Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

বনসাই এখন পেশা হিসেবে নিতে চান তারিকুল

২০১৯ আগস্ট ০৬ ১৮:২৪:২৯
বনসাই এখন পেশা হিসেবে নিতে চান তারিকুল

সোহাগ হোসেন, দুমকি (পটুয়াখালী) : মানুষের শখ বিচিত্র। বিচিত্র শখের পেশায় সাফল্যের সম্ভাবনাও বেশি। কেউ শখ করে কাপড় বুনে, কেউবা কাপড়ে ফুল তোলে, কেউবা আবার বাঁশি বাজায়, অনেকে পাখি পুষে, কেউ আবার বাগান তৈরী করে। আবার  কেউ শখের বশে বনসাইয়ের বাগান তৈরি করেন । তবে বনসাই কি অনেকেই জানেন না। 

বনসাইয়ের ইতিহাস বহু পুরনো। ধারণা করা হয় প্রায় ২০০০ বছর পূর্বে চীনে এর শুরু। পরবর্তী সময়ে জাপানে বনসাই বিস্তৃতি লাভ করে। বনসাই শব্দটি জাপানি। বন শব্দের অর্থ ছোট পাত্র এবং সাই শব্দের অর্থ গাছ। অর্থাৎ বনসাই মানে দাঁড়াচ্ছে, ছোট পাত্রে গাছ। বনসাই মূলত ছোট পাত্রে বিশেষ পদ্ধতিতে লাগানো গাছ।

শখের তৈরি যেকোন জিনিসই আনন্দ ও ভালোবাসার খোরাক যোগায় মানুষের জীবনে। তেমনি ভাবে পটুয়াখালীর দুমকিতে রয়েছেন একজন বনসাই প্রেমী। উপজেলার আঙ্গারিয়া ইউনিয়নের জলিশা গ্রামের লুৎফুর রহমানের ছেলে তারিকুল ইসলাম। একাউন্টিংএ অনার্স করা তারিকুল বনসাইকেই এখন পেশা হিসেবে বেছে নিতে চান। প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতা ও আর্থিক সহযোগিতা পেলে বনসাইকে পরিপূর্ণ রুপে দ্বার করাতে পারবেন বলে বেশ আশাবাদী তিনি ।

তারিকুল বলেন, বর্তমান কারিকুলামের শিক্ষাগত যোগ্যতার বিবেচনায় চাকুরীর সুযোগ খুবই কম। সে কারনে স্বাধীন বিকল্প পেশার বনসাই করতে চান। তিনি বলেন, ছাত্রজীবন থেকেই সে বনসাই পছন্দ করেন। তবে ইউটিউবে বনসাই দেখে পুরোপুরি প্রেমে পড়ে যান। সেখান থেকেই মনের ভিতর ইচ্ছা যোগান বনসাই করবেন। লেখাপড়া শেষে একটি বে-সরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি নেন।

তবে কিছুদিন পরে চাকরি ছেরে বাড়িতে এসে বিভিন্ন যায়গায় ঘুরে চারা সংগ্রহ করে বাড়ির আঙ্গিনায় মাত্র ১ শতক জমিতে বনসাই শুরু করেছেন। তার বনসাই গ্যালারিতে রয়েছে- নিম, গাব, বেল, তেতুল, বকুল, ডালিম, কমলা, বহেরা, অর্জুন, জামরুল, করমচা, কদবেল, কামরাঙা, বট, নুডা বট, পাকুর বট, কাঠলি বট, গোলাপজাম, সাদা নয়নতারা, স্টার কুইন, বাগান বিলাস, ক্যাকটাস, পাতাবাহার, লাল জামরুল, চায়না কমলা, কাজু বাদাম, ডেউয়াসহ আরো অনেক গাছ ।

বিশিষ্ট উদ্ভিদ বিজ্ঞানী ও গবেষক, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের উদ্যানতত্ত্ব বিভাগের প্রফেসর ড. মাহবুব রাব্বানী বলেন, বর্তমানে বনসাইয়ের অনেক কদর রয়েছে তবে বনসাই করে মনের শখ পুরনের পাশাপাশি আর্থিক ভাবে লাভবান হওয়া সম্ভব।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সঞ্জিব কুমার গোস্বামী বলেন, উপজেলায় এমন একজন বনসাই প্রেমী আছেন শুনে খুব ভাল লাগছে। তবে উপজেলা কৃষি আফিস পাশাপাশি ব্যাক্তিগত ভাবে আমার পক্ষথেকে সকল ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

(এস/এসপি/আগস্ট ০৬, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

২৩ আগস্ট ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test