E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

২৭ মে’র পর দল ঘোষণা, ২৯ মে শুরু টেস্ট দলের অনুশীলন

২০২৩ মে ২৪ ১৮:৫৯:২৬
২৭ মে’র পর দল ঘোষণা, ২৯ মে শুরু টেস্ট দলের অনুশীলন

স্পোর্টস ডেস্ক : কেউ কেউ এরই মধ্যে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্টের ব্যক্তিগত পর্যয়ে অনুশীলন শুরু করেছেন। লিটন দাস মঙ্গলবার ব্যাট হাতে নেমে পড়েন শেরে বাংলায়। বরাবরের মতো উৎসাহি মুশফিকুর রহিমও হয়ত আজ-কালের মধ্যেই ব্যাটিংটা ঝালিয়ে নিতে মাঠে নেমে পড়বেন। তবে আফগানদের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের আগে বাংলাদেশের টিম প্র্যাকটিস শুরু হবে ২৯ মে থেকে।

১৪ জুন মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে একমাত্র টেস্টের প্রস্ততির জন্য ২ সপ্তাহের বেশি সময় পাবেন টাইগাররা। এদিকে গত কয়েকদিন ক্রিকেট পাড়ায় একটিই কৌতুহলি প্রশ্ন, আফগানদের বিপক্ষে অনুশীলনে ডাক পাবেন কারা? তাদের সংখ্যাই বা কত?

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগামী ২৭-২৮ মে দল ঘোষণা করতে পারেন নির্বাচকরা। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানিয়েছেন, আমরা দল চূড়ান্ত করে ফেলবো দু’এক দিনের মধ্যেই। তবে জালাল ভাই (বিসিবি পরিচালক ও ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস) যুক্তরাজ্য থেকে ফেরার আগে দল ঘোষণা করার সম্ভাবনা খুব কম। তিনি দেশে ফেরার পরই (বর্তমানে তিনি স্কটল্যান্ডে অবস্থান করছেন, ফিরবেন ২৭ মে) দল ঘোষণা করা হবে।

এদিকে নির্বাচকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তারা আগে একটি প্রাথমিক দল ঘোষণা করবেন। সেখান থেকে টেস্ট স্কোয়াড বেছে নেয়া হবে। এখন সে দলে ৪/৫ জন বাড়তি ক্রিকেটারের থাকার সম্ভাবনা আছে।

তার কারণও আছে, প্রাথমিক দলে ডাক পাওয়া বেশ কয়েকজন পারফরমার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিলেটে ৪ দিনের ম্যাচ খেলায় ব্যস্ত থাকবেন। নির্বাচকদের সূত্র নিশ্চিত করেছে, শেষ ৪ দিনের ম্যাচে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে মুমিনুল হক, শরিফুল আর ইয়াসির আলী রাব্বিকে খেলানো হবে। তার মানে, তারা ২৯ মে থেকে অনুশীলনে যোগ দিতে পারবেন না। ৩০ মে থেকে শুরু হতে যাওয়া ৪ দিনের খেলা শেষ করে তারপর জাতীয় দলের প্র্যাকটিসে এসে যোগ দেবেন।

এদিকে ধরেই নেয়া হচ্ছে ডান হাতের আঙ্গুল ফ্র্যাকশ্চার হওয়া অধিনায়ক সাকিব আল হাসান আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচ খেলতে পারবেন না। সাকিবের পরিবর্তে কে অধিনায়কত্ব করবেন? তা নিয়েও রাজ্যের জল্পনা-কল্পনা।

জানা গেছে, লিটন দাস আর মেহেদি হাসান মিরাজের কাউকে হয়তো ক্যাপ্টেন্সি করতে দেখা যাবে। সেই ৪-৮ এপ্রিলের শেরে বাংলায় আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে সর্বশেষ খেলতে নেমেছিলো। এর ২ মাস ১০ দিন পর আবার আফগানদের বিপক্ষে টেস্ট।

এ সময়ে যেহেতু খেলা হয়নি, খুব স্বাভাবিকভাবেই সর্বশেষ টেস্ট দল বহাল রাখার সম্ভাবনা খুব বেশি। তবে আইরিশদের বিপক্ষে টেস্ট স্কোয়াড থেকে একজন আপনা-আপনি বাদ যাবেন, তিনি সাকিব আল হাসান। নির্বাচকরাও ধরে নিয়েছেন, সাকিবের পক্ষে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট খেলা সম্ভব হবে না।

প্রধান নির্বাচক জানালেন, ‘৬ সপ্তাহের পরিপূর্ণ বিশ্রাম। তাই সাকিবকে টেস্টে পাওয়া যাবে না। অধিনায়ককে বাইরে রেখেই দল সাজাতে হবে।’

এখন সাকিব মানেই- টু ইন ওয়ান। তার বিকল্প নেই। তবে একজন সাকিবের পরিবর্তে দু’জন পারফরমার প্রয়োজন। মানে একজন ব্যাটার, অন্যজন বোলার। এখন সাকিবের বদলে কোন দু’জন দলে অন্তর্ভুক্ত হবেন সেটাই দেখার।

যতদুর জানা গেছে বাড়তি ব্যাটার হিসেবে জাকির হাসান, সাইফ হাসান ও ইয়াসির আলী রাব্বির দিকে চোখ নির্বাচকদের। তাদের যে কোনো একজনকে বেছে নেয়া হবে টেস্ট দলে। আর স্পিনার সাকিবের সম্ভাব্য বিকল্প হিসেবে তাইজুলের সাথে আরও একজন বাড়তি বাঁ-হাতি স্পিনারের অন্তর্ভুক্তির সম্ভাবনা খুব বেশি।

এমনিতে তামিম, লিটন দাস, সাদমান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল, তাসকিন, খালেদ, এবাদত, শরিফুল ও মাহমুদুল হাসান জয় ছিলেন সর্বশেষ স্কোয়াডে। এখন দেখার বিষয় হলো তাদের সাথে কারা অন্তর্ভুক্ত হন এবার?

(ওএস/এসপি/মে ২৪, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

১৩ জুন ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test