E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

বুয়েট- ইস্তাম্বুল কারিগরি বিশ্ববিদ্যলয়ের মধ্যে প্রটোকল সই

২০২৪ ফেব্রুয়ারি ২৮ ১৬:২১:১২
বুয়েট- ইস্তাম্বুল কারিগরি বিশ্ববিদ্যলয়ের মধ্যে প্রটোকল সই

স্টাফ রিপোর্টার : ইস্তাম্বুলস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলের উদ্যোগে শিক্ষা ও গবেষণা সহযোগিতা, শিক্ষক-ছাত্র বিনিময় এবং গবেষণাধর্মী প্রকাশনা, নিউক্লিয়ার পাওয়ার এবং কৃষি গবেষণায় অংশীদারিত্বের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় ও ইস্তাম্বুল কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে একটি সহযোগিতামূলক প্রটোকল স্বাক্ষরিত হয়েছে।  প্রটোকল সই করেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সত্য প্রসাদ মজুমদার এবং ইস্তাম্বুল কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেক্টর অধ্যাপক ড. ইসমাইল কোয়ুনজু।

এই সহযোগিতামূলক প্রটোকল বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে শিক্ষা ও গবেষণায় সহযোগিতা সম্প্রসারণসহ বাংলাদেশ ও তুরস্কের মধ্যকার সম্পর্ক আরো সুসংহত ও গতিশীল হবে। মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) ইস্তাম্বুলস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট এ তথ্য জানায়।

কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নূরে-আলমের সঞ্চালনায় সহযোগিতামূলক প্রটোকল স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড.আব্দুল জব্বার খান ও উপাচার্য অধ্যাপক ড. সত্য প্রসাদ মজুমদার, ইস্তাম্বুল কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস রেক্টর অধ্যাপক ড. সুলে ইতির সাতোগলু এবং রেক্টর অধ্যাপক ড. ইসমাইল কোয়ুনজু বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড. আব্দুল জব্বার খান এই সহযোগিতামূলক প্রটোকল সাক্ষর মুহূর্তকে একটি স্মরণীয় সময় হিসেবে উল্লেখ করে বলেন যে এই সহযোগিতামূলক প্রটোকল স্বাক্ষরের মাধ্যমে দু’টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে একসঙ্গে কাজ করার সুযোগ তৈরি হলো।

ভাইস রেক্টর অধ্যাপক ড. সুলে ইতির সাতোগলু তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন, প্রজেক্ট, প্রকাশনা ও গবেষণালব্ধ ফলাফল বিনিময়ের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়দু’টি দারুণভাবে উপকৃত হতে পারে। উপাচার্য অধ্যাপক ড. সত্য প্রসাদ মজুমদার স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়দু’টি এ সহযোগিতামূলক প্রটোকল সাক্ষরের মাধ্যমে প্রথমবারের মত একে অপরের কাছাকাছি আসার সুযোগ সৃষ্টি করলো বলে উল্লেখ করেন। তিনি আরো উল্লেখ করেন, বিশ্ববিদ্যালয়দু’টি সফটওয়্যার টেকনোলজি, গবেষণা, নিউক্লিয়ার পাওয়ার এবং কৃষি গবেষণা খাত সম্প্রসারণের ক্ষেত্রেও একে অপরকে সহযোগিতা করতে পারে।

ইস্তাম্বুল কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেক্টর অধ্যাপক ড. ইসমাইল কোয়ুনজু বলেন, ১৭৭৩ সালে প্রতিষ্ঠিত এই বিশ্ববিদ্যালয়টি গত বছর তাদের ২৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করেছে। তিনি দু’টি বিশ্ববিদ্যালয়কে একই ধরনের বিশ্ববিদ্যালয় উল্লেখ করে ছাত্র-শিক্ষক বিনিময়সহ যৌথভাবে বিভিন্ন ধরনের প্রজেক্ট ও গবেষণা চালিয়ে যেতে পারেন বলে মনে করেন। রেক্টর অধ্যাপক ড. ইসমাইল কোয়ুনজু খুব দ্রুতই দু’টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সহযোগিতামূলক কার্যক্রম শুরুর আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

কনসাল জেনারেল নূরে-আলম প্রকৌশল ও কারিগরি ক্ষেত্রে নেতৃস্থানীয় দুই বিশ্ববিদ্যালয় স্ব-স্ব দেশের অবকাঠামোগত ও কারিগরি সকল ক্ষেত্রে অবদান রাখছে বলে উল্লেখ করেন। এই দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সহযোগিতামূলক স্বাক্ষরিত প্রটোকল বাংলাদেশ- তুরস্ক সম্পর্ককে আরো গভীর ও শক্তিশালীকরণে ভূমিকা রাখবে, এই প্রত্যয় ব্যক্ত করে কনসাল জেনারেল অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

(ওএস/এসপি/ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২৪ এপ্রিল ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test