তা করা। আওয়ামী লীগের জন্মলগ্ন থেকে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা সবসময় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে।

(ওএস/এসপি/জুলাই ০৫, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

০৭ আগস্ট ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test