E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

জাপানের ওয়াকিনাওয়া মিষ্টি আলু চাষে সফল কৃষক শেখ সাদী

২০২৪ মার্চ ২৭ ১৭:৪২:৩৯
জাপানের ওয়াকিনাওয়া মিষ্টি আলু চাষে সফল কৃষক শেখ সাদী

গৌরীপুর প্রতিনিধি : জাপানের ওয়াকিনাওয়া জাতের মিষ্টি আলু চাষ করে সফল হয়েছেন ময়মনসিংহের গৌরীপুরের কৃষক মোঃ শেখ সাদী। তার জমিতে উৎপাদিত এক একটি আলুর ওজন ৫০০ থেকে ৭০০ গ্রাম পর্যন্ত হয়েছে। বাজারে চাহিদা ও দেশী আলুর চেয়ে বাজারে দাম বেশি থাকায় এই আলু বিক্রি করে তিনি লাভবানও হচ্ছেন। স্বল্প খরচ ও অল্প পরিশ্রমে ভালো লাভ পাওয়ায় এখন গ্রামের কৃষকরাও এই আলু চাষে আগ্রহ বেড়েছে।

কৃষক শেখ সাদীর বাড়ি উপজেলার মাওহা ইউনিয়নের কড়মড়িয়া গ্রামে। প্রতিবছরই নানা জাতের ব্যতিক্রম সবজি ও শষ্য আবাদ করে এলাকায় তিনি আদর্শ কৃষক হিসাবে পরিচিতি পেয়েছেন। একদিন ইউটিউবে জাপানের ওয়াকিনাওয়া জাতের মিষ্টি আলু চাষ দেখে এই আলু চাষে আগ্রহী হন তিনি। এরপর যোগাযোগ করেন স্থানীয় কৃষি অফিসে।

উপজেলা কৃষি অফিসার নিলুফার ইয়াসমিন জলির কাছ থেকে ওয়াকিনাওয়া জাতের মিষ্টি আলুর কাটিং সংগ্রহ করে জৈব সার, কীটনাশক ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ নেন কৃষক শেখ সাদী। এরপর গত বছরের ডিসেম্বরের মাসের মাঝামাঝি সময়ে বাড়ির পাশে ২০শতক জমিতে ওয়াকিনাওয়া জাতের মিষ্টি আলু চাষ করেন। মার্চের মাঝমাঝি সময়ে জমি থেকে আলু উত্তোলন করেন। কৃষি অফিসের পরামর্শ ও সঠিক পরিচর্যায় প্রতি শতকে চার মণ করে আলু উত্তোলন করেছেন। এদিকে ওয়াকিনাওয়া জাতের আলু চাষের খবর পেয়ে স্থানীয় কৃষকরা এই আলু চাষের জন্য তার কাছ থেকে পরামর্শ নিচ্ছেন।

কৃষক হলুদ মিয়া বলেন, আমাদের দেশী জাতের মিষ্টি আলু আকারে ছোট। কিন্তু কৃষক শেখ সাদী চাষ করা বিদেশী জাতের মিষ্টি আলু প্রতিটির ওজন আধা কেজির ওপর। খেতেও সুস্বাদু। পাশাপাশি বাজারে দেশী আলুর তুলনায় দামও বেশি। আমরাও এখন এই আলু চাষে করতে উদ্যোগ নিচ্ছি।

কৃষক শেখ সাদী বলেন, আমি সবসময় ব্যতিক্রম ও নতুন কৃষি আবাদ করতে পছন্দ করি। একদিন ইউটিউবে ওয়াকিনাওয়া জাতের আলুর চাষ দেখে কৃষি যোগাযোগ করি। পরে সেখান থেকে প্রদর্শনী পাই। কৃষি অফিসের পরামর্শে ও সঠিক পরিচর্যা করে আমি ভালো ফলন ও বিক্রি করে ভালো দাম পেয়েছি।

উপজেলা কৃষি অফিসার নিলুফার ইয়াসমিন জলি বলেন, ওয়াকিনাওয়া আলু সুস্বাদু ও পুষ্টিগুণ অনেক বেশি। এই আলু এক একটির ওজন হাফ কেজি থেকে সর্বোচ্চ এক কেজির ওপরে হয়। আমরা প্রথমবারের মতো এই আলুর একটি প্রদর্শনীর শেখ সাদীকে দিয়েছি। ভালো ফলন হওয়ায় এখন অন্যান্য কৃষকরাও আগ্রহ দেখাচ্ছে এই জাতের আলু চাষে।

(এস/এসপি/মার্চ ২৭, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২১ এপ্রিল ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test