E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

চলতি বছর থাইল্যান্ডে হিটস্ট্রোকে ৩০ জনের মৃত্যু

২০২৪ এপ্রিল ২৫ ১৬:৫৮:৩৮
চলতি বছর থাইল্যান্ডে হিটস্ট্রোকে ৩০ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : তীব্র গরমের কারণে বৃহস্পতিবার নতুন করে আবহাওয়া বিষয়ক সতর্কতা জারি করেছে থাইল্যান্ড। চলতি বছর দেশটিতে কমপক্ষে ৩০ জন হিটস্ট্রোকে প্রাণ হারিয়েছেন। ব্যাংককের স্থানীয় কর্তৃপক্ষ তীব্র তাপমাত্রার বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছে। সেখানকার তাপমাত্রা ৫২ ডিগ্রী সেলসিয়াসের (১২৫ ডিগ্রী ফারেনহাইট) ওপরে উঠতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে বুধবার তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৪০ দশমিক ১ ডিগ্রী সেলসিয়াস। বৃহস্পতিবারও একই তাপমাত্রার পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

চলতি সপ্তাহে দক্ষিণ এবং দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে ভয়াবহ তাপপ্রবাহে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। কিছু কিছু দেশের তাপমাত্রা অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে। ফিলিপাইনে স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বাংলাদেশেও তীব্র গরমের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এছাড়া দেশটির বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টির জন্য নামাজ আদায় করা হচ্ছে।

শহরের পরিবেশ বিভাগ সতর্ক করেছে যে, আর্দ্রতা, বাতাসের গতি এবং অন্যান্য বিষয় বিবেচনা করে ব্যাংককের বর্তমান আবহাওয়া পরিস্থিতি ‘অত্যন্ত বিপজ্জনক’ পর্যায়ে রয়েছে। উদোন থানি প্রদেশেও বৃহস্পতিবার তীব্র তাপমাত্রার বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে।

বুধবার রাতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত ১ জানুয়ারি থেকে ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত হিটস্ট্রোকে ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২০২৩ সালের পুরো বছরে এই সংখ্যা ছিল ৩৭ জন।

থাইল্যান্ডের রোগ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের উপ-মহাপরিচালক দিরেক খামপায়েন বলেন, বয়স্ক এবং যাদের বিভিন্ন ধরনের শারীরিক সমস্যা আছে তাদের বাড়ির বাইরে বের না হওয়া এবং প্রচুর পানি পান করার পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা।

থাইল্যান্ড এবং দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন দেশে এপ্রিল মাসে সাধারণত বেশ গরম পড়ে। তবে চলতি বছর আগের সব রেকর্ড অতিক্রম করেছে। গত বছর বিশ্বজুড়েই তাপমাত্রার রেকর্ড লক্ষ্য করা গেছে। সে সময়ই জাতিসংঘের আবহাওয়া ও জলবায়ু সংস্থা সতর্ক করেছিল যে, এশিয়া দ্রুত গতিতে আরও উষ্ণ হয়ে উঠছে।

(ওএস/এসপি/এপ্রিল ২৫, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২৪ মে ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test