E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

কলাপাড়ায় হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ১০ জন কারাগারে

২০১৪ আগস্ট ২৬ ১৭:৩০:৫১
কলাপাড়ায় হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ১০ জন কারাগারে

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : কৃষক আব্দুল কাদের হাওলাদার (৬৫) হত্যা মামলায় কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা আবদুল মোতালেব তালুকদারসহ ১০ জনকে আদালত জেল হাজতে পাঠিয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে আসামীরা আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে কলাপাড়া উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট স্বপন কুমার দাস এ আদেশ দেন। অন্য আসামীরা হলেন, এ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান চুন্নু তালুকদার, মামুন তালুকদার, মিলন তালুকদার, শামু তালুকদার, সেলিম তালুকদার, আলাউদ্দিন তালুকদার, রাজ তালুকদার, জুলিয়াত তালুকদার ও শিক্ষক কাদের তালুকদার।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২ জুলাই রাতে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার চাকামইয়া ইউনিয়নের নিশান বাড়িয়া গ্রামের কৃষক আবদুল কাদের খুন হয়। পুলিশ ওই রাতে একটি খাল থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় নিহতের ভাই মোখলেসুর রহমান ৪ জুলাই উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব তালুকদারসহ ৪৯ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৬০জনকে আসামী করে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা করেন। মামলায় বলা হয় উপজেলা চেয়ারম্যানের বাসায় বসে এ হত্যা মামলার পরিকল্পনা করা হয়।

উপজেলা চেয়ারম্যানসহ অন্যরা উচ্চ আদালত থেকে চার সপ্তাহের আগাম জামিন নেন। কিন্তু তাদের জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর মঙ্গলবার তারা আদালতে আত্মসমর্পন করলে আদালতে সবাইকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

এ ব্যাপারে আসামী পক্ষের প্রধান কৌশলী এ্যাড.সাইদুর রহমান সাইদ জানান, তারা উচ্চ আদালতে আপিল করবেন। অপরদিকে বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাড. আবদুর সত্তার হাওলাদার জানান, আদালতের আদেশে তারা খুশি। তারা এ মামলায় সঠিক বিচার পাবেন বলে আশা করছেন।

উল্লেখ্য,মাছের ঘেরসহ বিরোধীয় জমির দখল নিয়ে গত ২৬ জুন মোখলেসুর রহমান হাওলাদার ও বজলুর রহমান তালুকদার গ্রুপের সশস্ত্র সংঘাত হয়। ওই সময় বজলুর রহমানের ছেলে সালাহউদ্দিন তালুকদারের পায়ের রগ কেটে দেয়া হয়। অপরদিকে মোখলেসুর রহমানের ভাই মোখতার হোসেন হাওলাদার গুরুতর জখম হয়। এসময় উভয় পক্ষের অন্তত আরও আটজন জখম হয়। এ ঘটনার সাতদিন পর খুন হয় কৃষক কাদের হাওলাদার।

(এমকেআর/এএস/আগস্ট ২৬, ২০১৪)

পাঠকের মতামত:

৩০ জুন ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test