Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

বালিয়াকান্দিতে বাঁশ দিয়ে নির্মিত দুর্গা মন্দির

২০১৭ সেপ্টেম্বর ১৮ ১৭:২৯:৩৮
বালিয়াকান্দিতে বাঁশ দিয়ে নির্মিত দুর্গা মন্দির

দেবাশীষ বিশ্বাস, রাজবাড়ী : রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নে গ্রাম জামালপুর গ্রামে সনাতন ধর্মের অবলম্বনে বাঁশ দিয়ে নির্মিত হচ্ছে ব্যতিক্রমী দূর্গা মন্দির। প্রায় ৭ হাজার বাঁশ দিয়ে ৫ টি মন্দির নির্মাণ করছে গ্রাম জামালপুর দুর্গা পূজা কমিটি।

গ্রাম জামালপুর মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও প্রধান পৃষ্ঠপোষক গোবিন্দ বিশ্বাস বলেন, সনাতন ধর্মের আলোকে ২ শতাধিক প্রতিমা দিয়ে মন্দিরগুলো সাজানো হবে।

তিনি জানান, ৫টি মন্দিরে রামায়ন, মহাভারত, পৌরণিক কাহিনী, পরমেশ্বর ভগবান শ্রী কৃষ্ণেন দোলযাত্রা, রাসলীলা, মহিরাবণ বধ, চক্রগুহের অভিমূন্যের প্রবেশ এসব কাহিনীর অবলম্বনে ২০০ শতাধিক প্রতিমা দিয়ে ৫টি মন্দির সজ্জিত করা হবে।

মন্দির কমিটির সভপতি বিধান কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, দর্শনার্থীদের ভীড়ের কথা চিন্তা করে এবার ৫টি মন্দিরে সনাতন ধর্মের বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হবে যেখান থেকে সাধারন দর্শনার্থী ও ভক্তবৃন্দ সহজেই ধর্মীয় দিক জানতে পারবে। তিনি আরো বলেন সপ্তমী পূজা থেকে দশমী পূজা পর্যন্ত প্রায় ৫ লক্ষ ভক্ত-দর্শনার্থীর সমাগম হবে।

সরেজমিনে প্রতিবেদন সংগ্রহের সময় দেখা যায়, পুকুরের উপর বাঁশ দিয়ে ৩০ ফুট উচু করে মন্দিরের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে, পাতালপুরের মহিরাবন বধের স্বরূপ প্রদর্শনের জায়গার কাজ আংশিক বাকি রয়েছে, জলের ফ্লোয়ারা সমৃদ্ধ বাঁশ দিয়ে নির্মিত মন্দিরের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে, অন্য মন্দিরের কাজ শেষ হয়েছে।

মন্দির দেখতে আসা মাগুরা থেকে আসা দর্শনার্থী অরবিন্দ দাস জানান, পূজার আগে শুধুমাত্র নির্মানকাজ দেখতে এখানে এসেছি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে সবচেয়ে সেরা এবং ধর্মের বিভিন্ন দিক তুলে ধরা এক ব্যতিক্রমি উদ্দ্যোগ গ্রাম জামালপুর দুর্গা মন্দিরের এই প্রদর্শনি।

বাঁশ দিয়ে মন্দির নির্মতা সনজিৎ কুমার বিশ্বাস জানান, গতবারের অভিজ্ঞতা থেকে এবার আরো শক্ত করে এবং নিচু করে মন্দির নির্মান করা হয়েছে। তিনি জানান আগামী এক সপ্তাহে কাজ শেষ হবে।

প্রতিমা শিল্পী দিলীপ কুমার বিশ্বাস বলেন, আমরা প্রায় ৩০ জন শিল্পী ২ মাস ধরে প্রতিমা তৈরীর কাজ প্রায় শেষ করে করেছি। স্থানীয়রা জানিয়েছেন গ্রাম জামালপুরের এই পূজা দেশের মাঝে রাজবাড়ীতে গর্বিত করেছে।

দুর্গা পূজার সার্বিক নিরাপত্তা নিয়ে বালিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাসিনা বেগম জানান, শুধু গোবিন্দ বিশ্বাসের মন্দিরেই নয় বালিয়াকান্দি উপজেলার সব মন্দিরেই পুলিশের ব্যাপক নিরাপত্তা থাকবে।

তিনি জানান, আনসারের পাশাপাশি সাদা পোশাকে পুলিশ সার্বক্ষণিক কাজ করবে। গোবিন্দ বিশ্বাসের বাড়ীতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন থাকবে।

এক পর্যায় তিনি বলেন, আমি নিজেই অধিকাংশ সময় সেখানেই থাকবো। তিনি বলেন ধর্মীয় ব্যাপারে অনাকাঙ্খিত কোন ঘটনা সহ্য করা হবে না। কারো মনে যদি খারাপ উদ্দেশ্য থাকে তবে এখানে আসার দরকার নেই।

(ডিবি/এসপি/সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

২৩ এপ্রিল ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test