Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

লতিফ সিদ্দিকীর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাল ফখরুল

২০১৪ সেপ্টেম্বর ৩০ ১৭:১১:২৬
লতিফ সিদ্দিকীর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাল ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা : মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.), পবিত্র হজব্রত পালন, পবিত্র মক্কা শরীফ ও তাবলীগ জামায়াত সম্পর্কে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার বিএনপির দফতরের দায়িত্বে থাকা যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান তিনি।

বিবৃতিতে বলা হয় ‘বর্তমান অবৈধ সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী গত রবিবার আমেরিকার নিউইর্য়কে জ্যাকসন হাইটসের একটি হোটেলে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ মানব শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (স.), পবিত্র হজব্রত পালন, পবিত্র মক্কা শরীফ, তাবলীগ জামায়াত সম্পর্কে যে অসম্মানজনক বক্তব্য রেখেছেন তা বাংলাদেশসহ গোটা মুসলিম বিশ্বের ধর্মীয় আবেগে চরম আঘাত। ইসলাম ধর্মের প্রতি তার এই বক্তব্য চরম অসম্মানজনক। লতিফ সিদ্দিকীর এই ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।’

বিবৃতিতে বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘ইসলামের অবশ্য পালনীয় অন্যতম স্তম্ভ হজ। বাংলাদেশসহ বিশ্বের লাখ লাখ মুসলমান আল্লাহ’র নৈকট্য লাভের জন্য প্রতি বছর হজের সময় পবিত্র মক্কা শরীফে হজব্রত পালন করেন। কেবল বিশ্বের কোটি কোটি মুসলমান নয় এমনকি অন্য ধর্মের চিন্তাশীল মানুষরাও শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (স.)কে শ্রেষ্ঠ মানব হিসেবে অভিহিত করেছেন। অথচ মুসলমান নামধারী বর্তমান অবৈধ সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী রাসুলুল্লাহ (স.) সম্পর্কে যে অপমানজনক কথা বলেছেন তা কেবল চরম সীমালঙ্ঘনকারীরাই করতে পারে। এই মন্ত্রী কথাবার্তায় সবসময় সভ্যতার সীমানা অতিক্রম করেন। এর আগেও তিনি এমন অসংলগ্ন কথা বলেছেন যা কেবল সমাজবিরোধী লোকেরাই বলে থাকেন। তিনি বলেছিলেন, বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে হানা দিয়ে তাদেরকে হত্যা করতে। মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন ও বিকারগ্রস্ত না হলে কেউ এ ধরণের কাণ্ডজ্ঞানহীন বক্তব্য রাখতে পারে না। অবৈধ ক্ষমতায় মন্ত্রিত্ব পাওয়া একজন মানুষ কতখানি দাম্ভিক এবং ঔদ্ধত্যপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে সেটির উজ্জল দৃষ্টান্ত লতিফ সিদ্দিকী। তার লাগামহীন কদাচার বক্তব্যকে ক্ষমতার শীর্ষ থেকে সবসময় উৎসাহ প্রদান করা হয়েছে বলেই তিনি এখন সকল সীমানা অতিক্রম করে পবিত্র হজ ও হাজীদের কটাক্ষ এবং মহানবী (স.) সম্পর্কে বিদ্রুপাত্মক ভাষায় তাচ্ছিল্য করা ও তাবলিগ জামায়াতকে নিয়ে কটূক্তি করার স্পর্ধা দেখিয়েছেন।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, ‘ক্ষমতাসীন নেতা মন্ত্রীরা শুধু ধরাকে সরা জ্ঞানই করছেন না তারা নিজেদের এখতিয়ার ভুলে গেছেন। ফেরাউনের ঔদ্ধ্যত্য এদেরকে প্রেরণা যোগায়। তাই আসন্ন পতনের কোনো শব্দ তাদের কানে আসছে না। মহানবী (স.), হজ, হাজী এবং তাবলীগ জামায়াত সম্পর্কে কুৎসিত মন্তব্যে ফুঁসে ওঠা জনগণের রোষাণল তারা দেখতে পাচ্ছেন না।’

মির্জা ফখরুল বিবৃতিতে অবিলম্বে লতিফ সিদ্দিকীর পদত্যাগের জোর দাবি জানান।

(ওএস/অ/সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৪)

পাঠকের মতামত:

১৯ আগস্ট ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test