E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

‘পাকিস্তানে টেনিস-কাবাডি খেলতে পারে ভারত, ক্রিকেটেই যত সমস্যা’

২০২০ ফেব্রুয়ারি ১৮ ১৫:৫৫:২০
‘পাকিস্তানে টেনিস-কাবাডি খেলতে পারে ভারত, ক্রিকেটেই যত সমস্যা’

স্পোর্টস ডেস্ক : ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের বৈরিতা বহু পুরনো। একটা সময় ক্রিকেট মাঠে উত্তাপ ছড়ানো ভারত-পাকিস্তান লড়াইও এখন দেখা মেলে না আর। রাজনৈতিক সম্পর্কের রেশে বহু বছর ধরেই কোন দ্বিপাক্ষিক সিরিজে মাঠে গড়াচ্ছে না এই দুই দেশের মধ্যে। দর্শকদের মধ্যেও এ নিয়ে দেখা দেয় হতাশা।

এবার ভারতীয় ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফরে না যাওয়ার বিষয়ে ভালোভাবেই খোঁচা দিয়েছেন ক্রিকেট ছাড়ার পর অদ্ভুত সব কথা বলে খবরের শিরোনাম হওয়া সাবেক পাকিস্তানি পেসার শোয়েব আক্তার।

সম্প্রতি কাবাডি বিশ্বকাপের পুরোটাই পাকিস্তানের মাটিতে খেলে গেছে ভারতীয় কাবাডি দল। রোববার ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষেই মাঠে নেমেছিল ভারত।

এ নিয়েই মূলত খোঁচাটা দিয়েছেন শোয়েব। তার মতে ক্রিকেটের বেলায়ই যত সমস্যা ভারতের। তিনি বলেন, ‘আমরা একে-অপরের সঙ্গে ডেভিস কাপ কিংবা কাবাডি খেলতে পারি তাহলে ক্রিকেটে সমস্যা কোথায়? বুঝলাম ভারত পাকিস্তানে আসবে না, পাকিস্তানও ভারতে যাবে না কিন্তু আমরা তো এশিয়া কাপ ও চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নিরপেক্ষ মাঠে মুখোমুখি হচ্ছি। দ্বিপাক্ষিক সিরিজেও কি এমন করতে পারি না?’

প্রায় এক দশকের নির্বাসন কাটিয়ে পাকিস্তানে ফিরেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। শ্রীলঙ্কার পর বাংলাদেশও দুই দফায় পাকিস্তান সফর করে এসেছে। তাই তো নিজের দেশকে নিরাপদই মনে করেন শোয়েব আক্তার। পাকিস্তানের আতিথেয়তাকেও বিশ্বের অন্যতম সেরা বলছেন এই পেসার।

তিনি বলেন, ‘পাকিস্তান ভ্রমণের জন্য নিরাপদ জায়গা। ভারতের কাবাডি দল এসেছে। বাংলাদেশ টেস্ট খেলে গেছে। এরপরও যদি সমস্যা থাকলে তাহলে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলার প্রস্তাব করছি। তবে পাকিস্তান আতিথেয়তা দেওয়ায় বিশ্বের অন্যতম সেরা। ভারত তা ভালোমতোই জানে। ভিরেন্দর শেবাগ, সৌরভ গাঙ্গুলি কিংবা শচিন টেন্ডুলকারকে জিজ্ঞেস করুন, ওদের আমরা খুবই ভালোবাসি। আমাদের মধ্যে যে ব্যবধান ক্রিকেটে তার প্রভাব পড়া ঠিক হবে না। আশা করি, ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলবে।’

এসময় দুই দেশের মধ্যকার আর্থ-সামাজিক সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে শোয়েব আরও বলেন, ‘সম্পর্কচ্ছেদ করতে চাইলে ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ করুন, কাবাডি খেলা বন্ধ করুন, শুধু ক্রিকেট কেন? ক্রিকেটের প্রসঙ্গ উঠলেই বিষয়টি রাজনৈতিক হয়ে যায়। এটা ভীষণ হতাশার। আমরা নিজেদের মধ্যে পেঁয়াজ-টমেটো আমদানি-রপ্তানি করতে পারি, হাসি-ঠাট্টা করতে পারি তাহলে ক্রিকেট খেলায় কী সমস্যা?’

(ওএস/এসপি/ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

১১ এপ্রিল ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test