Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

কোরবানির ঈদেও ৯ দিনের ছুটি

২০১৯ জুন ২৬ ১৫:৩৪:০১
কোরবানির ঈদেও ৯ দিনের ছুটি

স্টাফ রিপোর্টার : এবার ঈদুল আজহায়ও দীর্ঘ ছুটি কাটানোর সুযোগ আসছে সরকারি চাকরিজীবীদের। তারা একদিন ছুটি ম্যানেজ করতে পারলেই পেয়ে যাবেন টানা ৯ দিনের ছুটি।

এবার কোরবানি ঈদের ছুটির আগে-পরে সাপ্তাহিক ছুটি, জাতীয় শোক দিবসের ছুটির মধ্যে একটি কর্মদিবস রয়েছে। এই কর্মদিবসে ছুটি নিতে পারলে টানা ৯ দিনের ছুটি হবে ঈদুল আজহায়।

গত ঈদুল ফিতরেও এমন অবস্থা হয়েছিল। ঈদের ছুটির আগে-পরে সাপ্তাহিক ছুটি, লাইলাতুল কদরের ছুটির মধ্যে একটি কর্মদিবস ছিল। সেই দিনটিকে ছুটি ঘোষণার মাধ্যমে টানা ৯ দিনের ছুটি দেয়ার বিষয়টি আলোচিত হলেও তা আর হয়নি।

ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের দ্বিতীয় বড় ধর্মীয় উৎসব। ঈদুল ফিতরের মতো এই ঈদেও দেশের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা মানুষ প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে রেল, সড়ক ও নৌপথে ছোটেন গ্রামের বাড়িতে।

হিজরি জিলহজ মাসের ১০ তারিখে ঈদুল আজহা উদযাপিত হয়ে থাকে। সরকারি ছুটির তালিকায় বাংলাদেশে আগামী ১২ আগস্ট পবিত্র ঈদুল আজহা পালিত হওয়ার সম্ভাব্য তারিখ ধরা হয়েছে। এ ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে ঈদুল আজহা আগামী ১১ আগস্ট হতে পারে বলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবির ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সেন্টার (আইএসি) ইতোমধ্যে ঘোষণা দিয়েছে।

আইএসি বলছে, মধ্যপ্রাচ্যে আগামী ১ আগস্ট জিলহজের নতুন চাঁদ দেখা যেতে পারে। সে অনুযায়ী, মধ্যপ্রাচ্যে পবিত্র ঈদুল আজহা অনুষ্ঠিত হবে ১১ আগস্ট।

সাধারণত মধ্যপ্রাচ্যের সৌদি আরব, কাতার, কুয়েত, আমিরাতে পবিত্র ঈদ পালিত হওয়ার পরদিন বাংলাদেশে পালিত হয়। সে অনুযায়ী, বাংলাদেশের আকাশে জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা যেতে পারে ২ আগস্ট এবং ঈদুল আজহা অনুষ্ঠিত হতে পারে ১২ আগস্ট।

বাংলাদেশে ১২ আগস্ট ঈদুল আজহা হলে ছুটি থাকবে ১১, ১২ ও ১৩ আগস্ট অর্থাৎ রোব, সোম ও মঙ্গলবার। এর আগে শুক্র ও শনিবার (৯ ও ১০ আগস্ট) দু’দিন সাপ্তাহিক ছুটি। ঈদের ছুটির পর ১৪ আগস্ট (বুধবার) অফিস খোলা। এর পরের দিন ১৫ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) জাতীয় শোক দিবসের ছুটি। শোক দিবসের ছুটির পর ১৬ ও ১৭ (শুক্র ও শনিবার) দু’দিন সাপ্তাহিক ছুটি।

দেখা যাচ্ছে, ৯ আগস্ট থেকে ১৭ আগস্ট পর্যন্ত ৯ দিনের মধ্যে শুধু ১৪ আগস্ট বুধবার অফিস খোলা।

খাদ্য মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, ঈদুল ফিতরের সময়ও আমরা অপেক্ষায় ছিলাম, মাঝখানের একদিন ছুটি হবে বলে শুনছিলাম, কিন্তু শেষ পর্যন্ত তো আর হলো না। আশা করি, এবার হবে। কারণ, মাঝখানে একদিন খোলা থাকলে, আসলে ওইদিন অফিসে সেভাবে কাজ হয় না।

সচিবালয়ের কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারী জানিয়েছেন, টানা ৯ দিনের ছুটি পেতে তারা ১৪ আগস্ট ছুটি নেবেন। তাই সরকারই ওইদিন ছুটি দিয়ে দিতে পারে। প্রয়োজনে ওইদিনের অফিস পরবর্তী কোনো ছুটির দিনে নেয়া হোক।

সরকারি নিয়ম অনুযায়ী, ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহার দিন সাধারণ ছুটি। এ ছাড়া এই দুই ঈদের আগের ও পরের দিন নির্বাহী আদেশে ছুটি থাকে। এই দুই ঈদে ৩ দিন করে ছুটি থাকে।

এর আগে ২০১৬ সালে ঈদুল ফিতরের সময় শবে কদর, সাপ্তাহিক ছুটির সঙ্গে ঈদুল ফিতরের ছুটি মিলিয়ে টানা ৯ দিনের ছুটির মধ্যে একদিন অফিস খোলা ছিল। ওই সময় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মাঝখানের একদিন ছুটি ঘোষণা করা হয়েছিল।

ঈদুল আজহার ছুটি ও জাতীয় শোক দিবসের ছুটির মধ্যে একদিন কর্মদিবস রয়েছে, এ দিন ছুটি দেয়ার কোনো চিন্তা আছে কি না- জানতে চাইলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (বিধি) মো. রইছ উদ্দিন বলেন, ‘বিষয়টি জানি। তবে এখনও অনেক সময় বাকি। বিষয়টি নিয়ে চিন্তা করার সময় এখনও আসেনি। পরে এ বিষয়ে খোঁজ নেবেন।’

(ওএস/এসপি/জুন ২৬, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

১৬ অক্টোবর ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test