E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

লিগ শুরুর আগে কোন পারিশ্রমিক পাবেন না ক্রিকেটাররা!

২০২০ জুলাই ১০ ১৬:০৯:৫৪
লিগ শুরুর আগে কোন পারিশ্রমিক পাবেন না ক্রিকেটাররা!

স্পোর্টস ডেস্ক : এই তো ৭২ ঘন্টা আগের খবর, দেশের ক্রিকেটারদের সংগঠন ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব) ঢাকার প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলোর কাছে পারিশ্রমিকের ৫০ শতাংশ চেয়েছে। গত মঙ্গলবার (৭ জুলাই) কোয়াবের এক অনলাইন সভা শেষে বিসিবির মাধ্যমে প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলোক এই দাবি জানানো হয়েছে।

এ খবর শুনে ক্রিকেটার ও তাদের ভক্ত-শুভানুধ্যায়ীদের অনেকেই নড়েচড়ে বসেছিলেন। সবার মাঝে একটা প্রশান্তি চলে এসেছিল যে, এবার তাহলে ক্রিকেটারদের একটা গতি হবে। করোনার কারণে এক রাউন্ড হয়ে প্রিমিয়ার লিগ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ক্রিকেটারদের অনেকেই চাহিদামাফিক পারিশ্রমিক না পেয়ে নিদারুণ অর্থকষ্টে রয়েছেন। এবার বুঝি তাদের একটা গতি হবে।

কেউ কেউ এমন ভাবলেও, আসলে কি তাই হবে? ক্লাবগুলো কি সত্যি সত্যি কোয়াবের আহ্বানে, বিসিবির মধ্যস্ততায় পারিশ্রমিকের ৫০ ভাগ দিয়ে দেবে? দিলে সেটা কবে দেবে?- এমন অনেক প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে সবার মনে।

ভেতরের খবর, ক্লাবগুলো কোন পারিশ্রমিকই এখন দেবে না। দেয়ার এতটুকু সম্ভাবনাও নেই। ক্লাবগুলো বর্তমান অবস্থায় ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক দেবে না। সত্যিকার অর্থে দেয়ার মত অবস্থাও নেই। বিষয়টি স্পর্শকাতর, তাই আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিতে রাজি নয় কেউ।

এ প্রসঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু বলতে অনীহা সবার। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ক্লাব কর্তার সাথে কথা বলে জানা গেছে, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে প্রিমিয়ার লিগ নতুন করে শুরু না হলে, ক্লাবগুলোর পক্ষে ৫০ ভাগ পারিশ্রমিক দেয়া সম্ভব না। এখন যে অর্থনৈতিক অবস্থা, তাতে পারিশ্রমিক দেয়ার মত স্বচ্ছল অবস্থা নেই ক্লাবগুলোর- এমন দাবি ক্লাব কর্তাদের।

কয়েকজন ক্লাব কর্তা জানিয়েছেন, ‘৫০ শতাংশ না হলেও দু-একটি ছাড়া বেশিরভাগ ক্লাবই ২০-৩০ শতাংস অগ্রিম পেমেন্ট করেছে। দলবদলের আগে নতুন ক্রিকেটারদের সঙ্গে চুক্তির সময় এক-চতুর্থাংশ পারিশ্রমিক দেয়া হয়েছে অনেক ক্রিকেটারকেই। আর শীর্ষ তারকাদের প্রায় সবাই গড়পড়তা ৪০-৫০ ভাগ অগ্রিম পেমেন্ট পেয়েছেন।’

যেহেতু এক ম্যাচ হয়ে লিগ করোনার কারণে বন্ধ হয়ে গেছে, তাই আর পেমেন্ট দেয়া হয়নি। এখন নতুন করে লিগ শুরু না হলে আসলে আর পেমেন্ট দেয়া সম্ভব না- এমনটাই বোঝা গেছে ক্লাব কর্তাদের কথায়। তাদের শেষ কথা, ‘সবাই ক্রিকেটারদের অর্থ কষ্টের কথা বলছেন, ক্লাবগুলোর কথা ভাবছেন কজন? ক্লাবগুলোরতো আর কাড়ি কাড়ি টাকা নেই যে ক্রিকেটারদের ইচ্ছেমত দিয়ে দেবে? ক্লাবের কাছে অর্থ থাকতে হবে তো?’

ক্লাব কর্তাদের কারও কারও মন্তব্য, ‘আসলে আমরা ডোনারদের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহ করে তারপর ক্রিকেটারদের দেই। এখন করোনায় চারদিকে অবস্থা খারাপ। কমবেশি সবার অর্থনৈতিক অবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দিনমজুর থেকে শুরু করে বিভিন্ন কর্পোরেট হাউজ, শিল্প ও ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের মালিক- করোনা সবাইকে নাড়িয়ে দিয়েছে। সবারই হাতের অবস্থা খারাপ। লিগ শুরুর খবর নেই, কবে শুরু হবে তার নিশ্চয়তা নেই- এখন কার কাছে টাকা চাইব? কে দেবে অর্থের জোগান? কাজেই কোয়াব যতোই ৫০ ভাগ পারিশ্রমিক দাবি করুক, বর্তমান প্রেক্ষাপটে তা দেয়া সম্ভব না। করোনা সংকট কমুক, অবস্থার উন্নতি ঘটুক, লিগ শুরু হোক, খেলা আবার মাঠে গড়াক- তখন এক-দুই রাউন্ড পরে নিশ্চয়ই অর্থের জোগান আসবে। কেবল তখনই ক্রিকেটারদের হাতে টাকা দেয়া সম্ভব হবে, তার আগে নয়।’

(ওএস/এসপি/জুলাই ১০, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

০৯ আগস্ট ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test