E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

বঙ্গবন্ধুকে নিবেদিত তাজুল ইসলাম সোহাগ’র ৩টি কবিতা

২০২১ মার্চ ২৫ ১৩:৩৫:৩০
বঙ্গবন্ধুকে নিবেদিত তাজুল ইসলাম সোহাগ’র ৩টি কবিতা







 

মুজিব বর্ষ

হে! বঙ্গবন্ধু তোমার জন্য পেয়েছি এই বাংলায় লিখার স্বাধীনতা
বঙ্গবন্ধু তোমার জন্যই বেড়ে যায় তোমাকে পাবার আকুলতা।
বঙ্গবন্ধুর মহানুভবতা হৃদয়ে গাঁথা যেন মা-বাবার চোখে সন্তান
বঙ্গবন্ধুর জন্য পেয়েছি কল্পলোকের গল্পকথা আর নিপুণ আলাপন।
সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী তুমি ধরেছিলে এই দেশ রক্ষার্থে হাল
জননেত্রী শেখ হাসিনার ও আছে দেশের প্রতি অনুরূপ মায়াজাল।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. বেলায়েত হোসেনের যুদ্ধের স্মৃতি পড়ে মনে
এই স্বাধীন পতাকার জয়ের নেশায় অস্ত্র হাতে তুলে ছিল সেই ক্ষণে।
বঙ্গবন্ধু তোমার জন্যই পেয়েছি আমি আমার বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবা
তোমার ডাকেই স্বাধীন হয়েছি, দমিত হয়েছে শত্রুর হিংস্র থাবা।
তোমার ভাষণের যাদুতে বেড়ে যায়, যুদ্ধে যাবার তীব্র মনোবল
ভীত চিত্ত নির্ভীক উদ্যত, ছিনিয়ে আনতে লাল-সবুজের আঁচল!

হে! বঙ্গবন্ধু তোমায় নিয়ে লিখা কবিতা, গানেও সযত্ন সুর
বঙ্গবন্ধু তোমার জন্মশতবার্ষিকী হয় সমাপ্ত, শ্রদ্ধায় ভরপুর।
বঙ্গবন্ধু তোমার জন্যই সোহাগ-আদরে, শিশু মনে জয়োগান
ধন্য তাঁরা মুজিব কন্ঠে শুনেছিল যাঁরা, স্বাধীনতার আহ্বান।
তোমার জন্য বসন্তকালে শিমুলের ডালে কোকিলের কুহুতান
শিশু দিবসে আঁকা রং-তুলিতে মাখা, দৃষ্টি-নন্দিত সাগরে সাম্পান।

মৃদু-নিভু আলোতে রাতের কালোতে তুমি জ্যোৎস্না ময় অফুরন্ত
ঝড়-বাতাসের বেগে ঘনকালো মেঘে তুমি প্রোজ্জ্বলিত সীমান্ত।
হে বঙ্গবন্ধু! তোমার জন্যই মুখে ফুটে উঠা সুখের নির্লিপ্ত হাসি
বোঝাতে পারবো না সত্যি আমরা তোমায়, কতটা ভালোবাসি!
১৯২০ সালের ১৭ মার্চে জাতির পিতার জন্মগ্রহণ ‘শুভ জন্মদিন’
১৭ মার্চ ২০২০ মুজিব বর্ষে জন্মশতবার্ষিকী হয় তাঁর শোধ হয় না ঋণ!!


বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

যে বাংলার নেতা, বাংলার পিতা, বঙ্গবন্ধু সেই
পঁচাত্তরে হারিয়ে গেছে-এখন সেতো নেই
না-না! এই হৃদয় মাঝে আছে মিশে, মুজিব আসলেই!

বিনা দোষে যারা নির্মমভাবে করল তাঁকে খুন
আমারা সবে গেয়ে যাই তাঁরইস কল গুন
পঁচাত্তরে হারিয়ে গেছে-এখন সেতো নেই
না-না! এই হৃদয় মাঝে আছে মিশে, মুজিব আসলেই!

দেশের জন্য শেখ মুজিবুর দিয়ে গেল তাজা প্রাণ
ভুলা কি কখনো যায়- তাঁরই অবদান
পঁচাত্তরে হারিয়ে গেছে-এখন সেতো নেই
না-না! এই হৃদয় মাঝে আছে মিশে, মুজিব আসলেই!

হে! মুজিব তুমি বেঁচে আছো

হে! মুজিব তুমি বেঁচে আছো, তোমার হয়নি মরণ
তোমার ভাষণ শুনে, মনে আজো, জাগে শিহরণ
হে! মুজিব তুমি বেঁচে আছো, তোমার হয়নি মরণ!
আজো শয়নে স্বপনে জাগরণে, শুনি তোমার কন্ঠস্বরের ধ্বনি
তুমি ছিলে মহান নেতা-অতি আপনজন
হে! মুজিব তুমি বেঁচে আছো, তোমার হয়নি মরণ!
অকুতভয় ছিলে মুজিব, রেখেছো তুমি জাতিরো মান
প্রাণ দিয়ে তুমি গড়লে এ বাংলার, শ্রেষ্ঠ সিংহাসন
হে! মুজিব তুমি বেঁচে আছো, তোমার হয়নি মরণ!

লেখার অনুপ্রেরণা : প্রিয় বাবা বীরমুক্তিযোদ্ধা মো. বেলায়েত হোসেন, সালথা, ফরিদপুরের সাবেক সভাপতি, মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাইকমিটি, জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার।

পাঠকের মতামত:

২০ এপ্রিল ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test