E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

২০৪০ সালের মধ্যেই পারমাণবিক যুদ্ধ!

২০১৮ মে ০১ ১৬:২৮:৫৭
২০৪০ সালের মধ্যেই পারমাণবিক যুদ্ধ!

ফিচার ডেস্ক : মার্কিন থিংক ট্যাঙ্ক র‌্যান্ড করপোরেশনের দাবি, আগামী ২২ বছরের মধ্যে পারমাণবিক যুদ্ধ বেধে যাবে। সংস্থাটি তেমনটাই দাবি করেন।

আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের বিভিন্ন ঘটনার পর্যবেক্ষণ-বিচার-বিশ্লেষণ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওই থিংক ট্যাঙ্ক র‌্যান্ড করপোরেশন জানিয়েছেন, আর মাত্র ২২ বছর অর্থাৎ ২০৪০ সালের মধ্যে একটা নিউক্লিয়ার (পারমাণবিক) যুদ্ধ বেধে যেতে পারে। খবর ডেইলি মেইল।

ওই থিংক ট্যাঙ্কের মতে, যেভাবে ড্রোনের মতো স্বয়ংক্রিয় টেকনোলজির ব্যবহার বাড়ছে সেখান থেকেই এই আশঙ্কা তারা করছেন।

সংস্থাটি তাদের রিপোর্টে জানিয়েছেন, এভাবে ড্রোনের হামলা বাড়তে বাড়তে একটা সময় দেশগুলো একে অপরকে নিউক্লিয়ার বোম ছুড়ে মারবে।

সম্প্রতিকালে ‘হাউ মাইট আর্টিফিয়াল ইন্টেলিজেন্স এফেক্ট দ্য রিস্ক অব নিউক্লিয়ার ওয়ার?’ নামে একটি পেপারে সেই বিশ্লেষণ করেছে আমেরিকান ওই থিংক ট্যাঙ্ক।

এই সংস্থাটির গবেষকরা জানান, যে জিনিস যত সহজ মনে হয় সেখান থেকেই নানা ধরনের সমস্যা-বিপত্তির শুরু হতে পারে এবং একটা জটিল আকার ধারণ করে নিতে পারে বলে মনে করেন ওই থিংক ট্যাঙ্ক-এর গবেষকরা।

গবেষকদের মতে, একে-অপরের মধ্যে প্রতিহিংসার বশে পারমাণবিক অস্ত্রের প্রয়োগ আরো বাড়বে। বর্তমান বিশ্বে অনেক দেশের হাতেই নিউক্লিয়ার অস্ত্র রয়েছে। তাই আগামী দিনে ওই সমস্ত দেশগুলোর মধ্যে কূটনৈতিক স্থিতাবস্থা বজায় রাখা খুবই কঠিন হয়ে পড়বে। এ কারণে পারমাণবিক যুদ্ধের ঝুঁকি কমাতে তাই প্রত্যেকটি দেশকে উদ্যোগী হতে হবে।

(ওএস/এসপি/মে ০১, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২০ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test