E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

সুমি দাশ’র দুটি কবিতা 

২০২১ অক্টোবর ২৫ ১৫:৪৫:৫৬
সুমি দাশ’র দুটি কবিতা 







 

বেলাশেষে ভাবনার অন্তরালে


বেলাশেষে তুমি বেশ আছো জানি,
ফুল,পাখি ও প্রকৃতির সাথেই করে চলেছো কতটা মিতালী,
মাঝে মাঝে তোমার হাতের কোমল স্পর্শে
লজ্জাবতী লতারাও লজ্জায় মুখ ঢাকে ঘোমটার আড়ালে।
তুমি খুঁজে বেড়াও শুধু তারই স্পর্শ অনুভবে।
তুমি হেঁটে চলেছো বালুকাবেলায় সাগরের উত্তাল তরঙ্গের তালে তালে।
ওখানেও স্বর্গের সাদা অপ্সরীরা তোমার সম্মুখে মেতে উঠেছে
সমুদ্রের নীল জলে স্নানে, গানে আর বেসামাল মাতালে।
নিষ্পলক চোখে তাকিয়ে আছো
তাদের অপূর্ব জ্যোতি ছড়ানো সৌন্দর্যের অমৃত সুধা পানের মোহে।
শরতের বিকেলে সাদা মেঘের লুকোচুরি খেলায়
কাশবনও দুলছে আনন্দে,মৃদু ছন্দে।
তুমি তাতে খুঁজছো কিছু প্রত্যাশিত সুখ আর অনাবিল আনন্দ।
আর আমি? আমি তো আছি তোমার পিছুপিছু।
অদৃশ্য ছায়া হয়ে দেখি তোমার অম্লান সুখ আর ছুটে চলার আনন্দ।
তোমার ঐ শ্যামবরণ মুখটাতেই খুঁজি ভালোবাসার জলরং এর ছন্দ।
দিন আসে, রাত নামে।
কথারা সব জমা থাকে নিরুত্তর প্রশ্নের মাঝে।
ধুমকেতুর মতো কোনো এক পরন্ত বিকেলে
তৃষ্ণার্থ মন নিয়ে তোমার ছুটে আসা,
অনিরুদ্ধ উন্মাদ ইশারায়,
আলিঙ্গনে আপ্লুত তোমার উষ্ণ ঠোঁটের স্পর্শের মায়ায়।
সেই ভালোবাসার বোঝাটা বুকে বেঁধে আমি হেঁটে চলেছি
তোমার ছায়া পথ ধরে ক্লান্তিহীন যাত্রী হয়ে।
হারিয়ে ফেলার ভয়ে নিশ্চুপ ছুটে চলা,
তার মাঝে এলোমেলো ভাবনাগুলো অবাদ বিচরণ মস্তিষ্কের কোষে কোষে নীরবে সঙ্গোপনে।
হয়তো একদিন থেমে যাবে ভালোবাসার নিশ্বাস, বিশ্বাসের আশ্বাস।
আর বাকী টা নাহয় তোমার পায়ের তলায় শুকনো পাতার মর্মরে শব্দে চুর্ণ করে পিষে ফেলো।
তাতেই খুশি।

অচেনা পথিক

তুমি কি শুনছো ?
আমি তো আর তোমার অপেক্ষায় নির্ঘুম নিশি জাগি না,
রাতের নিস্তব্ধতায় ঐ শুকতারার পানে চেয়ে চেয়ে
স্বপ্নের জাল বুনতে ভুলেই গেছি।
তোমার দেয়া জুঁই ফুলের মালার ঘ্রাণেও যে আর মাতাল করে না।
সুপ্ত ইচ্ছে,আকাঙ্খা ও স্বপ্নগুলো উড়িয়ে দিলাম সুতো বিহীন ঘুড়ির মতো।
উড়ে যাবে ঠিক.... নেই তার গন্তব্য, নেই সীমানা।
তোমায় আর দিগন্তের শেষে ও-ই গোধূলির রঙিন আলোতে খুঁজি না।
তোমার তৃষ্ণার্ত ঠোঁটের স্পর্শে শিহরণ জাগে না।
নিঃশব্দে ভালোবাসার গভীর আলিঙ্গনে ভালোবাসার
ভালোলাগায় আপ্লূত আর যে হবার নয়।
ইচ্ছে গুলো ফ্যাকাশে প্রলেপে ঢেকে পড়েছে আজ বিষাদের ছায়ায়।
স্মৃতি গুলো কেবল আজও কাঁদায়,
আর প্রত্যাশাগুলো সমর্পিত করেছি চিতায়।
অশ্রু সাগরে ভাসছে তপ্ত বুক।
কষ্টগুলো ফেরি করে বেড়াচ্ছি যুগের পর যুগ।
নিলো না তো কেউ।
চিঠি খানা ঠিক বেঁধে দিলাম কপোতের গলায়।
উড়িয়ে দিলাম,সীমানা পেরিয়ে ছুঁতে তোমায়।
তুমি কেবল ছুটে চলেছো অচেনা পথিকের বেশে,রুক্ষ চুলে আনমনা হেসে।
মাঝে মাঝে ভুলে যাই,
তুমি তো আজ আমার থেকে বহু দূরে।
তাই,কষ্টগুলো ভাসিয়ে দিলাম সাগরের নোনা জলে।
ডুবে যাক বা ভেসে যাক।
নিঃসীম অনন্তকাল কেটে যাবে
দুঃসপ্নের ভীড়ে, গোপনে আঁধারে।
তুমি কেবল জড়িয়েছিলে আমায় অবহেলার কালো চাদরে।

পাঠকের মতামত:

২৯ নভেম্বর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test