E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

শিরোনাম:

সাংবাদিক আরিফুলকে ব্যক্তিগতভাবে হাইকোর্টে আবেদনের নির্দেশ

২০২০ মার্চ ২৩ ১৪:২৪:০৬
সাংবাদিক আরিফুলকে ব্যক্তিগতভাবে হাইকোর্টে আবেদনের নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার : অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে মধ্যরাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে দণ্ড দেয়া সংক্রান্ত ঘটনায় ওই সাংবাদিককে ব্যক্তিগতভাবে হাইকোর্টে আবেদন করতে বলা হয়েছে। হাইকোর্টের বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ থেকে এ নির্দেশ দেয়া হয়েছে। দুপুর ২টায় এ বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

ওই ঘটনায় গত ১৫ মার্চ বাংলা ট্রিবিউনের নির্বাহী সম্পাদক হারুন উর রশীদ জনস্বার্থে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট আবেদন করেছিলেন।

এর আগে গত ১৬ মার্চ সাংবাদিককে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কারাদণ্ড দেয়া সংক্রান্ত সাজার সব নথি তলব করেছিলেন হাইকোর্ট। ওই দিন মামলা সংক্রান্ত সকল নথি আজকের (২৩ মার্চের) মধ্যে দাখিলের নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গত ১৩ মার্চ মধ্যরাতে বাড়িতে হানা দিয়ে মারধর করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামকে। তার বাসায় আধা বোতল মদ ও দেড়শ গ্রাম গাঁজা পাওয়া গেছে বলে দাবি করা হয়। এরপর গভীর রাতে জেলা প্রশাসকের অফিসে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে এক বছরের দণ্ড দিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

আরিফের স্ত্রী দাবি করেন, মধ্যরাতে কিছু আগন্তুক তাদের বাসায় এসে দরজা ধাক্কাতে থাকেন ও দরজা খুলতে বলেন। আরিফ তাদের পরিচয় জানতে চাইলে তারা পরিচয় দেননি। এরপর আরিফ কুড়িগ্রাম থানায় যোগাযোগ করলে থানা কর্তৃপক্ষ তার বাসায় কোনো অভিযান চালানো হয়নি বলে নিশ্চিত করে।

এরমধ্যেই আগন্তুকরা দরজা ভেঙে তার বাসায় প্রবেশ করে। তবে তারা কোনো তল্লাশি অভিযান চালায়নি। আরিফের স্ত্রীর দাবি, আগন্তুকরা ছিল ৬ থেকে ৭ জন। সবাই সশস্ত্র ছিল। তাদের সঙ্গে ১৫-১৬ জন আনসার সদস্য ছিল।

তারা বাসায় ঢুকেই কোনো কারণ না জানিয়ে আরিফকে মারতে মারতে তুলে নিয়ে যায়। কয়েকবার গুলি করার হুমকিও দেয় তারা। এর এক ঘণ্টা পর থানা পুলিশ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে তাকে খুঁজে পায়। সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আরিফকে এক বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

(ওএস/এসপি/মার্চ ২৩, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

০৮ এপ্রিল ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test