Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

সিনেমার লোভ দেখিয়ে বিছানায় নিতে চেয়েছিলেন পরিচালক

২০১৮ অক্টোবর ১৪ ১৫:০৯:৫৬
সিনেমার লোভ দেখিয়ে বিছানায় নিতে চেয়েছিলেন পরিচালক

বিনোদন ডেস্ক : বলিউড উত্তাল #me too ঝড়ে। একের পর এক জনপ্রিয় নাম উঠে আসছে কাজের বিনিময়ে নারীদের ভোগ করতে চাওয়ার অভিযোগ। অমিতাভ বচ্চনের নামও এসেছে যৌন হেনস্তার দায়ে। তবে এইসব অভিযোগে অনেক আগে থেকেই অভ্যস্ত বর্ষীয়ান পরিচালক সুভাষ ঘাই।

বেশ কয়েকজন অভিনেত্রীই এই নির্মাতার বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনেছেন। এবার সেই অভিযোগপত্র দায়ের করেছেন ছোটপর্দার অভিনেতা ও মডেল কেট শর্মা।

অভিযোগ দায়েরের পর গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন কেট। তার অভিযোগ, সুভাষ ঘাই তাকে একা পেয়ে জোর করে জড়িয়ে ধরে চুমুর চেষ্টা করেছিলেন। তাকে সিনেমায় নেবেন বলে বিছানায় যেতে বলেছিলেন। কেট রাজি না হলে সুভাষ তাকে কাজও দেবেন না বলে হুমকি দিয়েছিলেন।

কেটের ভাষ্য, ‘চলতি বছরের ৬ আগস্ট তিনি আমাকে তার ব্যক্তিগত ঘরে ডেকেছিলেন। পাঁচ-ছয়জন লোকও ছিল তার ঘরে। সবার সামনেই তিনি আমাকে ম্যাসাজ করতে বলেন। এটা আমার জন্য বিশ্রী ছিল, কিন্তু জ্যেষ্ঠ হিসেবে আমি তাকে সম্মান দেখিয়েছিলাম। ম্যাসাজ করার পর আমি ওয়াশরুমে হাত ধুতে যাই। তিনি পেছন পেছন সেখানে যান। তারপর আমার সঙ্গে কিছু কথা আছে বলে তার কক্ষে নিয়ে যান। যাহোক, তিনি আমাকে ধরে আলিঙ্গন ও চুমুর চেষ্টা করেন। তিনি আমাকে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেন। আমি রাজি না হলে জোর করেন।’

তাতেও রাজি না হওয়ায় কেট শর্মাকে ছবিতে নেবেন না বলে হুমকি দেন সুভাষ ঘাই। কেট বলেন, ‘তিনি সরাসরি বলে দেন যে যদি আমি তার সঙ্গে রাত না কাটাই, তবে তিনি আমাকে অভিষেক করাবেন না।’

এর আগে গত বৃহস্পতিবার মহিমা কুকরেজা নামের এক টুইটার ব্যবহারকারী নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নারীর উদ্ধৃতি দিয়ে সুভাষ ঘাইয়ের বিরুদ্ধে যৌন অসদাচরণের অভিযোগ আনেন। ওই নারীর অভিযোগ, ঘাই তাকে আপত্তিকরভাবে ছোঁয়ার চেষ্টা করেছিলেন। পরে তাকে নিজের মদ খেতে দেন। ওই নারী আরো বলেন, এরপর ঘাইয়ের জন্য সর্বদা সংরক্ষিত এক হোটেলে তাকে নিয়ে যান ও সেখানে ধর্ষণ করেন।

তবে পরিচালক সুভাষ ঘাই তার বিরুদ্ধে আনীত সব অভিযোগ নাকচ করেছেন। এক বিবৃতিতে ৭৩ বছর বয়সী সুভাষ ঘাই বলেন, “কোনো সত্য বা অর্ধসত্য ছাড়াই অতীতের গল্প টেনে’ এনে সুপরিচিত কারো বিরুদ্ধে কুৎসা রটানো ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে। ‘নিশ্চিতভাবে এ ধরনের মিথ্যা অভিযোগ আমি প্রত্যাখ্যান করছি।’’

(ওএস/এসপি/অক্টোবর ১৪, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৯ এপ্রিল ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test