Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

সরকার কোথাও স্বীকৃতি পাচ্ছে না : ফখরুল

২০১৪ অক্টোবর ১০ ২০:০৪:০৪
সরকার কোথাও স্বীকৃতি পাচ্ছে না : ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার : সরকারকে বিশ্বের কোনও দেশই স্বীকৃতি দিচ্ছে না বলে দাবি করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে শহীদ জেহাদ স্মৃতি পরিষদ আয়োজিত এক স্মরণ সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

‘২৪তম জেহাদ দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণ সভায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘সরকারের মন্ত্রীরা দাবি করেছেন জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুনের সাথে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক হয়েছে। অথচ বান কি মুনের সফর তালিকা থেকে স্পষ্ট হয়েছে, শেখ হাসিনার সাথে বান কি মুনের কোন বৈঠক হয়নি।

বানকি মুন শেখ হাসিনাকে ছবি তোলার জন্য শুধু ৫ মিনিট সময় দিয়েছিলেন। এমনকি যুক্তরাষ্ট্র এবং আমেরিকার প্রেসিডেন্টও শেখ হাসিনাকে ছবি তোলার জন্য ১৫ মিনিট করে সময় দিয়েছিলেন।

তিনি বলেন, বান কি মুনের সাথে শেখ হাসিনার বৈঠক নিয়ে সরকারের মন্ত্রীদের মিথ্যাচার ও আস্ফালনেই প্রমাণিত হয়, এই সরকারকে কেউ স্বীকৃতি দেয়নি।

সরকার ভাষা সৈনিক আব্দুল মতিনকে তার প্রাপ্য সম্মান দেয়নি মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘একটি মানুষ ও একটি পরিবার ছাড়া আওয়ামী লীগ কিছুই বুঝে না। এই কারণে তাজউদ্দিন আহমেদসহ ‘৭১’ এর সকল মুক্তিযোদ্ধাকেই তারা ভুলে গেছেন। এমনকি সরকার এ কে খন্দকারকে তার বাপ-দাদার নাম পর্যন্ত ভুলিয়ে দিয়েছেন।’

সরকারের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে তিনি বলেন, ‘যদি আমাদের দাবির প্রতি সম্মান না দেখান, তাহলে স্বৈরাচার এরশাদ সরকারের আমলে যেমন আন্দোলন হয়েছে তার চেয়েও তীব্রতর আন্দোলন দেখবেন আপনারা।’

এসময় তিনি বর্তমান স্বৈরাচার সরকারকে হঠাতে তুরুণ ও যুবকদের জেগে উঠার আহ্বান জানান।

বিএনপি কিছুই করতে পারছে না, বিএনপিরই এক নেতার এমন বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, ‘আয়ুব খানের বিরুদ্ধে ১২ বছর সংগ্রাম করার পর আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। তাই হতাশ হওয়ার কোনও কারণ নেই। কারণ হতাশাই শেষ কথা নয়, প্রতি রজণীর পর নতুন সূর্যোদয় হয়।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘আওয়ামী লীগের চামড়া মোটা। তাই কোনও কিছুতেই তাদের যায় আসে না। আর তাদের কোন লজ্জাও নেই। তাই প্রতিনিয়ত জাতির কাছে তারা মিথ্যাচার করে বেড়াচ্ছেন।’

বিএনপির শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকনের সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক হাবিব-উন-নবী-খান সোহেল, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা, ছাত্রদলের সভাপতি আব্দুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল প্রমুখ।

(ওএস/এটিআর/অক্টোবর ১০, ২০১৪)

পাঠকের মতামত:

১৯ আগস্ট ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test