E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

ওয়ালটন পণ্য রপ্তানি তালিকায় এবার যুক্ত হলো উগান্ডা

২০১৮ জুলাই ৩১ ১৭:২৪:৪৮
ওয়ালটন পণ্য রপ্তানি তালিকায় এবার যুক্ত হলো উগান্ডা

স্টাফ রিপোর্টার : ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল এবং আইসিটি পণ্যের পর এবার গৃহস্থালী পণ্য রপ্তানিতে নতুন আরেকটি মাইলফলক স্থাপন করলো ওয়ালটন। ওয়ালটনের তৈরি ব্লেন্ডার ও ব্লেন্ডার তৈরির খুচরা যন্ত্রাংশ রপ্তানি শুরু হলো পূর্ব আফ্রিকার দেশ উগান্ডায়। পর্যায়ক্রমে দেশটিতে রপ্তানি হবে রাইস কুকার, গ্যাস স্টোভসহ বিভিন্ন হোম অ্যাপ্লায়েন্স বা গৃহস্থালী পণ্য।

মঙ্গলবার (৩১ জুলাই, ২০১৮) ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগযুক্ত ওয়ালটন ব্লেন্ডার ও ব্লেন্ডারের খুচরা যন্ত্রাংশ নিয়ে উগান্ডার উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেল কন্টেইনারবাহী জাহাজ। উচ্চমানের এই ব্লেন্ডার এবং এর খুচরা যন্ত্রাংশ তৈরি হয়েছে গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন মাইক্রো-টেক করপোরেশনে। এর ফলে আফ্রিকায় বাংলাদেশি পণ্যের বাজার সম্প্রসারণে আরেকটি মাইলফলক অর্জিত হয়েছে বলে মনে করছেন এ খাতের উদ্যোক্তারা।

উল্লেখ্য, আফ্রিকার বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ নাইজেরিয়ায় আগে থেকেই রপ্তানি হচ্ছে ওয়ালটন ফ্রিজ, এয়ারকন্ডিশনার, ল্যাপটপসহ অন্যান্য পণ্য। এর আগে আফ্রিকার সুদানেও গেছে ওয়ালটন পণ্য। এবার এই তালিকায় যুক্ত হলো উগান্ডা। আফ্রিকার এসব দেশে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের পণ্য রপ্তানির মাধ্যমে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের সুনাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। ব্র্যান্ডিং হচ্ছে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ পণ্যের।

জানা গেছে, উগান্ডায় ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্স পণ্যের পরিবেশক ‘দি তামালেস’। দেশটির রাজধানী কামপালায় প্রতিষ্ঠানটির কার্যালয়। ভিন্ন ভিন্ন সেলস নেটওয়ার্কের মাধ্যমে উগান্ডায় বিভিন্ন ধরনের গৃহস্থালী পণ্য বিক্রি ও সেবা দিচ্ছে ‘দি তামালেস’।

পূর্ব আফ্রিকার একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশ হচ্ছে উগান্ডা। উন্নয়নশীল দেশটি ধীরে ধীরে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হয়ে উঠছে। সেখানে রয়েছে ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল ও হোম অ্যাপ্লায়েন্স পণ্যের বিশাল বাজার। বিশেষ করে বাংলাদেশে তৈরি হোম অ্যাপ্লায়েন্স উগান্ডার ক্রেতাদের মন জয় করতে সক্ষম হয়েছে। যে কারণে সম্পূর্ণ তৈরি ব্লেন্ডারের পাশাপাশি বাংলাদেশ থেকে এর খুচরা যন্ত্রাংশও আমদানি করছে উগান্ডা। দামে সাশ্রয়ী ও মানে সেরা হওয়ায় প্রতিদ্বন্দ্বী অন্যান্য ব্র্যান্ডের চেয়ে বাংলাদেশের ওয়ালটনকেই প্রাধান্য দিচ্ছেন উগান্ডার ব্যবসায়ীরা।

ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়ান্সের আন্তর্জাতিক বিপণন বিভাগের ফার্স্ট সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর ফয়সাল আহমেদ জানান, উগান্ডায় এর আগে ওয়ালটনের তৈরি হোম অ্যাপ্লায়েন্স পণ্যের স্যাম্পল বা নমুনা পাঠানো হয়েছিল। বাংলাদেশে তৈরি এসব গৃহস্থালী পণ্যের উচ্চমানে তারা খুবই সন্তুষ্ট। ল্যাব টেস্টের পর ওয়ালটনের তৈরি হোম অ্যাপ্লায়েন্স আমদানিতে উগান্ডা ন্যাশনাল ব্যুরো অব স্ট্যান্ডার্ডস অনুমোদন দিয়েছে। তাদের মতে বাংলাদেশে তৈরি এসব পণ্য আফ্রিকা মহাদেশের আবহাওয়া উপযোগী। পণ্যগুলোর ডিজাইন, কোয়ালিটি, ডিওরেবিলিটি (দীর্ঘস্থায়িত্বতা) এবং বিভিন্ন আকর্ষণীয় ফিচার অন্যান্য দেশের প্রোডাক্টের চেয়ে অনেক উন্নত এবং দামে সাশ্রয়ী। যে কারণে তারা তৈরি পণ্যের পাশাপাশি স্পেয়ার পার্টসও আমদানি করছে।

তিনি বলেন, উগান্ডায় হোম অ্যাপ্লায়েন্স রপ্তানির মাধ্যমে আফ্রিকার বিশাল সম্ভাবনাময় বাজার দখলে একটি গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে পৌঁছলো বাংলাদেশী ব্র্যান্ড ওয়ালটন। আফ্রিকার বাজারে ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্স রপ্তানির শুভসূচনা ঘটলো। এরফলে দেশের চাহিদা মিটিয়ে উগান্ডাসহ আফ্রিকা মহাদেশের বিভিন্ন দেশে হোম অ্যাপ্লায়েন্স এবং অন্যান্য পণ্য রপ্তানি আরও সহজ হবে। ইতোমধ্যেই কেনিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ঘানা, সোমালিয়ার বায়াররাও বাংলাদেশ থেকে হোম অ্যাপ্লায়েন্স আমদানিতে আগ্রহ দেখিয়েছে।
ওয়ালটনের ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম বলেন, উগান্ডায় হোম অ্যাপ্লায়েন্স রপ্তানির মাধ্যমে আফ্রিকার সম্ভাবনাময় বাজার দখলে আরেকধাপ এগিয়ে গেল ওয়ালটন। যা বাংলাদেশি উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করবে। উচ্চ গুণগতমানের পণ্য উৎপাদন ও বিপণনে দেশের বাজারে ওয়ালটন যেমন শীর্ষে রয়েছে, তেমনি ভবিষ্যতে উগান্ডাসহ আফ্রিকার বাজারেও শক্তিশালী অবস্থানে পৌঁছতে সক্ষম হবে ওয়ালটন।

ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্সসের প্রধান সমন্বয়ক মো. আতিকুল ইসলাম জানান, দেশের বাজারে ওয়ালটনের তৈরি হোম অ্যাপ্লায়েন্সের চাহিদা বেড়েছে ব্যাপকহারে। আসন্ন কোরবানির ঈদ উপলক্ষ্যে ২ শতাধিক মডেলের হোম অ্যাপ্লায়েন্স বাজারে ছাড়ছে ওয়ালটন। যার মধ্যে রয়েছে এয়ার কুলার, এয়ার ফ্রাইয়ার, ওয়াশিং মেশিন, ক্লোথ ড্রাইয়ার, ব্লেন্ডার ও জুসার, রাইস কুকার, মাইক্রোওয়েভ ও ইলেকট্রিক ওভেন, ইলেকট্রিক ট্রিমার, ডিস ওয়াসার, ফুড প্রসেসর, রুটি মেকার, গ্যাস স্টোভ, হেয়ার ড্রাইয়ার, ইন্ডাকশন কুকার, প্রেসার কুকার, সেলাই মেশিন, আয়রন, ইলেকট্রিক কেটলি, লাঞ্চ বক্স, মাল্টি কুকার, কিচেন কুকওয়্যার, ভ্যাকুয়াম ফ্ল্যাক্স, ওয়াটার পিউরিফায়ার ও ডিসপেনসার, মপ সেট, ওজন মাপার যন্ত্র ইত্যাদি।

(পিআর/এসপি/জুলাই ৩১, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test