Occasion Banner
Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

ম্যানচেস্টার পাবলিক লাইব্রেরিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২২ ফেব্রুয়ারি

২০২০ ফেব্রুয়ারি ১০ ১৫:১০:২৯
ম্যানচেস্টার পাবলিক লাইব্রেরিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২২ ফেব্রুয়ারি

প্রবাস ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাট অঙ্গরাজ্যের ম্যানচেস্টার পাবলিক লাইব্রেরি প্রথমবারের মতো অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনের আয়োজন করেছে।  আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি শনিবার ম্যানচেস্টার পাবলিক লাইব্রেরির হলরুমে দুপুর ২টা থেকে বিকেল পর্যন্ত চলবে এ অনুষ্ঠান। কানেকটিকাটের প্রবাসী বাংলাদেশিদের উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য আমন্ত্রন জানানো হয়েছে।  খবর বাংলা প্রেস।

কানেকটিকাটের লেখক, সাহিত্যিক,কবি,শিল্পী ও সাংস্কৃতিপ্রেমীরা বিভিন্নভাবে বিদেশী বন্ধুদের সামনে বাংলাদেশের শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরবেন বলে জানিয়েছেন ম্যানচেস্টার অ্যাডাল্ট অ্যান্ড কন্টিন্যুয়িং এডুকেশনে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মি সানজিদা নীরা।

ম্যানচেস্টার অ্যাডাল্ট অ্যান্ড কন্টিন্যুয়িং এডুকেশন, ম্যানচেস্টার পাবলিক লাইব্রেরি, স্কুল রিডিনেস কাউন্সিল এবং ম্যানচেস্টারের প্রবাসী বাংলাদেশিদের সার্বিক সহযোগিতায় অনুষ্ঠিতব্য উক্ত অনুষ্ঠানে থাকবে অমর একুশের পটভূমিকায় বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির প্রভাব এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের তাৎপর্য বিশ্লেষণ। আলোচনায় অংশ নেবেন স্থানীয় কবি লেখক সাহিত্যিক ও সংস্কৃতিসেবীরা। অনুষ্ঠানে থাকবে দেশাত্ববোধ ও মাতৃভাষা নিয়ে শিশু কিশোরদের পরিবেশনা ও বড়দের গান।

বাংলাদেশের শহীদ দিবস (২১শে ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবেও সুপরিচিত। বাঙালি জনগণের ভাষা আন্দোলনের মর্মন্তুদ ও গৌরবোজ্জ্বল স্মৃতিবিজড়িত একটি দিন হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে। ১৯৫২ সালের এই দিনে (৮ ফাল্গুন, ১৩৫৮) বাংলাকে পূর্ব পাকিস্তানের অন্যতম রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষণে কয়েকজন তরুণ শহীদ হন। তাদের মধ্যে অন্যতম হলো রফিক, জব্বার, শফিউল, সালাম, বরকত সহ অনেকেই। তাই এ দিনটি শহীদ দিবস হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে। ২০১০ খ্রিষ্টাব্দে জাতিসংঘ কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রতিবছর একুশে ফেব্রুয়ারি বিশ্বব্যাপী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করা হয়।

১৯৯৮ সালে কানাডার ভ্যাঙ্কুভার শহরে বসবাসরত দুই বাঙালি রফিকুল ইসলাম এবং আব্দুস সালাম প্রাথমিক উদ্যোক্তা হিসেবে একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণার আবেদন জানিয়েছিলেন জাতিসংঘের মহাসচিব কফি আনানের কাছে । ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ইউনেস্কোর প্যারিস অধিবেশনে একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ২০০০ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে দিবসটি জাতিসঙ্ঘের সদস্যদেশসমূহে যথাযথ মর্যাদায় পালিত হচ্ছে।

২০১০ সালের ২১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৬৫তম অধিবেশনে এখন থেকে প্রতিবছর একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করবে জাতিসংঘ। এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে পাস হয়েছে। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনের প্রস্তাবটি সাধারণ পরিষদের ৬৫তম অধিবেশনে উত্থাপন করে বাংলাদেশ। মে মাসে ১১৩ সদস্যবিশিষ্ট জাতিসংঘের তথ্যবিষয়ক কমিটিতে প্রস্তাবটি সর্বসম্মতভাবে পাস হয়।

(ওএস/এসপি/ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test