E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

‘চীনের পুতুল’ বর্মী জান্তা পশ্চিমের ‘আস্থা জিততে’ নামাল লবিস্ট

২০২১ মার্চ ০৭ ১৭:৩৪:২৩
‘চীনের পুতুল’ বর্মী জান্তা পশ্চিমের ‘আস্থা জিততে’ নামাল লবিস্ট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মিয়ানমারের সামরিক জান্তা সরকার একজন লবিস্ট নিয়োগ দিয়েছে। সেই লবিস্ট জানান, অভ্যুত্থানের পর সেনাবাহিনীর জেনারেলরা রাজনীতি ছাড়তে আগ্রহী। এছাড়া চীনের সঙ্গে দূরত্ব বৃদ্ধির পাশাপাশি তারা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়ন করতে চান। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ খবর জানা গেছে।

ইসরায়েলি-কানাডিয়ান এই লবিস্টের নাম আরি বেন-মানাশে যিনি ইসরায়েলি সামরিক ইন্টেলিজেন্সে কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করেছেন। এছাড়া জিম্বাবুয়ের সাবেক প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে ও সুদানের সামরিক শাসকদের লবিস্ট হিসেবেও কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার।

টেলিফোনে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে রয়টার্সকে বেন-মানাশে বলেন, মিয়ানমারের জেনারেলরা তাকে ও তার প্রতিষ্ঠান ডিকেন্স অ্যান্ড ম্যাডসন কানাডাকে যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশের সঙ্গে যোগাযোগে সহায়তা করতে নিয়োগ দিয়েছেন। এসব দেশ জেনারলদের ‘ভুল বুঝেছে’ বলে উল্লেখ করেন তিনি।

বেন-মানাশে আরও জানান, মিয়ানমারের বর্তমান সেনা কর্মকর্তারা বাংলাদেশে পালিয়ে যাওয়া রোহিঙ্গা মুসলিমদের দেশে ফিরিয়ে আনতে চান। তিনি জানান, রোহিঙ্গা মুসলিমদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে আনার জন্য সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে যোগাযোগ করতেও তাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, সেনা কর্মকর্তাদের পছন্দ অনুযায়ী মিয়ানমারের শীর্ষ রাজনৈতিক নেত্রী অং সান সু চি ২০১৬ সাল থেকে চীনের সঙ্গে অতি ঘনিষ্ঠতা গড়ে তুলেছে।

বেন-মানাশে বলেন, ‘চীনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বৃদ্ধির বদলে পশ্চিম ও যুক্তরাষ্ট্রের দিকে আগাতে তারা জোর চেষ্টা চালাচ্ছেন। তারা চীনের পুতুল হতে চান না।’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও তার প্রশাসন একাধিকবার মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর অভ্যত্থানের কড়া সমালোচনা করেছেন। অভ্যুত্থানের পরপরই দেশটির সেনা কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার মিয়ানমারের প্রতিরক্ষা ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিরুদ্ধেও বাণিজ্যিক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে মার্কিন বাণিজ্য দফতর। এছাড়া দুটি সরকারি সংস্থাকে বাণিজ্যের ক্ষেত্রে কালো তালিকাভুক্ত করেছে বাইডেন প্রশাসন।

বেন-মানাশে বলেন, তিনি দক্ষিণ কোরিয়া থেকে কথা বলছেন এবং এর আগে মিয়ানমারের রাজধানী নেপিদো সফরে গিয়েছিলেন। সেখানে তিনি জান্তা সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জেনারেল মিয়া তুন উ’র সঙ্গে এক চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন। সামরিক সরকারের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হলে তাকে সম্মানী দেয়া হবে। তবে সম্মানীর অর্থের পরিমাণ জানাননি বেন-মানাশে।

(ওএস/এসপি/মার্চ ০৭, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

১৫ এপ্রিল ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test