E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

গাংনীতে যুবদল নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

২০১৬ অক্টোবর ০৩ ১৩:২৯:২১
গাংনীতে যুবদল নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

মেহেরপুর প্রতিনিধি : মেহেরপুরের গাংনীতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ইটভাটা ব্যবসায়ী ও যুবদল নেতা আবুল খয়েরকে (৩৫) কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। সোমবার ভোর চারটার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত আবুল খয়ের গাংনী থানাপাড়ার মৃত মুক্তার হোসেনের ছেলে ও গাংনী পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র বিএনপি নেতা ইনসারুল হক ইন্সুর বড় ভাই। তিনি যুবদলের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

নিহতের বড় ভাই ইনসারুল হক ইন্সু জানান, রবিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে গাংনী বাজার থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন তার ভাই আবুল খয়ের। ফেরার পথে ওলিনগর সড়কে বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছালে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা একদল সন্ত্রাসী তার উপর হামলা চালায়।

মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গেলে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথা ও শরীরের বিভিন্ন অংশে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটিও ভাঙচুর করা হয়। পরে তার চিৎকারে বাড়ির এবং আশপাশের লোকজন ছুটে গেলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

তাকে উদ্ধার করে প্রথমে গাংনী হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। সেখানেও অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ইন্সু আরো জানান, এলাকার কয়েকজন সন্ত্রাসী তার ভাইয়ের ইটভাটা থেকে প্রায়ই চাঁদা দাবি করে আসছিল। চাঁদা না দেয়ায় তাকে প্রাণনাশের হুমকিও দিতো।

এ ব্যাপারে গাংনী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, পূর্ব বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটতে পারে। থানায় মামলা হয়েছে। হামলার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

(ওএস/এএস/অক্টোবর ০৩, ২০১৬)

পাঠকের মতামত:

২১ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test