E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

শরীয়তপুরে গভীর রাতে সিনিয়র সাংবাদিকের বাসায় অপরিচিত লোকের হানা, থানায় অভিযোগ

২০১৮ জুলাই ২৮ ১৮:১৮:৪৩
শরীয়তপুরে গভীর রাতে সিনিয়র সাংবাদিকের বাসায় অপরিচিত লোকের হানা, থানায় অভিযোগ

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : দৈনিক যুগান্তর, এস এ টিভি ও বিডি নিউজ ২৪ ডটকম এর শরীয়তপুর জেলা প্রতিনিধি কে এম রায়হান কবীর সোহেলের শরীয়তপুর শহরের পালং উত্তর বাজারে অবস্থিত নিজ বাসভবনে বৃস্পতিবার গভীর রাতে কতিপয় অপরিচিত লোক হানা দেয়। এ সময় তারা সাংবাদিক রায়হানকে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে চলে যায়। এ ঘটনায় সাংবাদিকের পরিবারে চরম উদ্বেগ ও উৎকন্ঠা বিরাজ করছে। এ বিষয়ে শরীয়তপুর সদর পালং মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

সাংবাদিক রায়হান কবীর সোহেলের পরিবার সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১ টায় ৪/৫ জন অপরিচিত লোক তার বাসায় গিয়ে দরজার কড়া নাড়ে। এ সময় সাংবাদিকের বাবা আব্দুর রহমান খান দরজা খুলে দেন। আগত ব্যক্তিরা তখন রায়হান কবীরকে খুঁজতে থাকে। তাকে না পেয়ে তার বাবার কাছে তার ব্যবহত মোবাইল নাম্বার নিয়ে যায়। এ সময় সাংবাদিক রায়হান কবীর বাসায় ছিলেন না। আগত ব্যক্তিদের পরিচয় জানতে চাইলে তারা শরীয়তপুর শহরের পাকা মাথা এলাকার লোক পরিচয় দিয়ে রায়হান বাড়ির ভেতর কোথাও না পেয়ে চলে যায়। এ ঘটনায় সাংবাদিক পরিবারের মধ্যে উদ্বেগ উৎকন্ঠা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে শুক্রবার সকালে পালং মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পালং মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ হুমায়ুন কবীরসহ কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

রায়হান কবীর সোহেল বলেন, আমি প্রায় দুই দশক থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জরিত। পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সমাজের ইতিবাচক সংবাদ পরিবেশনের পাশাপাশি দূর্নীতিবাজ ও অপরাধ-অপকর্মকারীদের বিষয়েও সর্বদা তৎপর থেকেছি। ব্যক্তিগতভাবে আমার কোন শত্রু নেই। বৃহস্পতিবার রাতে ২৫ থেকে ৪০ বছর বয়সের ৫ জন অজ্ঞাতনামা লোক বাসায় ঢুকে আমাকে খোঁজ করায় হতবাক হয়েছি। এতে আমার বীর মুক্তিযোদ্ধা পিতা ও অসুস্থ্য মা সহ পরিবারের সদস্যরা আতংকিত সময় পার করছেন। এ ব্যাপারে পালং মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি। আশা করি প্রশাসন তদন্ত করে এই ঘটনার সঠিক বিষয়টি খুঁজে বরে করবেন।

শরীয়তপুর ইলেক্ট্রনিক জার্নালিষ্ট এসাসিয়েশনের সভাপতি রোকোনুজ্জামান পারভেজ ও সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুজ্জামান খান এবং তৃণমূলের সাংবাদিকদের প্রানের সংগঠন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি এম, এ ওয়াদুদ মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক বি, এম ইশ্রাফিল, আলাদা আলাদা বিবৃতিতে বলেন, রায়হান কবীর সোহেল শরীয়তপুরের একজন জ্যেষ্ঠ ও নির্ভিক সাংবাদিক। তার বাসভবনে গভীর রাতে অপরিচিত, সন্দেহভাজন যুবকদের হানা দেয়া ও তল্লাসী করায় এবং সম্প্রতি শরীয়তপুরের আরেক সিনিয়র সাংবাদিককে প্রশাসনের এক উর্দ্ধতন কর্মকর্তা কর্তৃক প্রাননাশের হুমকি দেয়াকে আমরা একই সূত্রে গাথা বলে ধারণা করছি। এতে আমরা উদ্বিগ্ন। আমরা ঘটনা সমূহের তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রশাসনের যথাযথ তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেয়ারও আহবান করছি।

পালং মডেল থানার ওসি মো. মুনিরুজ্জামান বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কিছু আলামত সংগ্রহ করেছে। রহস্য উদঘাটনে জোর তদন্ত চলছে। সাংবাদিক রায়হান কবীরের এক প্রতিবেশী আলহাজ সুলতান মুন্সির পরিবারের এক সদস্য জানিয়েছেন, ঘটনার সময় দুইজন সন্দেহভাজন লোককে রায়হানের বাসার সামনে দিয়ে ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে। এ মুটিভটি নিয়েও পুলিশ করছে।

(কেএনআই/এসপি/জুলাই ২৮, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test