E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

সাভারে বাসের ধাক্কায় জাবি শিক্ষার্থী গুরুতর আহত

২০২৩ নভেম্বর ০৭ ১৭:৫৯:৩৫
সাভারে বাসের ধাক্কায় জাবি শিক্ষার্থী গুরুতর আহত

তপু ঘোষাল, সাভার : ঢাকা জেলার সাভারে গোল্ডেন লাইন পরিবহনের ধাক্কায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) এক শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেট (ডেইরি গেট) ও জয় বাংলা গেটের মধ্যবর্তী ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত ছাত্রের নাম তানজীর আহমেদ মেহেদী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের শিক্ষার্থী।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেটে (ডেইরি গেট) মোবারক হোসেন নামের এক শিক্ষার্থীকে অন্য একটি বাসে ওঠার সময় গোল্ডেন লাইন পরিবহনের একটি বাস বাম পাশ থেকে চাপ দেয়। এসময় মোবারক বাস থামানোর কথা বললে, বাসচালক ও বাসের হেলপার মোবারককে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।

এসম আরও দুই শিক্ষার্থী মেহেদী ও কবির এগিয়ে গেলে বাসের হেলপার কবিরকে টান দিয়ে বাসে তুলে নিয়ে যায়। পরে মেহেদী ও মোবারক অন্য বাস দিয়ে গিয়ে ওই বাসকে থামিয়ে দেয়। এসময় তারা কবিরকে বাস থেকে নামানোর চেষ্টা করলে বাস দ্রুত গতিতে টান দেয় এবং বাসের হেলপার তাদেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। ফলে মেহেদী রাস্তায় পড়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পায়।

পরে তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে নেওয়া হয়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় পরে তাকে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।

মোবারক হোসেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেটের সামনে থেকে নীলাচল বাসে উঠছিলাম। এ সময় গোল্ডেন লাইন পরিবহনের একটি বাস আমাকে পাশ থেকে চাপ দেয়। আমি তাদের বাস থামাতে বললে, তারা আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এসময় মেহেদী ও কবির এগিয়ে এলে বাসের হলেপার কবিরকে বাসে তুলে নিয়ে যায়। পরে মেহেদী ও আমি অপর একটি বাসে উঠে বাসটিকে আটকায়। এসময় আমরা কবিরকে নামিয়ে আনতে গেলে বাসচালক কবিরসহ আমাদের ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এতে মেহেদী রাস্তায় পড়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পান।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আ স ম ফিরোজ-উল-হাসান বলেন, ঘটনাটি সম্পর্কে জেনেছি। ছেলেটির গুরুতর আহত হয়েছে। আমরা এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি যাতে তারা চিকিৎসা চালিয়ে যায়। আপাতত আমাদের শিক্ষার্থীকে সুস্থ করাটা মূখ্য। এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

(টিবি/এসপি/নভেম্বর ০৭, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test