E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

রাফায়েল বিমান দুর্নীতি নিয়ে আজ রাজভবন অভিযান করে ত্রিপুরা যুব কংগ্রেস 

২০১৮ সেপ্টেম্বর ২০ ১৯:২৫:৫৯
রাফায়েল বিমান দুর্নীতি নিয়ে আজ রাজভবন অভিযান করে ত্রিপুরা যুব কংগ্রেস 

প্রসেনজিত্‍ দাস, আগরতলার প্রতিনিধি : মোদী সরকারের রাফায়েল বিমান দুর্নিতি নিয়ে আজ রাজভবন অভিযান করে ত্রিপুরা প্রদেশ যুব কংগ্রেস। আগরতলা কংগ্রেস ভবন থেকে দুপুর ১ টায়  শুরু হয় সুবিশাল মিছিল, আগরতলা শহর কাপিয়ে মিছিল আস্তাবল ময়দান দিয়ে রাজভবনের সামনে গিয়ে জমায়েতে মিলিত হয়, শেষে সেখানে বক্তব্য রাখেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি, যুব কংগ্রেস সভাপতি সহ দিল্লী থেকে আসা সর্ব ভারতীয় যুব কংগ্রেস সভাপতি কেশব চন্দ্র যাদব, সহ সভাপতি  শ্রীনিবাস প্রমুখ । বক্তব্য রাখতে গিয়ে   সর্ব ভারতীয় যুব কংগ্রেস সভাপতি কেশব চন্দ্র যাদব বলেন মোদী সরকার

নির্বাচনী তহবিল বাড়তে রাফায়েল চুক্তি অনিল আম্বানির নবগঠিত সংস্থা বরাত করে দিয়েছে । এই রাফায়েল চুক্তি দেশে শতাব্দির সর্ববৃহত্‍ দুর্নীতি। তাঁর কথায়, ২০১৯ নির্বাচনে রাফায়েল দুর্নীতিই হবে বিজেপি এবং মোদি সরকারের বিরুদ্ধে কংগ্রেসের অন্যতম হাতিয়ার।

এদিন তিনি বলেন, ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের আগে নরেন্দ্র মোদি নির্বাচনী প্রচারে ঘোষণা দিয়েছিলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি নেবে তাঁর সরকার। কিন্তু, দুর্ভাগ্যের বিষয় হলো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধেই দেশের সর্ববৃহত্‍ দুর্নীতি নিয়ে সোচ্চার হতে হচ্ছে।

তাঁর দাবি, রাফায়েল যুদ্ধ বিমান ক্রয়ে ভারতের ৪১ হাজার ২০৫ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। কারণ, ইউপিএ আমলে প্রতি যুদ্ধ বিমান ৫২৬ কোটি ১০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ক্রয়ের সিদ্ধান্ত হয়েছিল। ইউপিএ সরকার ফ্রান্স থেকে ১২৬টি যুদ্ধ বিমান ক্রয় করবে বলে স্থির করেছিল।

কিন্তু, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মাত্র ৩৬টি রাফায়েল যুদ্ধ বিমান ৬০ হাজার ১৪৫ কোটি টাকার বিনিময়ে ক্রয়ে ফ্রান্স সরকারের সাথে চুক্তি করেছেন। জানতে চেয়েছেন, কেন দেশের অর্থের ৪১ হাজার ২০৫ কোটি টাকা অতিরিক্ত খরচ করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি? এদিন তিনি হিন্দুস্থান এরোনেটিক্স লিঃ মিঃ বদলে প্রতিরক্ষা চুক্তিতে অনিল আম্বানির সংস্থাকে বরাত দেওয়া নিয়েও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কাঠগড়ায় তুলেছেন।

তাঁর দাবি, বিজেপির নির্বাচনী তহবিল বাড়ানোর উদ্দেশ্যেই রাফায়েল চুক্তিতে অনিল আম্বনির সংস্থাকে বরাত দেওয়া হয়েছে। সর্ব ভারতীয় যুব কংগ্রেস সভাপতি কেশব চন্দ্র যাদবের আরও অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দুর্নীতির কলঙ্ক থেকে বাঁচাতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী নির্মলা সীতারমন মদত দিচ্ছেন। তাই রাফায়েল যুদ্ধ বিমানের দাম বলতে চাইছে না কেন্দ্রীয় সরকার। জাতীয় নিরাপত্তার যুক্তি দেখিয়ে রাফায়েল বিমানের দাম বলা যাবে না দাবি করছে কেন্দ্রীয় সরকার।

এ বিষয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সর্ব ভারতীয় যুব কংগ্রেসের সহ সভপতি শ্রীনিবাস কটাক্ষ করে বলেন, ফ্রান্স সরকার ইতিমধ্যে বিবৃতি দিয়ে রাফায়েল যুদ্ধ বিমানের দাম ঘোষণা দিয়েছে। রাফায়েল যুদ্ধ বিমান নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের ভূমিকা সন্দেহজনক দাবি করে কংগ্রেস দুর্নীতি ইস্যুতে সাড়া দেশব্যাপী মোদি সরকারকে ক্রমাগত নিশানা করবে বলে জানিয়েছেন সর্ব ভারতীয় যুব কংগ্রেস সভাপতি কেশব চন্দ্র যাদব, আজকের রাজভবন অভিযানে ছিলেন সর্ব ভারতীয় যুব কংগ্রেস সহ সভাপতি শ্রীনিবাস, ত্রিপুরা রাজ্য প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বিরজীত সিংহা, প্রাত্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি গোপাল চন্দ্র রায়, যুব কংগ্রেস সভাপতি, সাধারন সম্পাদক, এন এস ইউ আই এর সভাপতি সহ অনেক রাজ্য নেতৃত্ব।

(পিডি/এসপি/সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৬ অক্টোবর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test