E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

‘আমেরিকায় এবার একজন মহিলা প্রেসিডেন্ট হবে’

২০২৪ ফেব্রুয়ারি ২১ ১৬:২০:৩৮
‘আমেরিকায় এবার একজন মহিলা প্রেসিডেন্ট হবে’

শিতাংশু গুহ


২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ সাউথ ক্যারোলিনায় রিপাবলিকান প্রাইমারি। ট্রাম্প তার নিকটতম প্রতিদ্ধন্ধী নিকি হেলি থেকে ৩৫%-এ এগিয়ে। হেলি বলছেন, বাইডেনের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের জয়ের কোন সম্ভবনা নেই, তাই তিনি (নিকি নিজেই) রিপাবলিকান দলীয় প্রার্থী হওয়া উচিত। নিকি আরো বলেছেন, এবার যুক্তরাষ্ট্রে একজন মহিলা প্রেসিডেন্ট হবেন, সেটা তিনি নিজে অথবা কমলা হ্যারিস। হেলি আশা করছেন ট্রাম্প হয়তো কোন না কোন ভাবে নির্বাচন করতে পারবেন না, সুতরাং তিনি হবেন দলীয় প্রার্থী, তিনি জিতবেন। তাঁর ভাষ্যমতে ট্রাম্প প্রার্থী হলে বাইডেন জয়ী হবেন এবং হয়তো বার্ধক্যঃজ্বনিত কারণে মারা গেলে কমলা হ্যারিস পদাধিকার বলে প্রেসিডেন্ট হবেন? 

আমেরিকান-বাংলাদেশী ভোটাররা বাইডেন না ট্রাম্পের সমর্থক? ২০২০’র নির্বাচনে বাংলাদেশের হিন্দুরা অধিকাংশ ট্রাম্পকে সমর্থন দিয়েছেন এবং বেশিরভাগ মুসলমান বাইডেনকে ভোট দিয়েছেন। এবার পরিস্থিতি একটু ভিন্ন, মুসলমানরা বিপাকে, কাকে ভোট দেবেন? ট্রাম্পকে ‘এন্টি-মুসলমান’ আখ্যায়িত করে ২০২০-তে মুসলমানরা বাইডেনের পক্ষে ছিলেন। এবার গাজায় যুদ্ধের কারণে মুসলমানরা বাইডেনের বিরুদ্ধে। তারা মনে করছেন, বাইডেন ইসরাইলের পক্ষে এবং যুদ্ধ থামাচ্ছেন না? চূড়ান্ত কথা বলার সময় অবশ্য এখনো আসেনি। তবে হিন্দুরা আগের মতোই ট্রাম্পের পক্ষে।

একজন কামাল হাসান মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে ভীষণ চিন্তাগ্রস্থ। গতবার তিনি বাইডেনকে ভোট দিয়েছেন। এবার তিনি ইতস্ততঃ, করছেন। ট্রাম্পকে ভোট দেয়া যায়না? আবার বাইডেনকে ভোট দিলে একজন ভারতীয় ‘কমলা হ্যারিস’ নিশ্চিত প্রেসিডেন্ট হবেন, তাই তাকেও ভোট দেয়া যায়না। ভারতীয় বংশোদ্ভূত কেউ মার্কিন প্রেসিডেন্ট হোক তা তিনি মেনে নিতে পারছেন না? একই কারণে নিকি হেলি তার বেজায় অ-পছন্দ। মাঝে-মধ্যে মিডিয়ায় জল্পনা হয় যে, ট্রাম্প তার রানিং-মেট হিসাবে বিবেক রামস্বামীকে নিচ্ছেন? এতে কামাল হাসানের মত বাংলাদেশী ভোটারদের অবস্থা কাহিল?

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বাংলাদেশী ভোটের তেমন গুরুত্ব নেই, তবু হিন্দু ও মুসলমানরা দুই শিবিরে বিভক্ত। ভারতীয়দের জন্যে সম্ভবত: এটি প্রযোজ্য নয়? এদেশে জন্ম নেয়া বাংলাদেশী তরুণ প্রজন্মের জন্যেও হয়তো এটি সত্য নয়? ইমিগ্র্যান্ট হয়ে আসা বাংলাদেশী ভোটার সবকিছু বাংলাদেশী এঙ্গেলে চিন্তা করে! হিন্দুরা ট্রাম্পকে সমর্থন করে যেহেতু মুসলমানরা বাইডেনকে সমর্থন করে? আমার ধারণা, হিন্দুদের চিন্তা হচ্ছে দেশে তাঁরা মুসলমান দ্বারা নির্যাতিত, যেহেতু ট্রাম্প কিছুটা মুসলমানের বিপক্ষে, তাই তাঁরা ট্রাম্পের সমর্থক।

মুসলমানরা সবকিছু ধর্মীয় এঙ্গেল থেকে ভাবে? বাইডেন বা ট্রাম্প যিনিই কিছুটা মুসলমানের পক্ষে তারা তাকেই ভোট দেবেন। আল-গোর তার রানিং-মেট নিয়েছিলেন একজন ইহুদি সিনেটর জোসেফ লিবারম্যানকে, মুসলমানরা তাকে ভোট দেয়নি। বুশ জিতেছিলেন। ওবামাকে মুসলমানরা ভোট দিয়েছিলেন, তার নামের মধ্যখানে ‘হুসেইন’ আছে বলে? হেকিম জেফরি এ মুহূর্তে কংগ্রেসে ডেমক্রেট দলের প্রধান। কংগ্রেসে একজন মুসলমান এতবড় পদে অধিষ্ঠিত হওয়ায় বাংলাদেশী মুসলমানরা খুশি হয়! নিউইয়র্কে তার এক সভায় এজন্যে ঘোষণা দিতে হয় যে, তিনি খৃষ্টান, মুসলমান নন।

সুতরাং, নিকি হেলি বা কমলা হ্যারিস- বাংলাদেশী মুসলমানের ভোট আপনারা পাচ্ছেন না! এখানে বাংলাদেশী হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে একটু মিল আছে, যদিও কারণ ভিন্ন, সেটি হচ্ছে, নিকি হেলি বা কমলা হ্যারিস হিন্দুদের ভোটও পাচ্ছেন না? কমলা হ্যারিস ভারতীয় হিন্দু হলেও রাজনীতিগত কারণে ইন্ডিয়ার পক্ষে নন? নিকি হেলি শিখ হলেও কতটা ইন্ডিয়ান বলা শক্ত। আসলে আমরা ওদের ভারতীয়, হিন্দু, শিখ ইত্যাদি ভাবলেও ওরা আগাগোড়া আমেরিকান। যেমন বৃটীশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক। লন্ডন মেয়র সাদিক খান কতটা পাকিস্তানী বা কতটা মুসলমান? ওরা বৃটিশ।

লেখক : আমেরিকা প্রবাসী।

পাঠকের মতামত:

১৮ এপ্রিল ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test