E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

স্বামীকে মারধরের কথা অস্বীকার করলেন সানাই

২০২৩ জুন ০২ ১৮:৫৮:৩৫
স্বামীকে মারধরের কথা অস্বীকার করলেন সানাই

বিনোদন ডেস্ক : বহুল আলোচিত-সমালোচিত মডেল ও অভিনেত্রী সানাই মাহবুব। অনেকটা চুপিসারেই ব্যাংকার আবু সালেহ মুসার সঙ্গে ঘর বেঁধেছেন তিনি। কিন্তু দাম্পত্য জীবন ভালো যাচ্ছে না এই যুগলের।

গত কয়েকদিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দাম্পত্য সমস্যা ও বিচ্ছেদ নিয়ে আলোচনায়-সমালোচনা চলেছে। বিচ্ছেদের পথে হাঁটছেন তারা। সম্প্রতি তার স্বামী আবু সালেহ মুসা গণমাধ্যমে অভিযোগ করেন, তাকে মারধর করেছেন সানাই। এতে তার কিডনিতে সমস্যা হয়েছে।

এ নিয়ে আজ শুক্রবার (২ জুন) ফেসবুকেও নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন সানাই মাহবুব। তার দাবি, আবু সালেহ মুসার এসব অভিযোগ সত্যি নয়। স্বামীকে মারার কথা অস্বীকার করলেন সানাই মাহবুব।

সানাই মাহবুব তার ফেসবুকে স্ট্যাটাসে বলেন, পেজ হ্যাক হওয়ার কারণে আমি অ্যাকসেস পাচ্ছিলাম না। আর ওইদিকে আমাকে নিয়ে উল্টা-পাল্টা নিউজ হচ্ছে। আচ্ছা, সাংবাদিক ভাইয়ারা আপনাদের কাছে তো আমার নাম্বার আছে, নিউজের আগে কি আপনারা একটাবার আমাকে ফোন করার প্রয়োজন মনে করেন নি?’

স্বামীকে মারধরের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে সানাই মাহবুব বলেন, আমি কোন দুঃখে আমার স্বামীকে মারতে যাব? আর কিডনি ড্যামেজ করে দিছি, মানে কি? আপনারা সবাই মিলে আসেন পপুলার কিংবা ল্যাবএইড গিয়ে আমার স্বামীর কিডনি পরীক্ষা করে দেখি, রিপোর্ট কি আসে। তাৎতক্ষণিকভাবে প্রমাণ হবে কিডনি ঠিক আছে কি না।’

সাংবাদিকদের প্রতি প্রশ্ন রেখে সানাই মাহবুব বলেন, ‘এসব আশ্চর্যজনক নিউজ আপনারা কিসের ভিত্তিতে করেন? আপনারা আসেন না ভাই, ওকে নিয়ে পপুলার বা ল্যাবএইডে গিয়ে একটা টেস্ট করাই, তারপর না হয় রিপোর্টের ছবি দিয়ে নিউজ করলেন।’

রিপোর্ট ভুয়া বানানো যায়। তা উল্লেখ করে সানাই মাহবুব বলেন, ‘রিপোর্ট তো ভুয়া বানানো যায়। কারণ আমার স্বামীর পরিচিত ডাক্তার আছে ডজন ডজন। তাই তার কিডনির পরীক্ষা আপনাদের উপস্থিতিতে ফেসবুক লাইভে থেকে করা হবে। দেখি কি রিপোর্ট আসে।’

চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে সানাই মাহবুব বলেন, ‘আমার সৎ সাহস আছে, আমি ওপেন চ্যালেঞ্জ করতেছি, চলেন ওকে নিয়ে পপুলার কিংবা ল্যাবএইডে যাই কিংবা এভার কেয়ারে কিংবা অন্য কোনো হাসপাতালে যাই। প্রমাণ চলে আসবে, আপনারা সবাই আসেন।’

(ওএস/এসপি/জুন ০২, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২২ জুন ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test