E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

২৮ অক্টোবর, ১৯৭১

সিলেটে মুক্তিবাহিনী পাকবাহিনীর ধলাই ঘাঁটির ওপর আক্রমণ চালায়

২০২১ অক্টোবর ২৮ ১২:০৩:৫৫
সিলেটে মুক্তিবাহিনী পাকবাহিনীর ধলাই ঘাঁটির ওপর আক্রমণ চালায়

উত্তরাধিকার ৭১ নিউজ ডেস্ক : ২নং সেক্টরে মুক্তিবাহিনীর ১০ম বেঙ্গলের তিনটি কোম্পানী গোলন্দাজ বাহিনীর সহায়তায় নিলক্ষী ঘাঁটিতে অবস্থানরত পাকসেনাদের ওপর তীব্র আক্রমণ চালায়। তিন ঘন্টা যুদ্ধের পর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রচন্ড চাপে টিকতে না পেরে পাকসেনারা নিলক্ষী ঘাঁটি পরিত্যাগ কওে পিছু হটে। মুক্তিযোদ্ধা নিলক্ষী ঘাঁটি পুর্নদখলের পর প্রতিরক্ষাব্যূহ মালিবিল ও গাবতলী পর্যন্ত সম্পসারিত করে।

১নং সেক্টরে মুক্তিবাহিনীর একটি এ্যামবুশ দল গুতুমার কাছে পাকসেনাদের একটি বাঙ্কারে এল.এম. জি-র সাহায্যে আক্রমণ চালায়। এতে বাঙ্কার টহলরত ১ জন পাকসেনা নিহত হয়। আক্রমণ শেষে মুক্তিযোদ্ধারা নিরাপদে নিজেদের অবস্থানে ফিরে আসে।

সিলেটে মুক্তিবাহিনী পাকবাহিনীর দুর্ভেদ্য ধলাই ঘাঁটির ওপর প্রচন্ড আক্রমণ চালায়। পাকসেনারা পালাটা আক্রমণ চালালে উভয়পক্ষের মধ্যের তুমুল সংঘর্ষ হয়। এই যুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধা সিপাহি হামিদুর রহমান শহীদ হন। অপরদিকে পাকবাহিনীর অনেক সৈন্য হতাহত হয়।

সিলেটে ‘জেড’ ফোর্সের ‘বি’ কোম্পানী আর্টিলারীর সাহায্যে পাকবাহিনীর পাত্রখোলা চা ফ্যাক্টরী ঘাঁটি আক্রমণ করে। এতে পাকসেনা সম্পূর্ণরূপে পর্যুদস্ত হয়। মুক্তিযোদ্ধারা পাত্রখোলা চা ফ্যাক্টরী পাকসেনা ঘাঁটি দখল করে।

৮নং সেক্টরের বয়রা সাব-সেক্টরে মুক্তিবাহিনীর একটি এ্যামবুশ দল পাকসেনাদের একটি দলকে গরিবপুর থেকে আসার পথে ফতেহপুরে এ্যামবুশ করে। এই এ্যামবুশে পাকবাহিনীর ৩ জন সৈন্য নিহত হয়।

পূর্ব পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন প্রদেশের আসন্ন উপনির্বাচনে জাতীয় পরিষদে ৫০ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত বলে ঘোষণা করে। নির্বাচিতদের মধ্যে প্রাদেশিক জামায়াতে ইসলামীর প্রধান গোলাম আজম, প্রাদেশিক কাউন্সিল মুসলীম লীগ প্রধান খাজা খয়রুদ্দিন, কাইয়ুম মুসলিম লীগের সাধারণ সম্পাদক খান এ.সবুর,জামায়াতের সহকারী আমীর আব্বাস আলী খান ও এ.কে.এম.ইউসুফ রয়েছেন।

ঢাকায় একজন সামরিক মুখপাত্র জানান, প্রদেশের সর্বত্র রাজাকাররা প্রায় প্রতিদিন ভারতীয় চরদের (মুক্তিযোদ্ধা) মোকাবেলা করছে। তারা দুষ্কৃতকারীদের (মুক্তিযোদ্ধা) আক্রমণ নস্যাৎ করে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ও রেলসেতু রক্ষা করছে। রাজাকারদের সাফল্যে দেশবাসী গর্বিত।

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগদানকারী সদস্য এ.টি. সাদী হাউস্টনে পাকিস্তানি ছাত্রদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘সরকার গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্যে উপনির্বাচনের ব্যবস্থা করেছে। কিন্তু ভারত সীমান্ত এলাকায় গুলিবর্ষণ এবং চরদের লেলিয়ে দিয়ে উপনির্বাচন বাতিলের ষড়যন্ত্র করছে।’

সিলেটের ১নং সংক্ষিপ্ত সামরিক আইন প্রশাসক বারবখ থানার নাদুস গ্রামের আব্দুল কাইয়ুম,কুলারুয়া থানার মহাতেবপুরের জিতেন্দ্র মালাকার, সুজাতপুরের এনায়েত উল্লা, জকিগঞ্জথানার কাছিরকে গ্রামের মাকুর আলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে তাদেরকে সামরিক আদালতে হাজির হবার নির্দেশ দেয়।

তথ্য সূত্র: মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর
(ওএস/এএস/অক্টোবর ২৮, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

২৯ নভেম্বর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test